১৫ আগস্ট ‘জাতীয় আনন্দ দিবস’ : কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে শাস্তির সুপারিশ - স্কুল - দৈনিকশিক্ষা

১৫ আগস্ট ‘জাতীয় আনন্দ দিবস’ : কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে শাস্তির সুপারিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক |

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার কেন্দুরবাগ বাজারে অবস্থিত অক্সফোর্ড আইডিয়াল স্কুলের চলতি বছরের একাডেমিক ক্যালেন্ডারে জাতীয় শোক দিবসকে ‘জাতীয় আনন্দ দিবস’ উল্লেখের ঘটনার সত্যতা পেয়েছে তদন্ত কমিটি। মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বরাবর পাঠানো তদন্ত প্রতিবেদনে এ ঘটনায় দায়ীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ করা হয়েছে।

নোয়াখালী জেলা  ও বেগমগঞ্জ উপজেলা শিক্ষা অফিসারের স্বাক্ষরিত তদন্ত প্রতিবেদনটিতে বলা হয়- ‘১৫ আগস্ট জাতীয় আনন্দ দিবস’ হিসেবে উল্লেখের ঘটনা গণমাধ্যমে প্রকাশের পর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহবুবুর রহমান উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আলী আশরাফের নেতৃত্বে তদন্ত কমিটি গঠন করেন। কমিটি সত্যতা পেয়েছে।’

উল্লেখ্য, দৈনিক শিক্ষাডটকমসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে স্কুল ক্যালেন্ডারে ১৫ আগস্ট ‘জাতীয় আনন্দ দিবস’ বিষয়ক খবর প্রকাশের পর তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

আরও পড়ুন: শিক্ষা ভবনের পরিচালক বললেন, ‘১৫ ও ২১ আগস্টে দুটি দুর্ঘটনা ঘটে’

তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়- ২০১৫ খ্রিষ্টাব্দে প্রতিষ্ঠিত স্কুলটিতে প্লে থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত পাঠদান করা হয়। রয়েছেন ১২ জন শিক্ষক। এ স্কুলের শেয়ার হোল্ডাররা হলেন- আমেরিকা প্রবাসি মোহাম্মদ উল্লাহ, সৌদিআরব প্রবাসি আব্দুর রহিম, স্থানীয় গোপালপুরের আব্দুল হান্নান এবং প্রধান শিক্ষক জিরতলির নুর হোসেন।

আরও পড়ুন: মাদরাসা শিক্ষক প্রশিক্ষণের প্রধান ড. গোলাম আজম

এদিকে এ ঘটনার প্রতিবাদে স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. নুর হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা করেন বেগমগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা জাহিদ হাসান শুভ। গত ৮ আগস্ট দুপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বাদী হয় মামলাটি করেন তিনি।

শুভ বলেন, অক্সফোর্ড আইডিয়াল স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. নুর হোসেন জিরতলী ইউনিয়নের জামায়াতের আমির ও বেগমগঞ্জ উপজেলা জামাতের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক। বিভিন্ন সময় তিনি সরকার ও মানবতাবিরোধীদের বিচারের সময় নাশকতার ঘটনার সঙ্গে জড়িত ছিলেন। ওই স্কুলের চলতি বছরের ক্যালেন্ডারে 'জাতীয় শোক দিবস' এর পরিবর্তে 'জাতীয় আনন্দ দিবস' লিখে ছাপিয়েছেন তিনি। এতে করে তিনি রাষ্ট্রদ্রোহী অপরাধ করেছেন। এসব ক্যালেন্ডার শিক্ষার্থীদের মাঝে বিলিও করা হয়।

পরে তা অনেকের চোখে পড়েছে এবং এ নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। এর প্রতিবাদ করা আমার নৈতিক দায়িত্ব বলে মনে হয়েছে। আমরা যে এলাকায় থাকি সেখানকার একটা স্কুলের ক্যালেন্ডারে জাতীয় শোক দিবস নিয়ে এমন উপহাস কেউ-ই মেনে নেবে না বলে আমার বিশ্বাস। আর এটা অনিচ্ছাকৃত ভুল নয়। কারণ আগেই বলেছি তিনি স্বাধীনতাবিরোধীদের পক্ষের লোক এবং তার বিরুদ্ধে এমন অনেক অভিযোগ রয়েছে। কাজেই ইচ্ছাকৃতভাবে জাতীয় শোক দিবসকে এভাবে উপহাস করা হয়েছে।"

ওই সময় এ বিষয়ে জানার জন্যে বেগমগঞ্জ উপজেলার অক্সফোর্ড আইডিয়াল স্কুলের প্রধান শিক্ষককে একাধিকবার ফোন করা হলেও ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

জাতীয়করণ: ফের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত সেলিম ভুইঁয়া, কর্মসূচির হুমকি - dainik shiksha জাতীয়করণ: ফের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত সেলিম ভুইঁয়া, কর্মসূচির হুমকি একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন করবেন যেভাবে - dainik shiksha একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন করবেন যেভাবে please click here to view dainikshiksha website