মন্তব্য লিখতে লগইন অথবা রেজিস্টার করুন

মন্তব্যের তালিকা

Md. Golzar Hossain, ০৬ আগস্ট , ২০১৯
এসব কথা সরকারের কাছে কোনো গুরুত্ব আছে বলে মনে হয় না। সাদামাটা দাবি দিয়ে আমাদের কিছু হয়নি, হবেও বলে মনে হয়না। স্যার, সরকার এক কথায় আপনার কথা উড়িয়ে দিয়ে বলবে, সরকারি আর বেসরকারী তো এক নয়। তীব্র আন্দোলন ছাড়া আমরা কিছুই আদায় করতে পারিনা জেনেও কেন যে আপনারা আন্দোলন করছেন না, আমার বুঝে আসে না। তাছাড়া অবসরপ্রাপ্ত কিছু স্বার্থাপর শিক্ষক আমাদের দাবি আদায়ের পথে বিরাট অন্তরায়।
Md Ibrahim Pathan, ২৬ এপ্রিল, ২০১৯
এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের জন্য পেনশন ব্যবস্থা চালু করা সরকারের শুভ বুদ্ধির পরিচয়।
ASIM SANA, ২৫ এপ্রিল, ২০১৯
শুধু ঘোষণা দিলে হবে না সেটাকে বাস্তবায়িত তো করা চায়।
মো: আমির হোসেন মোল্লা, বাঁশবাড়িয়া ডিগ্রী কলেজ, বাগাতিপাড়া, নাটোর।, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
অবসর ও কল্যান ট্রাষ্টের চঁাদা বন্ধ করে পেনশন ব্যবস্থা চালু করা হোক।
Md. Rabiul Awal,, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
স্যার আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। শুধুমাত্র সরকার মহদয় আপনার সদিচ্ছা গুলোকে সঠিকভাবে মুল্যায়ন করলেই হয়।
মোহাম্মদ আরিফুল ইসলাম, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
স্যার অাপনাকে ৫ লক্ষ বেসরকারি শিক্ষক/ কর্মচারির পক্ষ থেকে ধন্যবাদ, শত শত কোটি টাকা কোথায় যায় তা বলতে পারবে শিক্ষক নেতা নামধারী কিছু কতিপয় ব্যক্তি, অবসর ও কল্যাণের নামে কোনো ধরনের টাকা না কাটা হউক সবাই একত্রে অাওয়াজ তুলুন
D.Md.Enayet Hossain, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
আসসালামু আলাইকুম। স্যার কেমন আছেন। আপনার সাথে অনেক দিন যোগাযোগ নেই। ২০০৪ সালে আমি অধ্যক্ষ পরিষদের কনিষ্ঠতম নির্বাহি সদস্য ছিলাম। ২০০৮/২০০৯ পর্যন্ত আপননার সাথে কাজ করার সুযোগ হয়েছিল। তারপর আমরা পথ হারিয়ে ফেলিছি। আমাদেরকে সংগঠিত করার জন্য কেউ এগিয়ে আসছেন না। আল্লাহ আপনার মঙ্গল করুন।
Alim Chowdhury, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
পর্যাপ্ত তথ্য ও যুক্তিসংগত প্রবন্ধের জন্য স্যারকে অসংখ্য ধন্যবাদ। এ প্রবন্ধে বাস্তবচিত্র ও সময়ের দাবিই ফুটে উঠেছে। এমন যুগোপযোগী প্রবন্ধ দৈনিক শিক্ষা প্রকাশ করার কারনে দৈনিক শিক্ষাকেও ধন্যবাদ।
Md. Rafiqul Alam, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
Thank you so much sir.
