অবশেষে ফেরত পাঠানো ফরম পূরণের টাকা পেলেন শিক্ষার্থীরা - কলেজ - দৈনিকশিক্ষা

দৈনিক শিক্ষাডটকমে প্রতিবেদন প্রকাশের পরঅবশেষে ফেরত পাঠানো ফরম পূরণের টাকা পেলেন শিক্ষার্থীরা

নওগাঁ প্রতিনিধি |

প্রায় ১০ মাস আগে নওগাঁর মান্দা এস সি মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের ১৯ জন শিক্ষার্থী বোর্ড থেকে ফেরত পাঠানো টাকা হাতে পেয়েছেন। শিক্ষা বিষয়ক দেশের একমাত্র ডিজিটাল পত্রিকা দৈনিক শিক্ষা ডটকমে ‘ফেরত পাঠানো ফরম পূরণের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ অধ্যক্ষ-শিক্ষকের বিরুদ্ধে’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশের পর কলেজ কর্তৃপক্ষ শিক্ষার্থীদের টাকা ফেরত দিয়েছে।

টাকা ফেরত পেয়ে প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী মো. মোস্তাফিজুর রহমান লিমন, মেহেদী হাসান ও আল আমিন বলেন, দৈনিক শিক্ষাডটকমে সংবাদ প্রকাশের কারণে আমরা টাকা আমরা হাতে পেয়েছি। ফেরত দেয়া টাকা হাতে পেয়ে আমাদের খুব ভালো লাগছে।

এ বিষয়ে প্রতিষ্ঠানের বর্তমান ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. আতিকুর রহমান দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, শিক্ষার্থীদের টাকা পাওয়ার বিষয়টি আগে জানতাম না। দৈনিক শিক্ষাডটকমে সংবাদ প্রকাশের পর জেনেছি। পরে গত শনিবার ও রোববার শিক্ষার্থীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে টাকা পৌঁছে দেয়া হয়েছে।

শিক্ষার্থীদের টাকা আত্মসাতে অভিযুক্ত প্রতিষ্ঠানের সাবেক ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ গোলাম মোস্তফা মো. নুরুজ্জামান দাবি করেছেন তিনি শিক্ষার্থীদের টাকা ফেরত দেয়ার কথা ভুলে গিয়েছিলেন। তিনি দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, গত ১বছর আগে গভর্নিং বডির সিদ্ধান্তে প্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হিসাবে আমাকে দায়িত্ব দেয়া হয়। এরমধ্যে দুইবার আমাকে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব দেয়া ও পুনরায় আবার দায়িত্ব থেকে অব্যহতি দেয়া হয়। সর্বশেষ গত ৩ জানুয়ারি দায়িত্ব থেকে অব্যহতি দেয়া হয়েছে। বারবার দায়িত্ব দেয়া ও ফিরিয়ে নেয়া এবং করোনা ভাইরাসের কারণে প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার কারণে আমি শিক্ষার্থীদের টাকা ফেরত দেয়ার কথা ভুলে যাই। বোর্ড থেকে পাঠানো টাকা আমি আত্মসাত করিনি। ওই টাকা প্রতিষ্ঠানের হিসেবে জমা ছিল। আমার প্রতিষ্ঠানের কিছু প্রাক্তন শিক্ষার্থী আমাকে ভুল বুঝে আমার বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ করেছে। আমি গত ৮ ও ৯ জানুয়ারি শিক্ষার্থীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে টাকা দিয়ে এসেছি।

২০২০ খ্রিষ্টাব্দে এইচএসসি পরীক্ষা না হওয়ায় পরীক্ষার্থীদের ফরম পূরণের টাকা ফেরত দেয়ার নির্দেশ দেন শিক্ষামন্ত্রী। ওই প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞান বিভাগের ৩জন, মানবিক বিভাগের ১০জন ও অনিয়মিত ৬জনসহ মোট ১৯জন পরীক্ষার্থীর ফরম পূরণের ১১ হাজার ৯৬৫ টাকা গত ২০২১ খ্রিষ্টাব্দের ৮ মার্চ প্রতিষ্ঠানে আসে। সেই টাকা শিক্ষার্থীদের মাঝে ফেরত না দেয়ায় গত ৪ জানুয়ারি দৈনিক শিক্ষা ডটকমে সংবাদ প্রকাশ হয়।

সংবাদ প্রকাশের পর সাবেক ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ গোলাম মোস্তফা মো. নুরুজ্জামান শিক্ষার্থীদের ৮ জানুয়ারি সারা দিন ও ৯ জানুয়ারি রাত সাড়ে ৭টা পর্যন্ত সকল শিক্ষার্থীর বাড়ি বাড়ি গিয়ে তাদের টাকা ফেরত দেন।

ডোপ টেস্ট ছাড়াই কলেজভর্তি - dainik shiksha ডোপ টেস্ট ছাড়াই কলেজভর্তি সব শিক্ষকের করোনা শনাক্ত, স্কুল বন্ধ ঘোষণা - dainik shiksha সব শিক্ষকের করোনা শনাক্ত, স্কুল বন্ধ ঘোষণা প্রাথমিকে স্কুল ফিডিং প্রকল্পের মেয়াদ আরো ৬ মাস বাড়ছে - dainik shiksha প্রাথমিকে স্কুল ফিডিং প্রকল্পের মেয়াদ আরো ৬ মাস বাড়ছে পুলিশের মামলায় আসামি শিক্ষার্থীরা, অভিযোগ ‘গুলি ও পুলিশকে হত্যাচেষ্টার’ - dainik shiksha পুলিশের মামলায় আসামি শিক্ষার্থীরা, অভিযোগ ‘গুলি ও পুলিশকে হত্যাচেষ্টার’ করোনার উচ্চ ঝুঁকিতে ১২ জেলা, মধ্যম ঝুঁকিতে ৩১ - dainik shiksha করোনার উচ্চ ঝুঁকিতে ১২ জেলা, মধ্যম ঝুঁকিতে ৩১ ছাত্রীর পা থেঁতলে দিল বখাটেরা, আহত আরো ২০ - dainik shiksha ছাত্রীর পা থেঁতলে দিল বখাটেরা, আহত আরো ২০ ১৭ বিএড কলেজে ভর্তি চলছে - dainik shiksha ১৭ বিএড কলেজে ভর্তি চলছে সংক্রমণ আরও বাড়লে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের সিদ্ধান্ত : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha সংক্রমণ আরও বাড়লে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের সিদ্ধান্ত : শিক্ষামন্ত্রী please click here to view dainikshiksha website