অধ্যাপক আলী আসগর আর নেই - বিশ্ববিদ্যালয় - দৈনিকশিক্ষা

অধ্যাপক আলী আসগর আর নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক |

দেশে বিজ্ঞান আন্দোলনের পুরোধা বিশিষ্ট বিজ্ঞান ব্যক্তিত্ব অধ্যাপক আলী আসগর আর নেই। বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) ভোর ৪টা ৩০ মিনিটে মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণজনিত কারণে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে তিনি ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি...রাজিউন)। তার বয়স হয়েছিল ৮২ বছর। তিনি স্ত্রী ও দুই ছেলে রেখে গেছেন।

বৃহস্পতিবার বাদ আসর রাজধানীর উত্তরা ৪ নম্বর সেক্টরে জানাজা শেষে একই সেক্টরের কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে।

অধ্যাপক আলী আসগর দীর্ঘদিন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে পদার্থ বিজ্ঞান বিষয়ে অধ্যাপনা করেছেন। বিজ্ঞান বিষয়ে তিনি লেখালেখি করতেন। খেলাঘরের সাবেক এই সভাপতি পদার্থ বিজ্ঞান সমিতির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি। তিনি বিজ্ঞান অলিম্পিয়াড কমিটির অন্যতম প্রধান। বিশ্বের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে অতিথি শিক্ষক হিসেব পদার্থ বিজ্ঞান শিক্ষা দিয়েছেন তিনি।

দেশি ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বিজ্ঞান বিষয়ক সংগঠনের নেতৃত্ব দেওয়া অধ্যাপক আলী আসগর শিশু কিশোর ও বয়স্কদের জন্য লিখেছেন শতাধিক বিজ্ঞান বিষয়ক গ্রন্থ। বাংলাদেশ টেলিভিশনে বিজ্ঞান বিষয়ক অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করে সুনাম অর্জন করেন তিনি।

অধ্যাপক আলী আসগর মুক্তবুদ্ধির উদার ও অসাম্প্রদায়িক মানুষ ছিলেন। মুক্তিযুদ্ধসহ দেশের সব অসাম্প্রদায়িক ও প্রগতিশীল আন্দোলনে বুদ্ধিবৃত্তিক অবদান রাখেন তিনি।

অধ্যাপক আলী আসগর ১৯৬০ খ্রিষ্টাব্দে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএসসি এবং ১৯৬২ খ্রিষ্টাব্দে এমএসসি ডিগ্রি অর্জন করেন। এরপর ১৯৭০ খ্রিষ্টাব্দে ইংল্যান্ডের সাউদাম্পটন ইউনিভার্সিটি থেকে তিনি পিএচডি ডিগ্রি অর্জন করেন।

কাজের স্বীকৃতি হিসেবে অধ্যাপক আলী আসগর বিভিন্ন পুরস্কার ও সম্মাননায় ভূষিত হন। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য কয়েকটি হচ্ছে- বিজ্ঞানে অবদানের জন্য ড. মনিরুজ্জামান স্বর্ণপদক, বিজ্ঞানবিষয়ক লেখালেখির জন্য ড. কুদরত-ই-খুদা স্বর্ণপদক, দেশে বিজ্ঞানকে জনপ্রিয় করার ক্ষেত্রে অবদানের জন্য ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন স্বর্ণপদক এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ক্ষেত্রে অবদানের জন্য মার্কেন্টাইল ব্যাংক স্বর্ণপদক।

অ্যাসাইনমেন্টের সঙ্গে স্কুলের বেতনের সম্পর্ক নেই : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha অ্যাসাইনমেন্টের সঙ্গে স্কুলের বেতনের সম্পর্ক নেই : শিক্ষামন্ত্রী শিক্ষকদের একটা বড় অংশ ঘটনাচক্রে শিক্ষক : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha শিক্ষকদের একটা বড় অংশ ঘটনাচক্রে শিক্ষক : শিক্ষামন্ত্রী শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হয় তদবিরে : সেতুমন্ত্রী - dainik shiksha শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হয় তদবিরে : সেতুমন্ত্রী ছাত্রীর চুল কেটে দেওয়ায় শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা - dainik shiksha ছাত্রীর চুল কেটে দেওয়ায় শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা এ সপ্তাহে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সারপ্রাইজ ভিজিট শুরু - dainik shiksha এ সপ্তাহে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সারপ্রাইজ ভিজিট শুরু অষ্টম-নবম শ্রেণির ক্লাস দুই দিন : নতুন রুটিন প্রকাশ - dainik shiksha অষ্টম-নবম শ্রেণির ক্লাস দুই দিন : নতুন রুটিন প্রকাশ করোনার বন্ধে এক স্কুলেই অর্ধশতাধিক বাল্যবিবাহ - dainik shiksha করোনার বন্ধে এক স্কুলেই অর্ধশতাধিক বাল্যবিবাহ please click here to view dainikshiksha website