আবরার হত্যায় জড়িতদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা হবে : প্রধানমন্ত্রী - বিশ্ববিদ্যালয় - দৈনিকশিক্ষা

আবরার হত্যায় জড়িতদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা হবে : প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক |

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, আবরার হত্যার ঘটনা শোনার পর তাৎক্ষণিকভাবে জড়িতদের গ্রেফতারে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় বিচার নিশ্চিত করতে জড়িতদের রাজনৈতিক পরিচয় বিবেচনা করা হবেনা বলেও জানান তিনি। বুধবার (৯ অক্টোবর) গণভবনে আয়োজিত ভারত ও যুক্তরাষ্ট্র সফর সম্পর্কে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ২১ বছর বয়সী একজন ছাত্রকে মেরে ফেলা হল। এ ঘটনার জানার পর তাৎক্ষণিকভাবে জড়িতদের গ্রেফতার করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। একজন ছাত্রকে পিটিয়ে মেরে ফেলার ঘটনার ছাত্রলীগ বা ছাত্রদল বিবেচনার সুযোগ নেই। এ ঘটনায় যেই জড়িত তার বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নেয়া হবে। এঘটনায় দায়ীদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, তবে, পুলিশ যখন আলামত সংগ্রহ করতে গেল তখন আলামত সংগ্রহে বাধা দেয়া হল। সিসিটিভি ফুটেজ পুলিশকে দেয়া হচ্ছিল না। তিনঘন্টা পরে পুলিশকে সিসিটিভি ফুটেজ দেয়া হয়েছে। সে সিসিটিভি ফুটেজ দেখেই জড়িতদের গ্রেফতার করা হচ্ছে। তিনঘন্টা পরে পুলিশকে কেনো সিসিটিভি ফুটেজ দেয়া হল? প্রশ্ন তুলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

তিনি বলেন, বিএনপি জামাতের আমলে শিক্ষার্থী হত্যার ঘটনার বিচারতো দূরে থাক কাউকে গ্রেফতারই করা হয়নি। ছাত্রদলের টেন্ডার নিয়ে কোন্দলে সনি নামের এক ছাত্রী নিহত হয়। কিন্তু কাউকে আটক করা হয়নি বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।    

শিক্ষার্থী বাড়ানোর প্রস্তাব রেখে এমপিওর নীতিমালা চূড়ান্ত - dainik shiksha শিক্ষার্থী বাড়ানোর প্রস্তাব রেখে এমপিওর নীতিমালা চূড়ান্ত এমপিওভুক্ত হতে পারলো না ১৭ বিএম কলেজ - dainik shiksha এমপিওভুক্ত হতে পারলো না ১৭ বিএম কলেজ জেডিসির সনদ পেতে অনলাইনে ফরম পূরণ যেভাবে - dainik shiksha জেডিসির সনদ পেতে অনলাইনে ফরম পূরণ যেভাবে অস্তিত্বহীন মাদরাসায় প্রতিবছর যাচ্ছে সরকারি বই - dainik shiksha অস্তিত্বহীন মাদরাসায় প্রতিবছর যাচ্ছে সরকারি বই জেএসসির সার্টিফিকেট পেতে ফরম পূরণ যেভাবে - dainik shiksha জেএসসির সার্টিফিকেট পেতে ফরম পূরণ যেভাবে তিন বিভাগে ৭৬ শিক্ষার্থী, শিক্ষক ৬৭ : জটিল পরিস্থিতি - dainik shiksha তিন বিভাগে ৭৬ শিক্ষার্থী, শিক্ষক ৬৭ : জটিল পরিস্থিতি এক সেমিস্টার শেষ হতে তিন বছর পার - dainik shiksha এক সেমিস্টার শেষ হতে তিন বছর পার ৫ মাস বয়স বাড়িয়ে সভাপতির পুত্রবধুকে সরকারিকৃত স্কুলে নিয়োগ - dainik shiksha ৫ মাস বয়স বাড়িয়ে সভাপতির পুত্রবধুকে সরকারিকৃত স্কুলে নিয়োগ টিউশন ফি নিতে পারবে মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান - dainik shiksha টিউশন ফি নিতে পারবে মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের বিষয়-গ্রুপ পরিবর্তন ও ভর্তি বাতিলের সুযোগ ১০ এপ্রিল পর্যন্ত - dainik shiksha একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের বিষয়-গ্রুপ পরিবর্তন ও ভর্তি বাতিলের সুযোগ ১০ এপ্রিল পর্যন্ত ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত সব মাদরাসা বন্ধের আদেশ জারি - dainik shiksha ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত সব মাদরাসা বন্ধের আদেশ জারি নগদের পোর্টালে শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির তথ্য এন্ট্রির সুযোগ ২৫ জানুয়ারি পর্যন্ত - dainik shiksha নগদের পোর্টালে শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির তথ্য এন্ট্রির সুযোগ ২৫ জানুয়ারি পর্যন্ত শিক্ষক নিয়োগে এনটিআরসিএর ওপর নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়লো - dainik shiksha শিক্ষক নিয়োগে এনটিআরসিএর ওপর নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়লো please click here to view dainikshiksha website