অ্যাসাইনমেন্ট শিক্ষার্থীদের জন্য সহায়ক কি? - মতামত - দৈনিকশিক্ষা

অ্যাসাইনমেন্ট শিক্ষার্থীদের জন্য সহায়ক কি?

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |

মহামারির প্রাদুর্ভাবে ১৭ মার্চ ২০২০-এ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়, এর মধ্যে এক বছর পেরিয়ে গেছে। এই সময়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় চালু করে নির্ধারিত কাজ। নির্ধারিত কাজ হচ্ছে অ্যাসাইনমেন্ট, যা নির্দিষ্ট বিষয়ে লিখে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে জমা দিতে হবে। যাতে করে শিক্ষার্থীরা লেখাপড়ার মধ্যেই থাকে। মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) ইত্তেফাক পত্রিকায় প্রকাশিত এক চিঠিতে এ তথ্য জানা যায়।

চিঠিতে আরও জানা যায়, কিন্তু এই নির্ধারিত কাজ করে কি শিক্ষার্থীর পড়ালেখার উন্নতি বা মানসিক বিকাশ হচ্ছে? অধিকাংশ শিক্ষার্থীর দিকে লক্ষ করলে দেখা যায়, তাদের বেশিরভাগই নির্ধারিত কাজ পাঠ্যসূচির সঙ্গে সম্পর্কিত না হয়ে ইন্টারনেট থেকে উত্তর বের করে নির্ধারিত কাজ সম্পূর্ণ করেছে। তাই এই নির্ধারিত কাজ থেকে শিক্ষার্থী কী শিক্ষা অর্জন করছে, সে প্রশ্ন আসা স্বাভাবিক।

এভাবে তাদের মেধা কতটুকু বিকশিত হয়েছে—সে জিজ্ঞাসাও মুখ্য। নির্ধারিত কাজকে প্রকৃত অর্থে শিক্ষার্থীর জন্য কাজে লাগাতে হলে, যেসব মানুষ ইন্টারনেটে নির্ধারিত কাজের সমাধান দিচ্ছে তাদেরকে বাধ্য করতে হবে যেন তারা এই কাজ না করে। না হয় এই নির্ধারিত কাজ অনর্থক। তাই আসুন প্রকৃত শিক্ষা অর্জনে কাজ করি, শিক্ষিত জাতি গড়ি।

লেখক: সাজ্জাদ হোসেন রায়হান, শিক্ষার্থী, অর্থনীতি বিভাগ, ঢাকা কলেজ

স্বাস্থ্যবিধি না মানলে করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের শঙ্কা স্বাস্থ্যমন্ত্রীর - dainik shiksha স্বাস্থ্যবিধি না মানলে করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের শঙ্কা স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সাড়ে দশ লাখ পরিবার প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক সহায়তার টাকা পাবে বিকাশে - dainik shiksha সাড়ে দশ লাখ পরিবার প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক সহায়তার টাকা পাবে বিকাশে ‘আগামী শিক্ষাবর্ষেই প্রাথমিকের কারিকুলামে যুক্ত হচ্ছে প্রোগ্রামিং’ - dainik shiksha ‘আগামী শিক্ষাবর্ষেই প্রাথমিকের কারিকুলামে যুক্ত হচ্ছে প্রোগ্রামিং’ ভর্তি পরীক্ষা পেছানো নিয়ে যা ভাবছে বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদ - dainik shiksha ভর্তি পরীক্ষা পেছানো নিয়ে যা ভাবছে বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদ বিপুল সম্পদের মালিক শিক্ষা কর্মকর্তা, দুদকে অভিযোগ কর্মচারীর - dainik shiksha বিপুল সম্পদের মালিক শিক্ষা কর্মকর্তা, দুদকে অভিযোগ কর্মচারীর দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে সেহরি ও ইফতারের সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সূচি ৫৪ হাজার শিক্ষক পদ, ৪১ লাখ আবেদন - dainik shiksha ৫৪ হাজার শিক্ষক পদ, ৪১ লাখ আবেদন লকডাউনে মানতে হবে যে সব বিধি-নিষেধ - dainik shiksha লকডাউনে মানতে হবে যে সব বিধি-নিষেধ চুয়েট-কুয়েট-রুয়েটের সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা ১২ জুন, আবেদন শুরু ২৪ এপ্রিল - dainik shiksha চুয়েট-কুয়েট-রুয়েটের সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা ১২ জুন, আবেদন শুরু ২৪ এপ্রিল সেই ম্যাজিস্ট্রেটকে বরিশালে বদলি - dainik shiksha সেই ম্যাজিস্ট্রেটকে বরিশালে বদলি please click here to view dainikshiksha website