৮৯ বছর বয়সেও পরীক্ষার হলে - ভারতের শিক্ষা - Dainikshiksha

৮৯ বছর বয়সেও পরীক্ষার হলে

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |

জীবন থেকে পার হয়ে গেছে ৮৮ বছর। এখন তার বয়স ৮৯ বছর। এ বয়সেও তিনি লক্ষ্যে অবিচল। যেভাবেই হোক, লেখাপড়া তাকে শেষ করতেই হবে। যাকে নিয়ে আলোচনা, তার নাম স্বর্ণবাসবরাজ বিসারাহাল্লি। অল্প বয়সে জড়িয়ে পড়েছিলেন স্বাধীনতা আন্দোলনে। কিশোর বয়সেই পেয়েছিলেন সেই লড়াইয়ে জয়ের স্বাদ।

ভারত থেকে বিদায় নিয়েছিল ব্রিটিশ। কিন্তু জীবনের প্রায় অন্তিমলগ্নে এসে থমকে যেতে হচ্ছে স্বাধীনতা সংগ্রামী স্বর্ণবাসবরাজ বিসারাহাল্লিকে। কিছুতেই শেষ হচ্ছে না তার পড়াশোনা। জ্ঞানের বহর অবশ্য তার কিছু কম নেই। আইন নিয়ে পড়েছেন। ডিগ্রি রয়েছে ধারওয়াদ বিশ্ববিদ্যালয়ের। একই সঙ্গে স্নাতকোত্তর স্তরের লেখাপড়া করেছেন হাম্পি কন্নড় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে।

ভারতের কর্নাটকের কোপ্পাল এলাকার এই বাসিন্দা এই মুহূর্তে পিএইচডি করছেন। যদিও একাধিকবার চেষ্টা করেও আসছে না সফলতা। বয়স বাড়ছে, জীবনের এই ইচ্ছা পূরণ না হয়ে যে শান্তি মিলবে না পরলোকেও। সেই উদ্দেশ্যেই জোরকদম চলছে পড়াশোনা।

এই বছর শেষ করতেই হবে লেখাপড়ার পাট। স্বর্ণবাসবরাজ বিসারাহাল্লি বলেছেন, গত বছরে পরীক্ষা দিয়েছিলাম; কিন্তু পাস করতে পারিনি। এই বছরেও পরীক্ষা দেব। এবার পরীক্ষা নিয়ে আমি আশাবাদী।

শুধু লেখাপড়া করেই ক্ষান্ত থাকতে নারাজ স্বর্ণবাসবরাজ বিসারাহাল্লি। সাহিত্যচর্চায় বিশেষ আগ্রহ রয়েছে তার। লেখালেখি করতে চান তিনি। একই সঙ্গে কন্নড় ভাষায় কবিতা লেখারও ইচ্ছা রয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাধীনতা সংগ্রামী স্বর্ণবাসবরাজ বিসারাহাল্লি। সূত্র : কলকাতা টোয়েন্টিফোর।

ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায় ঠেকাতে ১০ কমিটি - dainik shiksha ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায় ঠেকাতে ১০ কমিটি এমপিওভুক্ত হচ্ছেন স্কুল-কলেজের ১১২৪ শিক্ষক - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হচ্ছেন স্কুল-কলেজের ১১২৪ শিক্ষক নভেম্বরের এমপিওতেই ৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি - dainik shiksha নভেম্বরের এমপিওতেই ৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায় বন্ধের নির্দেশ শিক্ষামন্ত্রীর - dainik shiksha ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায় বন্ধের নির্দেশ শিক্ষামন্ত্রীর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ট্রাফিক সার্কুলেশন প্ল্যান তৈরির নির্দেশ - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ট্রাফিক সার্কুলেশন প্ল্যান তৈরির নির্দেশ এমপিওভুক্ত হচ্ছেন মাদরাসার ২০৭ শিক্ষক - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হচ্ছেন মাদরাসার ২০৭ শিক্ষক ২৮৮ তৃতীয় শিক্ষককে এমপিওভুক্তির সিদ্ধান্ত - dainik shiksha ২৮৮ তৃতীয় শিক্ষককে এমপিওভুক্তির সিদ্ধান্ত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া - dainik shiksha জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে খোলা সব ফেসবুক পেজই ভুয়া please click here to view dainikshiksha website