মন্তব্য লিখতে লগইন অথবা রেজিস্টার করুন

মন্তব্যের তালিকা

Md. Abul Kalam Azad, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
নেতাদের বাড়ীতে কোটি কোটি টাকা কিন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির জন্য টাকা নাই: অথচ শিক্ষকরা না খেয়ে আছে৤ দয়া করে ব্যবস্থা করুন
Tauhid, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
Yess
পরেশ চন্দ্র (প্রভাষক)গাজীরহাট টেকঃ এন্ড বি এম কলেজ, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
জব্দ করা অবৈধ অর্থ এম পি ও খাতে বরাদ্দ করা হোক ।
kamruzzaman, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, একাডেমী স্বীকৃতি প্রাপ্ত ( ৫২৪২ ) প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্ত করুন। তাছাড়া যে সকল প্রতিষ্ঠান একাডেমী স্বীকৃতি ১২-১৫ হছর আগে তাদেরকে আগে এমপিওভুক্ত করা প্রয়োজন। কারন এইসব শিক্ষকদের চাকরির বয়স শেষপ্রান্তে। দয়াকরে এই কপাল পুড়া হতভাগা শিক্ষকদের প্রতি আপনি সুদৃষ্টি দিন। আপনার দয়ায় পারে এইসব শিক্ষকদের পরিবারের মুখে হাসি ফুটাতে, এবং এইসব পরিবারের মানুষজন আপনার জন্য আল্লাহর দরবারে দুইহাত তুলে দোয়া করবেন !!!!
মোঃমনিরুল ইসলাম, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
ফাইল চলতে চলতে নন এমপিও শিক্ষকদের জীবন চলা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। আর কতো সময় পার হলে কুলের দেখা পাবে?
md. shamsul hoque, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
স্বীকৃতি প্রাপ্ত সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এম,পি,ও ভূক্ত করা উচিৎ। এছাড়া এক বছরের ফলাফলের ভিত্তিতেও যাচাই করা ঠিক হবে না। কারন যে কোন কারনে একটি ভাল প্রতিষ্ঠানের ফলাফলও এক বছর খারাপ হতে পারে, এর অর্থ এই নয় যে, সে প্রতিষ্ঠান খারাপ। সবচেয়ে বড় কথা এত দীর্ঘদিন ধরে নন এম পি ও শিক্ষকগণ যে মানবেতর জীবন-যাপন করে আসছেন সেই দিক বিবেচনা করে সকল স্বীকৃতি প্রাপ্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এম,পি,ও ভূক্ত করতে হবে। দেশের কোটি কোটি টাকা বিভিন্ন খাতে অপচয় হচ্ছে। আর এই শিক্ষাখাতে যে টাকা ব্যয় হবে এ টাকা বিফলে যাবে না কখনও। এর ফল দেশের মানুষ অবশ্যই পাবে।
Mohd. Kamal Hossain., ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
প্রধানমন্ত্রীর নিকট আকুল আবেদন সকল একাডেমিক স্বীকৃতি প্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করুন। কারন, ১০-১৫ বছর এমনকি ২০ বছর পর্যন্ত বিনা বেতনে পাঠদান দিচ্ছেন শিক্ষকরা। অনেকে অবসরও নিয়েছেন। অনেকের বেতনের আশায় থাকতে থাকতে বাবা - মা মারা গেছেন।
MD.EDRISH ALI, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
বরাবর, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, সবিনয় বিনীত নিবেদন এই যে,আমরা দীর্ঘ এক যুগ থেকে শুরু করে অনেকে আবার দুই যুগ ধরে স্বীকৃতিপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানে গ্রাম এলাকার অবহেলিত,বনচিত,অপেক্ষাকৃত কম মেধা সম্পন্ন ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে স্বীকৃতিপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানে বুকভরা আশা নিয়ে এই পেশায় পড়ে আছি|এখন শর্তের ম্যার প্যাচে পড়ে যদি এমপিও না হয়,তা হলে এই অভুক্ত জীবন নিয়ে হয়তো যোগ্যতা অর্জন করে এমপিও পাওয়া অনেক প্রতিষ্ঠানের পক্ষেই সম্ভব হবে না|এমন কি প্রতিষ্ঠান টিকিয়ে রাখা সম্ভব হবে না|তাই বিষয়টি অত্যান্ত গুরোতর বলে আপনি হস্তক্ষেপ করবেন বলে আশা করছি|তা না হলে এই বিশাল একটি শিক্ষক সমাজের পরিবার নিয়ে কোথায় যাবে?সমাজের নিকট একটা বোঝা হবে,আর সামাজিক ভাবে এদের সামান্যতম মূল্যায়ণ কেউ করবে না|নিবন্ধন পাশ করেই তো অনেকে শিক্ষকতা করছে ,এই কপাল পুড়া হতভাগাদের প্রতি আপনার সুদৃষ্টি কামনা করছি|