মন্তব্য লিখতে লগইন অথবা রেজিস্টার করুন

মন্তব্যের তালিকা

rezaemostafa, ২৫ মে, ২০২০
করোনার মত প্রাণঘাতী ভাইরাস আমাদেরকে ভবিষ্যতে একজন সুস্থ মানুষ হিসেবে বসবাস করার জন্য নৈতিকতার শিক্ষা প্রদান করে। যেহেতু মানুষের জীবনটাই হল সুশৃংখল। মানুষের জীবন এলোমেলো হতে পারে না। ব্যক্তিজীবনে যেকোন ধরনের বিপদকে মোকাবেলা করতে হলে আগে নিজেকে হাতিয়ার হিসেবে তৈরি করে রাখাটাই হলো বড় বুদ্ধিমানের পরিচয়। কারণ হযরত আলী রাদিয়াল্লাহু তা'আলা আনহু বলেছেন জ্ঞানীরা কোন কাজ করার আগে চিন্তা করে, আর নির্বোধেরা কাজ করার পরে চিন্তা করে। তাই জীবনের যেকোন ক্ষেত্রে আমাদের সাবধানতা অবলম্বন করা তথা সচেতন থাকা খুবই জরুরী।
rezaemostafa, ২৫ মে, ২০২০
জাতিগতভাবে আমরা হুজুগে বাঙালি। বাঙালির কোন বিন্দু পরিমাণ আক্কেল জ্ঞান নেই। আগে নিজে বাঁচো ও অপরকে বাঁচাও। এ স্লোগানে আবদ্ধ হয়ে যতক্ষণ পর্যন্ত নিজেদের মধ্যে সচেতনতাবোধ আসবে না ততক্ষণ পর্যন্ত করোনা ভাইরাসকেও পরাজিত করা সম্ভব হবে না। তাই আমাদের মত হুজুগে বাঙ্গালীদের মধ্যে সচেতনতা আনতে হলে লকডাউন দিয়ে হবে না প্রয়োজনের কারফিউ দিতে হবে। উল্লেখ্য স্থানীয় জনপ্রতিনিধির মাধ্যম বাড়িতে বাড়িতে ন্যায্য মূল্যের/রেশন কার্ডের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র প্রদানের ব্যবস্থা করলে আর জরুরী ভিত্তিতে চিকিৎসাসেবার ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে পারলে আশা করা যায় করোণার মতো প্রাণঘাতী মহামারীকে আয়ত্তে আনা সম্ভব হবে।