মন্তব্য লিখতে লগইন অথবা রেজিস্টার করুন

মন্তব্যের তালিকা

MD. NASIR UDDIN, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
হাই স্কুল ও কলেজ এর শিক্ষকরা তো 1ম ও 2য় শ্রেণীর পদমর্যাদা সম্পন্ন চাকরি করেন। যদিও তোমার মাধ্যমে নিয়োগ হয় তথাপি এরা সরকারি হলে তো একই পদমর্যাদা সম্পন্ন হয়। 1ম ও 2য় শ্রেণীর পদমর্যাদা সম্পন্ন চাকরিতে তো কোটা নেই। তুমি এগুলোর উপর এত জো দেলা কেন? না এ নিয়ে কেউ আন্দোলন করেনা তাই।
নয়ন মিস্ত্রী, ০৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
বরাবর এনটিসিএ চেয়ারম্যান মহোদয় ২৪ তারিখে শিক্ষকদের শূন্য পদের তালিকা প্রকাশে যাদের সবচেয়ে বেশী ক্ষতি হয়েছে তারা হলো ১৩তম নিবন্ধনধারী তাদের পরীক্ষাও নেওয়া হয়েছে শূন্য পদের ভিত্তিতে অনেক কষ্ট করে তারা পরীক্ষার ঊত্তীর্ন হয়েছে ভেবে ছিল পরীক্ষায় ঊত্তীর্ন হলেই চাকুরি মিলবে ,কিন্তু কি হলো তাদের আশার মুখে ছাই পরল, তাদের শিক্ষক হবে তাই তারা অন্য চাকুরির অনেকে আবেদন করেনি। আজ সেই সব নিবন্ধনধারী অভিশপ্ত জীবন হিসেবে নিজকে বেছে নিয়েছে। যার অর্থ হলো কেউ কেউ আত্ম হত্যার পথ বেছে নিতে পারে।অনেকে আছে বয়স নির্ধাড়ন করায় আবেদন করতে পরবেনা ,আমার প্রশ্ন এদের জন্য আপনার কোন পরিকল্পনা আছে কি? আজ সরকারি চাকুরির বয়স বৃদ্ধির পরিকল্পনা চলছে অথচ এদের কথা কেউ ভাবেনি। যাদের বয়সের কাডগোরায় বলি দেওয়া হয়েছে তারা কি অপরাধ করেছে তাদের যথা সময় নিয়োগ দেওয়া হলে তাদের এমন দূয়াবস্থা দেখতে হতোনা। আজ যারা শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন তারা ১৫ বছর পর্যন্ত সুযোগ পেত। পরিশেষে যারা নিবন্ধনধারী এখন চাকুরি হয়নি তাদের জন্য কি পরিকল্পনা আছে তা দৈনিক শিক্ষা ডট কম এর মধ্যমে যানতে চাই।
Md. Masiur Rahman, ০৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
নিবন্ধন সনদধারীদের উপর বয়স : আদালত বলেছিল, নিয়োগ না হওয়া পর্যম্ত সনদের মেয়াদ বহাল থাকবে। নতুন নীতিমালা নতুনদের জন্য। তাই, কোর্ট এন্ট্রি প্রসেসে বয়স করতে বলেছিল ১৫ তম নিবন্ধন পরীক্ষা থেকে। কিন্তু NTRCA চেয়ারম্যান তা অমান্য করে নিয়োগ দিয়ে দিলেন। উল্লেখ্য যে, নিবন্ধন সনদ ত আর একাডেমিক সনদ নয় যে বয়সের কারনে বাতিল হয়ে যাবে। তাই, চেয়ারম্যান মহোদয়ের নিকট আবেদন; দয়া করে নিবন্ধন সনদধারীদের উপর বয়স বাতিল করুন। অথবা এন্ট্রি প্রসেসে বয়স করুন ১৫ তম নিবন্ধন পরীক্ষা থেকে।
Mohd. Kamal Hossain., ০৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
নিবন্ধন সনদধারীদের উপর বয়স করে ntrcaর চেয়ারম্যান কবিরা গুনাহ করেছেন। কারন, আদালত বলেছিল, নিয়োগ না হওয়া পর্যম্ত সনদের মেয়াদ বহাল থাকবে। নতুন নীতিমালা নতুনদের জন্য। তাই, কোর্ট এন্ট্রি প্রসেসে বয়স করতে বলেছিল ১৫ তম নিবন্ধন পরীক্ষা থেকে। কিন্তু চেয়ারম্যান কি করল? আপনি দেখেন, ৩৪ বছর ১১মাস ২৭ দিনেও আবেদন করা যাবে এখন পরীক্ষা, ফলাফল ও সনদ পেতে ৩৫+ হবে তাহলে কি করে সনদ বাতিল হয় আপনি একটু জানান? তাছাড়া, নিবন্ধন সনদ ত আর একাডেমিক সনদ নয় যে বয়সের কারনে বাতিল হয়ে যাবে। ২০০৫ সাল থেকে ntrca নিবন্ধন সনদ দিয়েছে বিসিএস এর মত পরীক্ষারর মাধ্যমে - যাতে লিখা আছে, সহকারি শিক্ষক, লেকচারার ও মৌলভি। আপনি যেকোনো স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসায় নিয়োগ যোগ্য। তাহলে কেন ৩৫+ রা বঞ্চিত হবে? এছাড়াও, ২০১৬ সালের ১২৬১৯ সুপারিশ প্রাপ্ত শিক্ষকের মধ্যে ৬০০০+ নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল বাকি ৬০০০+ শিক্ষকের নিয়োগ কেন দেওয়া হলোনা? তাই, দয়া করে নিবন্ধন সনদধারীদের উপর বয়স বাতিল করুন। নইলে, প্রায় তিন লক্ষ ৩৫+ নিবন্ধিত শিক্ষক ও তাঁদের পিতা মাতার দুয়াতে আপনি জাহান্নামের আগুনে পুড়বেন। যেখানে জীবনের কোনো শেষ নেই। আল্লাহুম্মা আমিন।
মোঃ লহির উদ্দিন, ০৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
অবিলম্বে প্রতিষ্ঠান প্রধান নিয়োগও এনটি আরসি এর মাধ্যমে নেওয়ার জন্য কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছি।
MD. JABED ALI, ০৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
শিক্ষক নিয়োগ নীতিমালা-১৮ এর ধারা ১১.৬ ও ১২ এর অনুযায়ী ইনডেক্সধারী শিক্ষকগণকে বিভাগীয় কোটায় নিয়োগের জন্য ও বদলির জন্য যথাযথ পদক্ষেপ নেয়ার বিশেষ অনুরোধ করছি । বিষয়টি মানবিকও বটে । মনে হয় না এরকম বদলি ইচ্ছুক ইনডেক্সধারী হতভাগা টিচার এক হাজারের বেশি হবেন । এদের জন্য তো কোন আলাদা অর্থ বরাদ্দ বা ঝামেলা হওয়ার কথা না । প্লিজ । কেউ আমাদের জন্য দয়াপরবশ হয়ে এগিয়ে আসুন । মহাপরিচালক স্যার,আপনি এই মহতী উদ্যোগ হাতে নিয়ে নিজ দেশে পরবাসী শিক্ষকদের জন্য কিছু করুন ।
MD. JABED ALI, ০৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
শিক্ষক নিয়োগ নীতিমালা-১৮ এর ধারা ১১.৬ ও ১২ এর অনুযায়ী ইনডেক্সধারী শিক্ষকগণকে বিভাগীয় কোটায় নিয়োগের জন্য ও বদলির জন্য যথাযথ পদক্ষেপ নেয়ার বিশেষ অনুরোধ করছি । বিষয়টি মানবিকও বটে । মনে হয় না এরকম বদলি ইচ্ছুক ইনডেক্সধারী হতভাগা টিচার এক হাজারের বেশি হবেন । এদের জন্য তো কোন আলাদা অর্থ বরাদ্দ বা ঝামেলা হওয়ার কথা না । প্লিজ । কেউ আমাদের জন্য দয়াপরবশ হয়ে এগিয়ে আসুন । মহাপরিচালক স্যার,আপনি এই মহতী উদ্যোগ হাতে নিয়ে নিজ দেশে পরবাসী শিক্ষকদের জন্য কিছু করুন ।
MD. JABED ALI, ০৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
শিক্ষক নিয়োগ নীতিমালা-১৮ এর ধারা ১১.৬ ও ১২ এর অনুযায়ী ইনডেক্সধারী শিক্ষকগণকে বিভাগীয় কোটায় নিয়োগের জন্য ও বদলির জন্য যথাযথ পদক্ষেপ নেয়ার বিশেষ অনুরোধ করছি । বিষয়টি মানবিকও বটে । মনে হয় না এরকম বদলি ইচ্ছুক ইনডেক্সধারী হতভাগা টিচার এক হাজারের বেশি হবেন । এদের জন্য তো কোন আলাদা অর্থ বরাদ্দ বা ঝামেলা হওয়ার কথা না । প্লিজ । কেউ আমাদের জন্য দয়াপরবশ হয়ে এগিয়ে আসুন । মহাপরিচালক স্যার,আপনি এই মহতী উদ্যোগ হাতে নিয়ে নিজ দেশে পরবাসী শিক্ষকদের জন্য কিছু করুন ।
MD. JABED ALI, ০৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
শিক্ষক নিয়োগ নীতিমালা-১৮ এর ধারা ১১.৬ ও ১২ এর অনুযায়ী ইনডেক্সধারী শিক্ষকগণকে বিভাগীয় কোটায় নিয়োগের জন্য ও বদলির জন্য যথাযথ পদক্ষেপ নেয়ার বিশেষ অনুরোধ করছি । বিষয়টি মানবিকও বটে । মনে হয় না এরকম বদলি ইচ্ছুক ইনডেক্সধারী হতভাগা টিচার এক হাজারের বেশি হবেন । এদের জন্য তো কোন আলাদা অর্থ বরাদ্দ বা ঝামেলা হওয়ার কথা না । প্লিজ । কেউ আমাদের জন্য দয়াপরবশ হয়ে এগিয়ে আসুন । মহাপরিচালক স্যার,আপনি এই মহতী উদ্যোগ হাতে নিয়ে নিজ দেশে পরবাসী শিক্ষকদের জন্য কিছু করুন ।