মন্তব্য লিখতে লগইন অথবা রেজিস্টার করুন

মন্তব্যের তালিকা

Md. Sabuj Miah, ০৭ আগস্ট , ২০২০
এছাড়াও জুনিয়র শিক্ষকদের নামে ঈদ বোনাসের টাকা ৫০% হারে আসে। কিন্তু উনারা বিধি অনুযায়ী ২৫% ঈদ বোনাস পাওয়ার যোগ্য। অতিরিক্ত ২৫% ব্যাংকে থাকছে। এ টাকার জন্য কারা দায়ী হবে।
মোঃ ফরহাদ হোসাইন, ০৬ আগস্ট , ২০২০
আমার জানা,এমন নাম অনেক প্রতিষ্ঠানে আছে। বছরের পর বছর বেতন আসছে। জানিনা কারা উপকৃত হচ্ছে।
Tabiatkowser, ০৬ আগস্ট , ২০২০
অবৈধভাবে এমপিও করার একমাত্র সহযোগিতাকারী হচ্ছে মন্ত্রণালয়ের অধিদপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ। দুদক এর মাধ্যমে এ তদন্তভার দেওয়া হলে এসব কর্মকর্তাদের নাম অনায়াসেই বেরিয়ে আসবে।
Tabiatkowser, ০৬ আগস্ট , ২০২০
অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা কি বসে বসে গরু চরাচ্ছে? যদি তারা ঠিকমতো দায়িত্ব পালন করতো তাহলে মৃত শিক্ষকদের নামে কিভাবে মাসে মাসে টাকা টাকা পাঠানো হচ্ছে, আর এক শিক্ষকের নামে দুই তিনটি প্রতিষ্ঠানে এমপিও পাঠানো হচ্ছে এগুলো কি তারা চোখে দেখেনা। তাই যেসব কর্মকর্তারা অবৈধভাবে এমপিও দিচ্ছে এবং সহযোগিতা করছে তাদেরকে শাস্তির আওতায় আনা হোক।অন্যদিকে টাকার অভাব সরকার শিক্ষকদের জাতীয়করণ করছে না। সে অবস্থায় এমপিওর নামে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করে বেড়াচ্ছে। তাই যে সমস্ত প্রতিস্টান আগে ইতিমধ্যে বিভিন্ন চলচাতুরি মাধ্যমে এমপিও করিয়ে নিয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে তদন্তের আওতায় আনা হোক।