আহমদ শফীর পদগুলো দখলে নিতে মরিয়া শীর্ষ কওমি নেতারা - মাদরাসা - দৈনিকশিক্ষা

আহমদ শফীর পদগুলো দখলে নিতে মরিয়া শীর্ষ কওমি নেতারা

দৈনিকশিক্ষা ডেস্ক |

প্রয়াত আহমদ শফীর মৃত্যুতে শূন্য হওয়া বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়ার (বেফাক) সভাপতি পদ পূরণ করার জন্য আজ বৈঠক ডাকা হয়েছে। বৈঠক থেকে ভারপ্রাপ্ত প্রধানের নাম ঘোষণা করা হবে। আর বেফাক সভাপতি যিনি হবেন সাধারণত তিনি কওমি মাদ্রাসার সর্বোচ্চ স্তর দাওরায়ে হাদিসের পরীক্ষা নেওয়ার জন্য সরকার গঠিত সংস্থা আল-হাইআতুল উলয়া লিল-জামি’আতিল কওমিয়ার চেয়ারম্যান নিযুক্ত হবেন। শনিবার (৩ অক্টোবর) বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকায় প্রকাশিত এক  প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা যায়। 

প্রতিবেদনে আরও জানা যায়, শফীর এই পদগুলো নিজেদের বলয়ে নেওয়ার জন্য মরিয়া শীর্ষ কওমি নেতারা। সূত্রগুলো বলছে, বেফাক সভাপতির পদ যার কাছে থাকবে পরবর্তীতে হেফাজতে ইসলামের নেতৃত্বও তাদের হাতেই থাকবে। হেফাজতে ইসলাম ও বেফাকের নেতৃত্ব নিয়ে নানামুখী তৎপরতা চলছে। এ নিয়ে সরকারঘনিষ্ঠ ও সরকারবিরোধী মনোভাবাপন্ন দুটি পক্ষের সৃষ্টি হয়েছে।

জানা যায়, হেফাজতের মতো বেফাকও কওমি মাদ্রাসার ছাত্র-শিক্ষকদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বেফাকের অধীন ছয়টি স্তরের সারা দেশের ১৩ হাজার মাদ্রাসা আছে। এসব মাদ্রাসায় শিক্ষার্থীর সংখ্যা প্রায় ১৮ লাখ। কওমি শিক্ষার সনদের সরকারি স্বীকৃতি থাকায় এর গুরুত্ব আরও বেড়েছে। এই সুবাদে সরকারের সঙ্গে কওমি আলেমদের যোগাযোগও বেড়েছে।

সদ্য প্রয়াত হেফাজতে ইসলামের আমির আহমদ শফী বলয় দখলে মরিয়া কওমি মতাদর্শী শীর্ষ অন্তত অর্ধডজন আলেম। তারা শফী অনুসারীদের নিজের দলে ভেড়াতে এবং আহমদ শফীর নানান পদে স্থলাভিষিক্ত হওয়ার জন্য সক্রিয় হয়েছেন মাঠে।

কওমি নেতাদের দাবি- যিনি আহমদ শফী সাম্রাজ্য দখলে নিতে পারবেন তিনিই হবেন কওমি সমাজের পরবর্তী নিয়ন্ত্রক।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে হেফাজতে ইসলামের একাধিক নেতা বলেন, দুই যুগেরও বেশি সময় ধরে আহমদ শফী দেশের কওমি সমাজকে একক নিয়ন্ত্রণ করেছেন। পুরো দেশে রয়েছে তাঁর শক্তিশালী বলয়। তাই শফী অনুসারীদের আয়ত্ত করতে যুদ্ধ চলছে শীর্ষ কওমি আলেমদের মধ্যে।

আহমদ শফীর মৃত্যু ও তার অনুসারীদের নিজেদের দলে ভেড়াতে মাঠে সক্রিয় শীর্ষ কওমি আলেমদের মধ্যে রয়েছেন হেফাজতে ইসলামের বর্তমান সিনিয়র নায়েবে আমির মহিবুল্লাহ বাবুনগরী, মহাসচিব জুনায়েদ বাবুনগরী, হেফাজতে ইসলামের নায়েবে আমির নূর হোসেন কাসেমী, মুফতি ইজাহারুল ইসলাম চৌধুরী, মুফতি ওয়াক্কাস, হাটহাজারী মাদ্রাসার সিনিয়র শিক্ষক শেখ আহমদ প্রমুখ।

এ ছাড়া আহমদ শফীপুত্র ও তাঁর অনুসারী নেতাও চাইছে এতদিনের কতৃত্ব ধরে রাখতে। তাই দল ভারী করতে কওমি নেতাদের চলছে স্লায়ুযুদ্ধ। একাধিক কওমি নেতা বলেন, আহমদ শফী অনুসারীরা চাইবে না দুই যুগের অধিকের শক্তিশালী বলয় ভাঙতে। তাই শফীপুত্র আনাস মাদানী ও তার অনুসারীরা চাইবে না এ কর্তৃত্ব হারাতে। নিজেদের বলয় রক্ষা করতে মাঠে সক্রিয় রয়েছেন তারা।

৪৮ হাজার শিক্ষকের টাইম স্কেল ফেরতের রিট খারিজ - dainik shiksha ৪৮ হাজার শিক্ষকের টাইম স্কেল ফেরতের রিট খারিজ ‘যে যেখান থেকে পড়াশোনা করে বিত্তশালী হয়েছেন, সে সেখানকার শিক্ষার্থীদের সহায়তা করুন’ - dainik shiksha ‘যে যেখান থেকে পড়াশোনা করে বিত্তশালী হয়েছেন, সে সেখানকার শিক্ষার্থীদের সহায়তা করুন’ দুই ছাত্রীকে যৌন হয়রানির দায়ে রাবি শিক্ষক ছয় বছর নিষিদ্ধ - dainik shiksha দুই ছাত্রীকে যৌন হয়রানির দায়ে রাবি শিক্ষক ছয় বছর নিষিদ্ধ জাতীয় প্রেসক্লাবে ছাত্রদল কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ, লাঠিচার্জ - dainik shiksha জাতীয় প্রেসক্লাবে ছাত্রদল কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ, লাঠিচার্জ স্কুল-কলেজ খুলছে ৩০ মার্চ - dainik shiksha স্কুল-কলেজ খুলছে ৩০ মার্চ রমজানেও খোলা থাকবে স্কুল-কলেজ - dainik shiksha রমজানেও খোলা থাকবে স্কুল-কলেজ স্কুল-কলেজে কোন শ্রেণির কতদিন ক্লাস - dainik shiksha স্কুল-কলেজে কোন শ্রেণির কতদিন ক্লাস মাদরাসার সংশোধিত এমপিও নীতিমালা পূনর্বিবেচনা ও শতভাগ উৎসব ভাতা দাবি - dainik shiksha মাদরাসার সংশোধিত এমপিও নীতিমালা পূনর্বিবেচনা ও শতভাগ উৎসব ভাতা দাবি শিল্পখাতের সঙ্গে শিক্ষার সমন্বয়ের তাগিদ শিক্ষামন্ত্রীর - dainik shiksha শিল্পখাতের সঙ্গে শিক্ষার সমন্বয়ের তাগিদ শিক্ষামন্ত্রীর এসএসসি পরীক্ষা হতে পারে জুলাই মাসে - dainik shiksha এসএসসি পরীক্ষা হতে পারে জুলাই মাসে please click here to view dainikshiksha website