মন্তব্য লিখতে লগইন অথবা রেজিস্টার করুন

মন্তব্যের তালিকা

rezaemostafa, ২৩ মে, ২০২০
বাংলাদেশের যে সমস্ত কিন্ডারগার্টেন রয়েছে এইসব কিন্ডারগার্টেনের মালিকরা শিক্ষার্থীদের অভিবাবকদের থেকে গলাকাটা ফি নিয়ে তারা সম্পদের পাহাড় গড়েছে। কিন্তু এসব প্রতিষ্ঠানে যারা শিক্ষকতা করেন তাদেরকে বেতন দেয়া হয় নামেমাত্র। অর্থাৎ একজন শিক্ষার্থীদের থেকে হাজার হাজার টাকা নেয় ঠিক কিন্তু যারা শিক্ষকতা করেন তাদেরকে দেন হাজার হাজার টাকার অনুপাতে কয়েক টাকা। যার ফলে এসব শিক্ষকদেরকে মানবেতর জীবনযাপন করতে হচ্ছে। তাই করোণা সংকটের এই সময়ে এসব কিন্ডারগার্টেন এর মালিকদের ওপর এমন একটি আইন করে দেওয়া দরকার যাতে তারা যতদিন লকডাউন থাকার কারণে প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে ততদিন পর্যন্ত তাদেরকেই (শিক্ষকদেরকে) কিন্টারগার্ডেনের মালিকদের পক্ষ থেকে যথাযথ সম্মানী দেওয়ার জন্য একটি আইন করা অবশ্যই প্রয়োজন। আর যদি এসব প্রতিষ্ঠানের মালিকরা শিক্ষকদেরকে এই ক্রান্তিকালে কোন সম্মানী না দেয় তাহলে এসব প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়া দরকার। কেননা কিন্ডারগার্টেন এর মালিক কে অন্যায় ভিত্তিতে যে টাকা কামাই করেছে তাতে এই ধরনের লকডাউন আরো কয়েক বছর থাকলেও তাদের টাকার কোন ঘাটতি হবে না। আর বর্তমানে তারা সরকারের কাছে যে প্রণোদনা চাইছে তা একটি নাটক ছাড়া আর কিছু নয়।