ইতিহাস বিকৃতির দায়ে ঢাবি শিক্ষককে গ্রেফতার দাবিতে রাজপথে নামছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

ইতিহাস বিকৃতির দায়ে ঢাবি শিক্ষককে গ্রেফতার দাবিতে রাজপথে নামছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ

নিজস্ব প্রতিবেদক |

জাতির পিতা, মহান মুক্তিযুদ্ধ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্পর্কে ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য ও ইতিহাস বিকৃতির দায়ে অভিযুক্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষক স্বপদে বহাল রয়েছেন! রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ আইন কর্মকর্তা অ্যাটর্নি জেনারেল বিএনপি-জামায়াতপন্থী সাদা দলের অন্যতম নেতা মার্কেটিং বিভাগের শিক্ষক ড. মোর্শেদ হাসান খানকে সংবিধান লঙ্ঘনের দায়ে চাকরিচ্যুতির সুপারিশ করলেও রহস্যজনকভাবে তা বাস্তবায়ন হচ্ছে না। তবে, এবার দায়ী শিক্ষককে গ্রেফতার ও বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থায়ী বহিষ্কারের দাবিতে রাজপথে নামছে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের সংগঠন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। আগামীকাল মঙ্গলবার (১ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে প্রতিবাদ সমাবেশ এবং মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করেছে সংগঠনটি।

ঢাবি শিক্ষককে গ্রেফতার দাবিতে রাজপথে নামছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ

সোমবার (৩১ আগস্ট) দৈনিক শিক্ষা ডটকমে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানিয়েছেন সংগঠনের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল এবং সাধারণ সম্পাদক মো. আল মামুন। 

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন শেষে জাতির পিতা, মহান মুক্তিযুদ্ধ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্পর্কে ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য ও ইতিহাস বিকৃতির দায়ে অভিযুক্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষক ড. মোর্শেদ হাসান খানকে স্থায়ী বহিষ্কার ও গ্রেফতারের দাবিতে উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি দেবে সংগঠনটি।

আরও পড়ুন: ইতিহাস বিকৃতি : ঢাবি শিক্ষকের শাস্তি না হওয়ায় ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দের ক্ষোভ

জানা গেছে, সংবিধান লঙ্ঘন ও রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ আইন কর্মকর্তা এ্যাটর্নি জেনারেলের সুপারিশের পরেও পার পেয়ে যাচ্ছেন জাতির পিতা, মহান মুক্তিযুদ্ধ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্পর্কে ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য ও ইতিহাস বিকৃতির দায়ে অভিযুক্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএনপি-জামায়াতপন্থী সাদা দলের অন্যতম নেতা মার্কেটিং বিভাগের শিক্ষক ড. মোর্শেদ হাসান খান। তাকে সংবিধান লঙ্ঘনের দায়ে চাকরিচ্যুতির সুপারিশ করলেও রহস্যজনকভাবে তা বাস্তবায়ন হচ্ছে না। শোকাবহ আগস্ট মাসেই ঢাবিতে প্রগতিশীল প্রতিটি মানুষের মাঝে ক্ষোভের কারণ হয়ে সামনে এসেছে এ ইস্যু। ঘটনা নিয়ে তোলপাড় চলছে ঢাবিতে। আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ছাত্রলীগসহ প্রগতিশীল সাধারণ শিক্ষার্থীরা। বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগের কথা জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরাও।

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের আবেদনে ভুল সংশোধনের সুযোগ - dainik shiksha প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের আবেদনে ভুল সংশোধনের সুযোগ আসছে বছর থেকেই পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে প্রোগ্রামিং - dainik shiksha আসছে বছর থেকেই পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে প্রোগ্রামিং ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত সংসদ টিভিতে মাধ্যমিকের ক্লাস রুটিন - dainik shiksha ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত সংসদ টিভিতে মাধ্যমিকের ক্লাস রুটিন ইবতেদায়ি ও দাখিল শিক্ষার্থীদের পঞ্চম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশ - dainik shiksha ইবতেদায়ি ও দাখিল শিক্ষার্থীদের পঞ্চম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বেতনও ইএফটিতে - dainik shiksha প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বেতনও ইএফটিতে ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষার দায়িত্ব মাদরাসা বোর্ডের - dainik shiksha ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষার দায়িত্ব মাদরাসা বোর্ডের প্রতি স্কুলের তিন শিক্ষককে করতে হবে কৈশোরকালীন পুষ্টি প্রশিক্ষণ - dainik shiksha প্রতি স্কুলের তিন শিক্ষককে করতে হবে কৈশোরকালীন পুষ্টি প্রশিক্ষণ please click here to view dainikshiksha website