জাহিদ ইসলাম, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
এটা দিতে হবে আমরা ত সরকারি স্কুলের চেয়ে কম পড়াই না,,,,,, তারা যদি না দেয় তাহলে আমাদের উচিত সকল ট্রাস্টের টাকা আর না দেওয়া।।।
Gobinda Mazumder, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
স্যার অত্যন্ত ভাল প্রস্তাব রেখেছেন। আপনার এ প্রস্তাব আমি সর্বান্তকরনে সমর্থন করি।
Rabindra Nath Tarofder, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
তদন্ত করলে এ ধরনের ব্যক্তি হয়তো দুর্নীতি সাথে জড়িত।
Rabindra Nath Tarofder, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
ফন্দি তো ভালোই অটছেন। শিক্ষকদের আর ক্ষেপিয়ে তুলেন না ।
সেখ মোহাঃ ইসরাঈল হোসেন, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
এখনই কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন ।
nupur kumar adhikari, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
আমরা চাই সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষকদের সম্মান, অর্থনৈতিক অবস্থা ও অন্যান্য সুযোর-সুবিধা সমান হোক।
মুসফিকা চৌধুরী, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
এরকম একটা বক্তব্য পেশ করার জন্য ধন্যবাদ, আমরা ও কোন চঁাদা দিতে চাই না, সরকারী সকুল গুলোর মত আমরা ও একি সিলেবাস পড়ার পর ও কেন এভাবে আনেদালন করে সব আদায় করে নিতে হবে, তা আমার বোধ গাম্য নয়
মুসফিকা চৌধুরী, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
এরকম একটা বক্তব্য পেশ করার জন্য ধন্যবাদ, আমরা ও কোন চঁাদা দিতে চাই না, সরকারী সকুল গুলোর মত আমরা ও একি সিলেবাস পড়ার পর ও কেন এভাবে আনেদালন করে সব আদায় করে নিতে হবে, তা আমার বোধ গাম্য নয়
মুসফিকা চৌধুরী, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
এরকম একটা বক্তব্য পেশ করার জন্য ধন্যবাদ, আমরা ও কোন চঁাদা দিতে চাই না, সরকারী সকুল গুলোর মত আমরা ও একি সিলেবাস পড়ার পর ও কেন এভাবে আনেদালন করে সব আদায় করে নিতে হবে, তা আমার বো,
MD.AZHARUL ISLAM MONDAL, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
বিড়ালের গলায় ঘন্টা বাঁধবে কে ? ? ? ? ? ? ...............
Md. Jaber Hossain, Assistant Teacher: Chatal Baghata school & college, Katiadi,Kishoreganj. Mobile :01723720991, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
সরকারী শিক্ষকদের ন্যায় আমাদেরও পেনশনের ব্যবস্থা করা হোক।।।।।
Md. Mohsin Hossain, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
Thank you sir. May you live long. Honourable education minister Please take necessary action as soon as possible.
md kabir alam, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
স্যার যুক্তি দেখানোর জন্য ধন্যবাদ, কিন্তু কথা হল, বাস্তবায়ন হবে কি ?
আবুল বাসার রনি, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
দুদক কী করেন? টাকা কোথায় যায়, তা দেখে না কেন?
Rafiqul islam, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
Ji sir apnak onek dhonnonad.
মোঃ আফজাল হোসেন, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
স্যারর মতামক সঠিক বলে আমার মনে হয়।
SHEIKH ATAUR RAHMAN, ASSISTANT TEACHER(ENGLISH), KUKRADANGA HIGH SCHOOL,SADAR, NILPHAMARI, 01728541763, ২৪ এপ্রিল, ২০১৯
আমি স্যারের সাথে একমত কারণ বর্তমান সময়ের শিক্ষা ব্যবস্থা আগের মত নেই। দিনবদলের পালা। উন্নত দেশের স্বপ্ন দেখতে চাওয়ার জন্য কিছু উন্নত কাজও করা চাই। লুটপাট ছেড়ে ভালো কাজের সহযোগিতায় সকলের এগিয়ে আসা প্রয়োজন। বাাঁচার অধিকার সবার আছে। ভালো খাওয়ার, পড়ার অধিকার সকলের আছে। কাজেই এদেশের কিছু নাগরিক ভালো থাকবে আর ৯৮% মন্দ থাকবে তা হয় না? অর্থের সমবন্টননীতি পয়োগ ১০০% না হলেও অন্তত: যোগ্যতা ও কাজের সঠিক পারিশ্রমিক তো থাকা চাই।-শেখ আাতাউর রহমান, সহশিক্ষক(ইংরেজ),কুকড়াডাঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়, সদর, নীলফামারী। ০১৭২৮৫৪১৭৬৩