স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসা সরকারিকরণের ঘোষণার আহ্বান - সমিতি সংবাদ - Dainikshiksha

স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসা সরকারিকরণের ঘোষণার আহ্বান

নিজস্ব প্রতিবেদক |

বাংলাদেশ স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসার অবহেলিত শিক্ষকদের চাকরি সরকারিকরণের ঘোষণা দিয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসা শিক্ষক সমিতির নেতারা। মঙ্গলবার (২২জানুয়ারি) রাজধানীতে বাংলাদেশ শিশু কল্যাণ পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তারা এ দাবি জানান। তারা আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, বাংলাদেশ স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসা সরকারিকরণ হলে  নব দিগন্ত উন্মোচিত হবে।

 

বাংলাদেশ স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসা শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি মাওলানা মো.আব্দুর রহমান শাহাজাহানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তারা একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মাধ্যমে চতুর্থবারের মতো সরকার গঠন করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং নবগঠিত মন্ত্রিপরিষদের সদস্যদের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান। 

সমিতির  মহাসচিব মাওলানা কাজী মোখলেসুর রহমান মহাজোটের বিজয়কে ১৬ কোটি বাঙালির বিজয় বলে উল্লেখ করে দেশবাসীকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, সরকার বাংলাদেশ স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসার শিক্ষকদের চাকরি সরকারিকরণের ঘোষণা দিয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়ে তুলবেন। বঙ্গবন্ধু ইসলামিক ফাউন্ডেশন স্থাপন করে ইসলামী শিক্ষার যে গোড়া পত্তন করেছিলেন তাঁর কন্যা শেখ হাসিনার বাংলাদেশ স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসা সরকারিকরণ করে ইসলামের মূল ভিত্তি মজবুত করবেন এটাই জাতির প্রত্যাশা

তিনি আরও বলেন,স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসা নীতিমালা ২০১৮ অনুমোদন করে ইতিমধ্যেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৩৫ বছর যাবত অবহেলিত বঞ্চিত শিক্ষকদের মনে আশার আলো ছড়িয়ে দিয়েছেন।  

দপ্তর সম্পাদক মমতাজ বিন হাকিম বলেন, বঙ্গবন্ধু দেশ স্বাধীন করার পর প্রাথমিক স্কুল সরকারিকরণ করেন। তাঁর মৃত্যুর পর অনেক সরকার এসে  গেছে কোন সরকার প্রাইমারি  সরকারিকরণ করেনি। কারণ তারা কেউ শিক্ষা বান্ধব সরকার ছিল না। বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা পিতার পথ অনুসরণ করে পুনরায় ২৬ হাজার ১৯৩টি প্রাথমিক বিদ্যালয় সরকারিকরণ করে শিক্ষাক্ষেত্রে বিপ্লব সৃষ্টি করেন। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি করে প্রমাণ করেছেন তার হাতে দেশ নিরাপদ।

 

আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সহ-সভাপতি মাওলানা মোঃ শাহজাহান, সাংগঠনিক সম্পাদক শামসুল আলম, দপ্তর সম্পাদক মো. হাকিম হাফেজ মাহমুদ গোপালগঞ্জ, কাজী মাওলানা মফিজুর রহমান গোপালগঞ্জ, রেজাউল করিম ,আলহাজ্ব আনোয়ার হোসেন, নাসরিন বেগম, সিরাজুল ইসলাম, কাজী মনিরুজ্জামান, এ বি এম নাজিম উদ্দিন, এবিএম আব্দুল কুদ্দুস, এ কে আজাদ, এনামুল হক, মোখলেসুর রহমান ,আনোয়ার হোসেন, একরাম মাওলানা জাহিদ হাসান, নজরুল ইসলাম, হাসান ইমরান হাবিবুল্লাহ, মাওলানা রুহুল আমিন প্রমুখ।

প্রাথমিকে অতিরিক্ত ২০ শতাংশ শিক্ষক নিয়োগের চিন্তা - dainik shiksha প্রাথমিকে অতিরিক্ত ২০ শতাংশ শিক্ষক নিয়োগের চিন্তা প্রাথমিকের ১২ শিক্ষা কর্মকর্তার বদলি - dainik shiksha প্রাথমিকের ১২ শিক্ষা কর্মকর্তার বদলি এক এমপিওভুক্ত শিক্ষকের চার প্রতিষ্ঠানে চাকরি! - dainik shiksha এক এমপিওভুক্ত শিক্ষকের চার প্রতিষ্ঠানে চাকরি! শোক দিবস পালনে সরকারি বরাদ্দের টাকা পায়নি ১১০ স্কুল - dainik shiksha শোক দিবস পালনে সরকারি বরাদ্দের টাকা পায়নি ১১০ স্কুল সরকারিকরণ করলে সরকারেরই লাভ : শাব্বীর মোমতাজী (ভিডিও) - dainik shiksha সরকারিকরণ করলে সরকারেরই লাভ : শাব্বীর মোমতাজী (ভিডিও) ম্যানেজিং কমিটি প্রবিধানমালা সংশোধনের সিদ্ধান্ত ২২ আগস্ট - dainik shiksha ম্যানেজিং কমিটি প্রবিধানমালা সংশোধনের সিদ্ধান্ত ২২ আগস্ট কোন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের কবে ভর্তি পরীক্ষা, এক নজরে - dainik shiksha কোন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের কবে ভর্তি পরীক্ষা, এক নজরে ঢাবিতে ১ম বর্ষ ভর্তি বিজ্ঞপ্তি - dainik shiksha ঢাবিতে ১ম বর্ষ ভর্তি বিজ্ঞপ্তি শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website