মন্তব্য লিখতে লগইন অথবা রেজিস্টার করুন

মন্তব্যের তালিকা

Raj Kumar Saha, ১৬ অক্টোবর, ২০২০
সত্যিকারঅর্থে এটা খারাপ নজির হয়ে থাকবে। কিন্তু এর চেয়ে ভাল বিকল্প কী হতে পারত? এখন যারা সংক্ষুব্ধহবে তাদেরকে মানউন্নয়ন পরীক্ষার সুযোগ হোক।
mos7tafa, ১৪ অক্টোবর, ২০২০
জনাব পরীক্ষা হবে না(!) এটা কেউ জানতো? পরীক্ষার যাবতীয় প্রস্তুতি বোর্ড সম্পন্ন করে রেখেছে [মূল্যায়ণ খাতা, প্রশ্নপত্র, প্রবেশপত্র, রেজিস্ট্রেশন কার্ড] এবং কেন্দ্রে কেন্দ্রে তা পাঠিয়েও দেয়া হয়েছে.... তাহলে কেন টাকা ফেরত দেওয়ার প্রসংগ!! প্রায় ১৪ লক্ষ পরীক্ষার্থীর সাথে আরও ৩০ লক্ষ অভিভাবক এবং পরীক্ষক এবং আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সমাগম.... কত হয় ভাবুন তো? কেন ঝুঁকি নিবো আমার সন্তানের?
MD. MAZAHARUL ALAM, ১৪ অক্টোবর, ২০২০
আহসান কবির স্যার আপনাকে ধন্যবাদ, আমি আপনার সাথে সম্পূর্ণ একমত, এ অটোপাসে শিক্ষার্থী সারা জীবন বোঝা হিসেবে বয়ে বেড়াবে, বিশেষ করে মেধাবী শিক্ষার্থীরা, কারণ আমি যখন ১৯৯৪সালে এসএসসিতে ভাল রেজাল্ট নিয়ে পাস করি তখন আমাদের প্রতি পত্রে ৫০০ টি অবজেকটিভ মুখস্থ করতে হতো সেখান থেকে ৫০ টি প্রশ্ন আসত তাতে পাস করলেই পাস করা হতো। কিন্তু সেটা ভাল ভাবে মেনে নেয়নি সবাই তাই আমাদের মূল্যায়ন ও হতো সে ভাবে। যার ফলে আমরা অনেকেই সেই ৫০০ টি অবজেকটিভ পদ্ধতি বন্ধ হওয়ার পরের যে কোন একটি সালকে এসএসসি পাসের বছর বলতাম, সেটা আজ অনেকেই ভুলে গেছে কিন্তু এই অটোপাস শিক্ষার্থী সারা জীবন বোঝা হিসেবে বয়ে বেড়াবে ভুলবেনা কেউ কখনো, অটো পাসের চেয়ে সিমিত আকারে পরীক্ষা নেয়া উচিৎ ছিল।