আরও ১৯ করোনা রোগী শনাক্ত - করোনা আপডেট - দৈনিকশিক্ষা

আরও ১৯ করোনা রোগী শনাক্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক |

দেশে একদিনে ১৯ জনের করোনাভাইরাস সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল আটটা থেকে শুক্রবার সকাল আটটা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় তারা আক্রান্ত বলে শনাক্ত হয়েছেন। এই ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় কারও মৃত্যু হয়নি।

এ নিয়ে টানা ১৬ দিন করোনায় কারও মৃত্যু হয়নি। আগের দিনের তুলনায় সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন রোগীর সংখ্যা বেড়েছে। আগের দিন চারজনের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছিল।

গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তদের মধ্যে ১৪ জনই ঢাকার। এছাড়া ময়মনসিংহ বিভাগে দুজন এবং চট্টগ্রাম, রাজশাহী এ রংপুর বিভাগে একজন করে করোনা শনাক্ত হয়। সিলেট, বরিশাল ও খুলনা বিভাগে কারও করোনা শনাক্ত হয়নি।

শুক্রবার বিকেলে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর আরও জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ৩ হাজার ৪৫৫ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষার বিপরীতে রোগী শনাক্তের হার শূন্য দশমিক ৫৫। আগের দিন এ হার ছিল শূন্য দশমিক ১৮। সংক্রমণের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত দেশে ১৯ লাখ ৫২ হাজার ৭৬৬ জনের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১৮ লাখ ৯৭ হাজার ৪৬ জন। আর মৃত্যু হয়েছে ২৯ হাজার ১২৭ জনের।

২০২০ খ্রিষ্টাব্দের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়। ওই বছরের ১৮ মার্চ করোনায় প্রথম একজনের মৃত্যুর খবর জানানো হয়। শুরুতে মৃত্যু অনিয়মিত থাকলেও ওই বছরের ৪ এপ্রিল থেকে করোনায় মৃত্যু ছিল নিত্যদিনের ঘটনা। শুরু থেকে এখন পর্যন্ত দেশে করোনার সংক্রমণের চিত্রে কয়েক দফা ওঠানামা দেখা গেছে। করোনা পরিস্থিতি প্রায় সাড়ে তিন মাস নিয়ন্ত্রণে থাকার পর গত বছরের ডিসেম্বরের শেষ দিকে সংক্রমণ বাড়তে শুরু করে। করোনার নতুন ধরণ অমিক্রনের প্রভাবে দ্রুত বাড়তে থাকে রোগী শনাক্ত ও শনাক্তের হার। পরে ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি থেকে নিয়মিতভাবে রোগী শনাক্ত ও শনাক্তের হার কমেছে। দেশে করোনার সংক্রমণ কমায় আবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া হয়েছে। তুলে নেয়া হয়েছে করোনার বিধিনিষেধ।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়-ইউজিসির ১২ কর্মকর্তার বিদেশ সফর বাতিল - dainik shiksha শিক্ষা মন্ত্রণালয়-ইউজিসির ১২ কর্মকর্তার বিদেশ সফর বাতিল প্রশ্নফাঁসে শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তারাই জড়িত, দুজনকে খুঁজছে পুলিশ - dainik shiksha প্রশ্নফাঁসে শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তারাই জড়িত, দুজনকে খুঁজছে পুলিশ পাঠ্যবইয়ে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে সিনথেটিক ড্রাগসের ভয়াবহতা - dainik shiksha পাঠ্যবইয়ে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে সিনথেটিক ড্রাগসের ভয়াবহতা প্রভাষকদের পদোন্নতি কমিটির সভাপতি হবেন ডিসিরা - dainik shiksha প্রভাষকদের পদোন্নতি কমিটির সভাপতি হবেন ডিসিরা টানা বর্ষণে সিলেটে বন্যা, বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ - dainik shiksha টানা বর্ষণে সিলেটে বন্যা, বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ড্রাইভারকে দেয়া হচ্ছে উপসচিবের সমান বেতন - dainik shiksha ড্রাইভারকে দেয়া হচ্ছে উপসচিবের সমান বেতন ঢাকা ও চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে নতুন চেয়ারম্যান - dainik shiksha ঢাকা ও চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে নতুন চেয়ারম্যান please click here to view dainikshiksha website