মন্তব্য লিখতে লগইন অথবা রেজিস্টার করুন

মন্তব্যের তালিকা

MD.Abdul Malik, ১৬ মে, ২০১৯
Matro 60 lak takar gari! Man somman thaklo koi?kom pokke 60 kuti takar gari chai
Md. Shayem Reza, ১৫ মে, ২০১৯
Pajaru Gari kenar Age Abosor Hoya... Teacher der TK Diadin....
মোঃ ‌আজাদ ‌সরকার, ১৫ মে, ২০১৯
‌বেসরকারি ‌‌শিক্ষকদের এক মাসের বেতন ‌কর্তন ‌করা হোক,‌সাজু ‌‌স্যার ‌‌সহ ‌শিক্ষামন্ত্রণালয়ের ‌সচিব,‌সিনিয়র ‌সচিব,‌উপসচিব ‌সহ ‌সব ‌আমলার ‌কোটি ‌টাকার ‌গাড়ি ‌-বাড়ি ‌হয়ে ‌যাবে,‌এটাই ‌সুযোগ ৪% ‌কর্তনের ‌সঙ্গে ‌এটাও হোক। ‌আমিন,,,,,,,,
মোঃ ‌আজাদ ‌সরকার, ১৫ মে, ২০১৯
শিক্ষামন্ত্রণালয় ও ‌এর ‌অঙ্গ ‌প্রতিষ্ঠার ‌গুলির ‌আমলাগণকে ‌শিক্ষকদের ‌মত ‌‌সুযোগ-‌সুবিধা ‌প্রদান ‌করা ‌উচিৎ,‌তখন ‌হয়তো,‌শিক্ষকদের ‌কষ্ট ‌অনুভব ‌করত।‌এখন ‌উনারা ‌নিজেকে ‌‌জমিদার ‌ভাবেন ‌আর ‌শিক্ষকগণ ‌প্রজা।‌ ‌নিজের ‌জীবন ‌হবে ‌বিলাসিতাময় ,‌শিক্ষকগণ ‌থাকবে ‌চাকর ও ‌শ্রমিকদের ‌মত।
Mizanur rahman, ১৫ মে, ২০১৯
আল্লাহর কাছে বিচার দিলাম । 4% কাটা বন্ধ করা হোক । মানুষের বেতন বাড়ে আর আমাদের কমে । এটা কেমন আচরণ?
Abul Kashem, ১৫ মে, ২০১৯
এখন অবসর সুবিধা বোর্ডের সদস্য সচিবের ফেরারী কেনার পালা।
mduddin, ১৫ মে, ২০১৯
বাহ। সাবাস বাংলাদেশ !এ পৃথিবী অবাক তাকিয়ে রয়..............।
TAIFUR, ১৫ মে, ২০১৯
যে টাকা আমার বেতন থেকে কেটে নিয়েছে তা আমার মায়ের ১টি ইন্সুলিন কেনার টাকা। কেটে নিতে সমর্থন ছিল এই কর্মক্ষম নেতাদের। এখন তো চাকরিবাকরি নাই এটাই তো এখন তাদের কর্ম।
TAIFUR, ১৫ মে, ২০১৯
বাড়তি ৪% কাটার নিরব সমর্থনের উপহার এই গাড়ী।
হবিবর রহমান, ১৫ মে, ২০১৯
তারা দুজনে অধ্যক্ষ ছিলেন।নিয়োগ বানিজ্য,ভর্তি বানিজ্য,প্রাকটিক্যাল বানিজ্য,পনীক্ষা বানিজ্য,শিক্ষার্থী বানিজ্য করে এসেছেন।শিক্ষক শিক্ষার্থীদের শোষন করার যে দীর্ঘ্ অভিজ্ঞতা তা এবার উন্নত পরিবেশে কাজে লাগাচ্ছেন।অধ্যক্ষরা এমনই হয়।সাধারন শিক্ষকদের এনারাই ‘শ্রেণী শত্রূ’।কার কাছে বিচার চাইবেন?
