ইউল্যাব ছাত্রী ধর্ষণ-হত্যা : ছয় জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট - বিশ্ববিদ্যালয় - দৈনিকশিক্ষা

ইউল্যাব ছাত্রী ধর্ষণ-হত্যা : ছয় জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

নিজস্ব প্রতিবেদক |

জোর করে ‘অধিক মাত্রায়’ মদপান করিয়ে ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশের (ইউল্যাব) এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় ভিকটিমের বন্ধু মর্তুজা রায়হান চৌধুরীসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ। চার্জশিটভুক্ত বাকি আসামিরা হলেন- মোসা. নুহাত আলম তাফসীর, ফারজানা জামান নেহা, শাফায়েত জামিল, মো. রিয়াজ উদ্দিন ও নুরুল আমিন।

মঙ্গলবার ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে চার্জশিট দাখিলের বিষয়টি নিশ্চিত করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মোহাম্মদপুর থানার উপপরিদর্শক সাজেদুল হক। চার্জশিটে ২৭ জনকে সাক্ষী করা হয়েছে। আরাফাত হোসাইন নামের আরেক আসামি মারা যাওয়ায় তাকে মামলা থেকে অব্যাহতির আবেদন করা হয়েছে। ইউল্যাব শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ ও হত্যার অভিযোগে ২০২১ সালের ৩১ জানুয়ারি ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে চারজনকে আসামি ও অজ্ঞাতনামা আরো আসামি করে রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়, গত বছরের ২৮ জানুয়ারি সন্ধ্যায় আরাফাত, রায়হান ও ভিকটিম ব্যাম্বুসুট রেস্টুরেন্টে যায়। সেখানে আগে থেকেই আসামি নেহা ও আরেক সহপাঠী উপস্থিত ছিল। সেখানে আসামিরা ওই তরুণীকে জোর করে ‘অধিক মাত্রায়’ মদপান করায়। মদপানের একপর্যায়ে ওই শিক্ষার্থী অসুস্থ বোধ করলে রায়হান তাকে মোহাম্মদপুরে তার এক বান্ধবীর বাসায় পৌঁছে দেয়ার কথা বলে নুহাতের বাসায় নিয়ে যায়। সেখানে তরুণীকে ধর্ষণ করে রায়হান। এ সময় রায়হানের বন্ধুরাও কক্ষে ছিল। ধর্ষণের পর ভিকটিম অসুস্থ হয়ে পড়ে। এতে রায়হান তার আরেক বন্ধু অসিম খানকে ফোন দেয়। সেই বন্ধু  

পরদিন এসে তরুণীকে প্রথমে ইবনে সিনা ও পরে আনোয়ার খান মডার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। দুই দিন লাইফ সাপোর্টে থাকার পর তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুর দিনই শিক্ষার্থীর বাবা থানায় মামলা দায়ের করেন।

ডোপ টেস্ট ছাড়াই কলেজভর্তি - dainik shiksha ডোপ টেস্ট ছাড়াই কলেজভর্তি সব শিক্ষকের করোনা শনাক্ত, স্কুল বন্ধ ঘোষণা - dainik shiksha সব শিক্ষকের করোনা শনাক্ত, স্কুল বন্ধ ঘোষণা প্রাথমিকে স্কুল ফিডিং প্রকল্পের মেয়াদ আরো ৬ মাস বাড়ছে - dainik shiksha প্রাথমিকে স্কুল ফিডিং প্রকল্পের মেয়াদ আরো ৬ মাস বাড়ছে পুলিশের মামলায় আসামি শিক্ষার্থীরা, অভিযোগ ‘গুলি ও পুলিশকে হত্যাচেষ্টার’ - dainik shiksha পুলিশের মামলায় আসামি শিক্ষার্থীরা, অভিযোগ ‘গুলি ও পুলিশকে হত্যাচেষ্টার’ করোনার উচ্চ ঝুঁকিতে ১২ জেলা, মধ্যম ঝুঁকিতে ৩১ - dainik shiksha করোনার উচ্চ ঝুঁকিতে ১২ জেলা, মধ্যম ঝুঁকিতে ৩১ ছাত্রীর পা থেঁতলে দিল বখাটেরা, আহত আরো ২০ - dainik shiksha ছাত্রীর পা থেঁতলে দিল বখাটেরা, আহত আরো ২০ ১৭ বিএড কলেজে ভর্তি চলছে - dainik shiksha ১৭ বিএড কলেজে ভর্তি চলছে সংক্রমণ আরও বাড়লে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের সিদ্ধান্ত : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha সংক্রমণ আরও বাড়লে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের সিদ্ধান্ত : শিক্ষামন্ত্রী please click here to view dainikshiksha website