৩ শতাধিক বিদ্যালয়ের দায়িত্বে এক কর্মকর্তা - স্কুল - Dainikshiksha

৩ শতাধিক বিদ্যালয়ের দায়িত্বে এক কর্মকর্তা

বড়লেখা (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি |

মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস দীর্ঘদিন ধরে মারাত্মক জনবল সংকটে ভুগছে। ৩ শতাধিক প্রাইমারি স্কুল দেখাশোনার দায়িত্বে কর্মরত রয়েছেন মাত্র একজন কর্মকর্তা। ৫ বছর ধরে শূন্য উচ্চমান কাম হিসাবরক্ষকের একমাত্র পদটিও। ৭ বছর ধরে অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটরের ৩টি পদের সবক’টিই শূন্য। এতে শিক্ষা অফিসের দাপ্তরিক কার্যক্রমসহ উপজেলার সার্বিক প্রাথমিক শিক্ষা কার্যক্রম মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে।

শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা গেছে, বড়লেখায় ১৫১টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ছাড়াও ১৫৩টি বেসরকারি (কেজি) প্রাইমারি লেভেলের স্কুল রয়েছে। ৩ শতাধিক প্রাইমারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিপরীতে উপজেলা শিক্ষা অফিসে কর্মরত আছেন শুধু উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার। ৮ কর্মকর্তার কাজ ১ কর্মকর্তা করতে গিয়ে কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না। বরং উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। ৭ জন সহকারী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের প্রত্যেক পদই গত ৬ মাস ধরে শূন্য রয়েছে। ১ জন উচ্চমান সহকারী কাম হিসাবরক্ষক এবং ৩ জন অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটরের অনুমোদিত পদ থাকলেও ২০১৫ খ্রিষ্টাব্দ থেকে উচ্চমান সহকারী কাম হিসাবরক্ষক ও ২০১৩ খ্রিষ্টাব্দ থেকে অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটরের পদ শূন্য রয়েছে। ২ বছর ধরে ডেপুটেশনে একজন সহকারী শিক্ষককে দিয়ে শিক্ষা অফিসের কম্পিউটার অপারেটরের কাজ চালানো হচ্ছে। এতে ওই স্কুলের শ্রেণি কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। শিক্ষা অফিসের জনবল সংকটে অন্যান্য দাপ্তরিক কাজকর্মও মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে। এটিও’র অভাবে নিয়মিত স্কুল পরিদর্শন না হওয়ায় শিক্ষকরা ঠিকমতো স্কুলে যাচ্ছেন কিনা, সঠিকভাবে শ্রেণী কার্যক্রম চালাচ্ছেন কিনা তা তদারকি হচ্ছে না। এতে শিক্ষার মান নিম্নমুখী হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

বিভিন্ন স্কুলের প্রধান শিক্ষকরা জানান, উপজেলার স্কুলগুলো নিয়ে ৭টি ক্লাস্টার ও ৫১টি সাব-ক্লাস্টার গঠিত। প্রতি দু’মাস অন্তর প্রধান শিক্ষকদের নিয়ে ক্লাস্টার মিটিং ও প্রতি মাসে মাসিক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু চলিত বছরের ১৯ জানুয়ারি থেকে এ অফিসে সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসারের সব পদ শূন্য রয়েছে। সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা সংকটে সমন্বয় সভা ও ক্লাস্টার মিটিংয়ের কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্য অর্জিত হচ্ছে না। শিক্ষকরা সময়মতো স্কুলে যাওয়া-আসা করছেন কি না তাও তদারকি সম্ভব হয় না।

উপজেলা শিক্ষা অফিসার রফিজ মিঞা বড়লেখায় সহকারী শিক্ষা কর্তকর্তাসহ শিক্ষা অফিসের জনবল সংকটের সত্যতা স্বীকার করে জানান, শূন্যপদ পূরণের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে ইতোমধ্যে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে।

সরকারি হলো আরও ২ স্কুল - dainik shiksha সরকারি হলো আরও ২ স্কুল নতুন দুটি শিক্ষক পদ সৃষ্টি হচ্ছে সব স্কুলে - dainik shiksha নতুন দুটি শিক্ষক পদ সৃষ্টি হচ্ছে সব স্কুলে একাদশে ভর্তিকৃতদের তালিকা নিশ্চায়ন ২৫ জুলাইয়ের মধ্যে - dainik shiksha একাদশে ভর্তিকৃতদের তালিকা নিশ্চায়ন ২৫ জুলাইয়ের মধ্যে ভর্তি কোচিং নিয়ে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী (ভিডিও) - dainik shiksha ভর্তি কোচিং নিয়ে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী (ভিডিও) বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ম্যানেজিং কমিটির বিকল্প প্রয়োজন - dainik shiksha বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ম্যানেজিং কমিটির বিকল্প প্রয়োজন এমপিওভুক্ত হলেন আরও ৮০ শিক্ষক - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হলেন আরও ৮০ শিক্ষক একাদশে ভর্তিকৃতদের অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে - dainik shiksha একাদশে ভর্তিকৃতদের অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে স্কুল-কলেজ খোলা রেখে বন্যার্তদের আশ্রয় দেয়ার নির্দেশ - dainik shiksha স্কুল-কলেজ খোলা রেখে বন্যার্তদের আশ্রয় দেয়ার নির্দেশ শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন - dainik shiksha শিক্ষার এক্সক্লুসিভ ভিডিও দেখতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website