রনজীৎ মন্ডল, ১৫ মে, ২০১৯
গরীব শিক্ষক দের টাকায় পাজেরো গাড়ি
MONNU, ১৫ মে, ২০১৯
স্যার তো মহা রাজা ,তার মত এত বড় সম্মানিত ব্যক্তির জন্য মাত্র ৬০ লক্ষ্য টাকার গাড়ী, এটা বড়ই বে-মানান। স্যারের হাতে তো অনেক ক্ষমতা , ৬০ লক্ষ্য টাকার গাড়ী ক্রয়ের চেয়ে শিক্ষকদের এক মাসের বেতন কর্তন করে একেবারে উড়োজাহাজ ক্রয় করাই মানান সই বটে।
Rabindra Nath Tarofder, ১৫ মে, ২০১৯
আমাদের দেশে প্রায় পাঁচ লক্ষ MPOভূক্ত শিক্ষক কর্মচারি রয়েছে। এদের মাথাপিছু অতিরিক্ত 800টাকা কর্তন করলে মাসে 40কোটি টাকা আসে। তার থেকে সাজু সাহেবকে 60লাখ টাকা দিয়ে গাড়ি কিনে দিলে কোনো সমস্যা হয়না। মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর কাছে বিনীত দাবি অতিরিক্ত 4%কর্তন করন বাতিল করে শিক্ষকদের বাচান।
Rabindra Nath Tarofder, ১৫ মে, ২০১৯
ঈদর ছুটির পর কঠোর আন্দোলনের ডাক দেওয়া হচ্ছে। অতিরিক্ত 4%কর্তন করে গাড়ি কেনা হচ্ছে -এর ফল মোটে ও ভাল হবে না।
প্রতিবাদী কন্ঠ, ১৫ মে, ২০১৯
আসলে দোষতো আমাদের।সবাই মিলে একটা টান দিলে এসব কিট পতঙ্গ বঙ্গোপসাগরে হাবু ডুবু খাবে।এক ঘন্টার মধ্য সম্বভ।
md. al mamun, ১৫ মে, ২০১৯
মহান আল্লাহ যেমন সত্য তার বিচারও তেমনি; শুধু অপেক্ষা! আমিন
আবুলবাসার, ১৫ মে, ২০১৯
,শিক্ষক মানে মাসের কত তারিখ বেতন পাব। আর শিক্ষকদের টাকা দিয়ে গাড়ি কেনা তা মানায় না ।
রতন বাড়ৈ, ১৫ মে, ২০১৯
শিক্ষকদের টাকা কাটা হয়েগেছে এখন সেই টাকায় শুধু গাড়ী কেন বাড়ী ও কেনাযায় কারণ বেসরকারী শিক্ষকরা এই গ্রহের এক মাত্র অমেরুদন্ডী প্রাণী। (((শিক্ষা জাতির মেরু৷ বে- জাতির গলগন্ড।।)))
md. rafikul islam, ১৫ মে, ২০১৯
মাস্টার স্যার তো বড় পদের দায়িত্বে আছেন,নিজে ভালো গাড়ি কেনার টাকাও নাই,তাই আরো ২%নিয়ে হলেও হেলিকপ্টার দিলে ভালো হয়।তাই না জনতা?
md. rafikul islam, ১৫ মে, ২০১৯
মাস্টার স্যার তো বড় পদের দায়িত্বে আছেন,নিজে ভালো গাড়ি কেনার টাকাও নাই,তাই আরো ২%নিয়ে হলেও হেলিকপ্টার দিলে ভালো হয়।তাই না জনতা?
