মন্তব্য লিখতে লগইন অথবা রেজিস্টার করুন

মন্তব্যের তালিকা

মো: তারেকুল ইসলাম, ২৫ মার্চ, ২০২০
শিক্ষক রা তাদের বেতন যে ব্যাংক থেকে পান সেই ব্যাংক থেকে ৯৯% শিক্ষক চাকুরীজীবী ঋণ নেন। তাই এই ব্যাংকগুলো বেতন বিল পাওয়ার সাথে সাথে ঋণের টাকা কর্তন করে ফেলে। শিক্ষকরা বেতন তোলার সময় দেখতে পাবেন ঋণের টাকা কর্তন করা হয়ে গেছে। তখন কিছু করার থাকে না। তাই নির্দেশনা আসুক শিক্ষকদের সুবিধা অনুযায়ী ব্যাংক ঋণের টাকা কর্তন করুক। যারা পারবে তারা ঋণের টাকা রেখেই বেতন তুলবেন। এই দুর্সময়ে ৯৯ % শিক্ষকদের মনের কথা Dainikshiksha পারে সমস্যা সমাধানে এগিয়ে আসতে।
মো: তারেকুল ইসলাম, ২৫ মার্চ, ২০২০
শিক্ষক রা তাদের বেতন যে ব্যাংক থেকে পান সেই ব্যাংক থেকে ৯৯% শিক্ষক চাকুরীজীবী ঋণ নেন। তাই এই ব্যাংকগুলো বেতন বিল পাওয়ার সাথে সাথে ঋণের টাকা কর্তন করে ফেলে। শিক্ষকরা বেতন তোলার সময় দেখতে পাবেন ঋণের টাকা কর্তন করা হয়ে গেছে। তখন কিছু করার থাকে না। তাই নির্দেশনা আসুক শিক্ষকদের সুবিধা অনুযায়ী ব্যাংক ঋণের টাকা কর্তন করুক। যারা পারবে তারা ঋণের টাকা রেখেই বেতন তুলবেন। এই দুর্সময়ে ৯৯ % শিক্ষকদের মনের কথা Dainikshiksha পারে সমস্যা সমাধানে এগিয়ে আসতে।
এস আর কার্জন, ২৫ মার্চ, ২০২০
দ্রব্যমূল্যের যে ঊর্ধ্বগতি শিক্ষকদের কনজুমার লোন না কাটলে খুব ভালো হতো। এক্ষেত্রে দৈনিক শিক্ষার সহযোগিতা চাই।
মো.আমজাদ হোসাইন, বিএসসি বি.এড, কাঠালিয়া ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়, নরসিংদী সদর, নরসিংদী।, ২৫ মার্চ, ২০২০
ধন্যবাদ সময় উপযোগী সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য।
শাহ্ আলম, ২৫ মার্চ, ২০২০
খুবই ভালো সিদ্ধান্ত