আওয়ামীলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

আওয়ামীলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম

অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি |

যশোরের অভয়নগরে তারাবি নামাজ পড়ে বাড়ি ফেরার পথে স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা আবদুর রশিদ মোল্যাকে সন্ত্রাসীরা চাইনিজ কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে জখম করেছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল বুধবার (২২ এপ্রিল) রাতে উপজেলার ধোপাদি গ্রামের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ সংলগ্ন আজিম মোড়লের বাড়ির সামনে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

গুরুতর আহত আবদুর রশিদ মোল্যা নওয়াপাড়া পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ধোপাদি গ্রামের মধ্যপাড়ার মৃত রহম আলী মোল্যার ছেলে।  

আহতের স্ত্রী সেলিনা পারভীন দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানান, বুধবার সকালে ধোপাদি গ্রামের হালিমের মাছের ঘেরে একদল চোর মাছ চুরি করছিল। এসময় আমার শিশুপুত্র নাহিদ বিষয়টি দেখে ফেলে এবং চোর চক্রকে চিনতে পেরে চুরির ঘটনাটি সবাইকে জানিয়ে দেবে বলে জানায়। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে তারা নাহিদকে মারপিট করে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। বাড়ি ফিরে নাহিদ ঘটনাটি সবাইকে জানায়। দুপুরের পর নাহিদের বাবার সাথে বিষয়টি নিয়ে চোর চক্রের সদস্যদের কথা কাটাকাটি হয়। এরই জের ধরে হামলার ঘটনা ঘটেছে। 

আহত আওয়ামী লীগ নেতা আবদুর রশিদ মোল্যা দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানান, বুধবার রাতে তারাবি নামাজ পড়ে বাড়ি ফেরার পথে আজিম মোড়লের বাড়ির সামনে পৌঁছালে ধোপাদি গ্রামের মধ্যপাড়ার জাকির মোড়লের ছেলে সবুজ, দেলোয়ার হোসেনের ছেলে আল-আমিন, মোজাফ্ফর ফকিরের ছেলে রাকিব হাসান ও মোতালেব ফকিরের ছেলে ময়মেনসহ অজ্ঞাত ১০-১৫জন সন্ত্রাসী হত্যার উদ্দেশ্যে আমার ওপর হামলা চালায়। এসময় তারা চাইনিজ কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে এবং হাঁতুড়ি দিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে পেটাতে থাকে। এক পর্যায়ে আমার চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় ওই রাতেই তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।  হাসপাতালে তার অবস্থার উন্নতি না ঘটায় বৃহস্পতিবার দুপুরে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। 

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ঈদের ছুটিতে কর্মস্থলেই থাকতে হবে সব চাকরিজীবীদের - dainik shiksha ঈদের ছুটিতে কর্মস্থলেই থাকতে হবে সব চাকরিজীবীদের পরিস্থিতির উন্নতি না হলে ১ জুলাই থেকে অনলাইনে ঢাবির চূড়ান্ত পরীক্ষা - dainik shiksha পরিস্থিতির উন্নতি না হলে ১ জুলাই থেকে অনলাইনে ঢাবির চূড়ান্ত পরীক্ষা সরকারি চাকরিতে আবেদনে বয়সে ছাড় আসছে - dainik shiksha সরকারি চাকরিতে আবেদনে বয়সে ছাড় আসছে কওমি মাদরাসাকে মূলধারায় নিয়ে আসা প্রয়োজন : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha কওমি মাদরাসাকে মূলধারায় নিয়ে আসা প্রয়োজন : শিক্ষামন্ত্রী শিক্ষামন্ত্রীকে ভুল বুঝিয়ে সাড়ে ৫ লাখ টাকা করে ২০০ ক্যামেরা কিনে ফাঁসলেন পিডি - dainik shiksha শিক্ষামন্ত্রীকে ভুল বুঝিয়ে সাড়ে ৫ লাখ টাকা করে ২০০ ক্যামেরা কিনে ফাঁসলেন পিডি চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়াকে বিদেশে নিতে চায় পরিবার - dainik shiksha চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়াকে বিদেশে নিতে চায় পরিবার সেহরি ও ইফতারের সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সূচি দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে please click here to view dainikshiksha website