Amiya Roy, ১৫ মে, ২০১৯
কল্যান ট্রাষ্টের সদস্য -সচিব পদটি সম্মানীয় পদ। ৪% কর্তন করে ৬০ লাখ টাকার গাড়ি না কিনে বরং আরো ৪% কর্তন করে ১ কোটি টাকার গাড়ি কিনলে আপনার সম্মান বৃদ্ধি পাবে।
Md.Nuruzzaman, ১৫ মে, ২০১৯
সত্যি সেলুকাস, এ এক আজব দেশ। টাকা আমাদের, আর গাড়িতে চড়ে সাজু, মাজু আর কাজু?????? অবিল্মবে এই সাজুর বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।
Hasan+Anwar, ১৫ মে, ২০১৯
এবার স্পষ্ট হোল কারা জাতীয়করণের অন্তরায়। এটা অত্যন্ত বিস্ময়কর ও লজ্জাজনক বিষয় যে, শিক্ষকদের চাঁদায় চলা কল্যাণ ট্রাস্ট অবসর বোর্ডের টাকায় সদস্য সচিবের জন্য ৬০ লক্ষ টাকার গাড়ী কেনা হচ্ছে। আমি মনে করি অপরাপর শিক্ষক নেতা ও গোটা দেশের বেসরকারি শিক্ষকদের প্রতি একধরনের বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন বৈ কিছু নয়। সময় এসেছে কল্যাণ ট্রাস্ট ও অবসর বোর্ডে জেকে বসা বর্তমান সভাপতি ও সদস্য সচিবের পদত্যাগে বাধ্য করানোর মত পরিস্থিতির উদ্ভব ঘটানোর। এদেরকে উক্ত পদে বহাল রেখে কখনো জাতীয়করণ সম্ভব নয়। এরাকখনোই চাইবে না যে এই দেশের বেসরকারি এমপিও ভুক্ত শিক্ষকদের চাকরি জাতীয়করণ হোক। এরা আত্নকেন্দ্রিক সার্থপর।
Md. Rafiqul Islam Khan, ১৫ মে, ২০১৯
৪% শতাংশ কাটার মোজেজা ফকফকা! একখান পাজেরো দিয়ে দুইজনের চলা অসম্ভব! অতএব দুইখান পাজেরো ক্রয় সাংঘাতিক জরুরী! প্রয়োজনে আরো ৪% কর্তন হোক!
Md. Rafiqul Islam Khan, ১৫ মে, ২০১৯
৪% শতাংশ কাটার মোজেজা ফকফকা! একখান পাজেরো দিয়ে দুইখান (দুই স) মালের চলা অসম্ভব! অতএব দুইখান পাজেরো ক্রয় সাংঘাতিক জরুরী! প্রয়োজনে আরো ৪% কর্তন হোক!
Nuruzzaman Halim, ১৫ মে, ২০১৯
বিগত কয়েক মাস ধরেই ধারে চলছিলাম।৫% ইনক্রিমেন্ট পাওয়ায় প্রায় ১৫০০/- বেতন বেড়েছিল। আব্বার ইনহেলারগুলো আর বাকিতে কিনতে হয়নি।এবার আবার বাকি। অথচ -------
MD.ATASH MIA, ১৫ মে, ২০১৯
অবহেলিত শিক্ষকদের সবাই শোষণ করে।অথচ শিক্ষক এর সম্মান সবার উপরে।
Gobinda Mazumder, ১৫ মে, ২০১৯
তাই তো বলি, সিংগারার মধ্যে আলু ঢুকলো কেমনে? এজন্যেই বুঝি অতিরিক্ত ৪% কর্তন?
মোহাম্মদ আরিফুল ইসলাম, ১৪ মে, ২০১৯
সদস্য সচিব সম্মানিত ব্যক্তি অার এমপিওভুক্ত শিক্ষক/কর্মচারি গরু ছাগল, অাল্লাহর গজব তোদের উপর পড়বে, এত মানুষের কষ্টের টাকা তোরা লুটে পুটে খাস
Md.Nuruzzaman, ১৪ মে, ২০১৯
টাকা আমদের আর গাড়িতে চরবে সাজু!!!!!!
মহঃ আবু কায়েশ, ১৪ মে, ২০১৯
তাই তো বলি, সিংগারার মধ্যে আলু ঢুকলো কেমনে? এজন্যেই বুঝি অতিরিক্ত ৪% কর্তন?
মোঃ সাইফুল আরিফ, ১৪ মে, ২০১৯
ছি:! ছিঃ!!