উপাচার্যের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ বেরোবি শিক্ষকদের - সমিতি সংবাদ - দৈনিকশিক্ষা

উপাচার্যের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ বেরোবি শিক্ষকদের

বেরোবি প্রতিনিধি |

রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহর বিরুদ্ধে একাডেমিক, প্রশাসনিক ও আর্থিক অনিয়ম এবং দুর্নীতির অভিযোগ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা। বুধবার (৫ ফেব্রুয়ারি)  অধিকার সুরক্ষা পরিষদের উদ্যোগে আয়োজিত  এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন পরিষদের আহ্বায়ক ও বিজনেস স্টাডিজ অনুষদের সাবেক ডিন অধ্যাপক ড. মতিউর রহমান। 

সংবাদ সম্মেলনে রেরোবি শিক্ষকরা | ছবি : সংগৃহীত

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদালয়ের একাডেমিক এবং প্রশাসনিক শৃঙ্খলা ভেঙে পড়েছে। আচার্য ও রাষ্ট্রপতির দেয়া নিয়োগের শর্ত লঙ্ঘন করে উপাচার্য ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ ক্যাম্পাসে দিনের পর দিন অনুপস্থিত থাকছেন। তিনি নিজেই অবৈধভাবে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজনেস স্টাডিজ অনুষদ, সামজিক বিজ্ঞান অনুষদ এবং প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন, সমাজবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান।

‘কোষাধ্যক্ষ ও ড. ওয়াজেদ টেনিং অ্যান্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউটের পরিচালক পদেও রয়েছেন তিনি। তিনি অনুপস্থিত থাকার কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল কাজে স্থবিরতা সৃষ্টি হয়েছে। তিনি একাই অর্ধ-শতাধিক কোর্স পড়ানোর জন্য দায়িত্ব নিলেও কোনো কোর্সেই তিনি পড়ান না। কিন্তু কোর্স পড়ানো বাবদ লাখ লাখ টাকা গ্রহণ করছেন। অনার্স-মাস্টার্স কোর্সের ধারাবাহিক মূল্যায়ন কোর্সের পরীক্ষা গ্রহণ করান কর্মচারীদের মাধ্যমে।’

সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়, এ বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি এবং এমফিল পর্যায়ে ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ একটি সেশনেই ১৪ জনের তত্ত্বাবধায়ক হয়েছেন। চলতি সেশনে আরও ১৪ জনকে নিয়ে থাকলে সংখ্যা প্রায় ২৮ জন হবে। 

বাংলাদেশে এককভাবে এতজন গবেষককে একই সঙ্গে গবেষণা তত্ত্বাবধায়ক হিসেবে কারও থাকার নজির নেই। অবৈধভাবে বিশ্ববিদ্যালয়েলর আইন লঙ্ঘন করে ৭টি বিভাগের প্ল্যানিং কমিটির সদস্য হয়েছেন তিনি। বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কর্মকাণ্ডে তিনি স্মরণকালের ভয়াবহ দুর্নীতি করে চলেছেন।

লিখিত বক্তব্যে জানানো হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ক্যাম্পাসে অবস্থান করেন না। পরিকল্পনা ও উন্নয়ন বিভাগে লে. ক. (অব) প্রকৌশলী মনোয়ারুল ইসলামকে পরিচালক হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। তাকে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকল্প পরিচালকও করা হয়েছে। এছাড়া শিক্ষক-কর্মকর্তা নিয়োগেও উপাচার্য সীমাহীন দুর্নীতি-অনিয়ম করেই চলেছেন। 

এ সময় বেরাবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের সভাপতি অধ্যাপক ড. আবু কালাম মো. ফরিদ উল ইসলাম, সাবেক সভাপতি অধ্যাপক ড. গাজী মাজহারুল আনোয়ার, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি ড. তুহিন ওয়াদুদ, অধিকার সুরক্ষা পরিষদের সদস্য সচিব খায়রুল কবির সুমন, বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি ড. কমলেশ চন্দ্র রায়, সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান, নীল দলের সভাপতি ড. নিত্য ঘোষ, সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান মন্ডল, সাব্বির আহমেদ চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত - dainik shiksha শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত ওয়েটিং লিস্ট থেকে সরকারি স্কুলে ভর্তি শুরু ২১ জানুয়ারি - dainik shiksha ওয়েটিং লিস্ট থেকে সরকারি স্কুলে ভর্তি শুরু ২১ জানুয়ারি উপবৃত্তি : নগদের পোর্টালে শিক্ষার্থীদের তথ্য এন্ট্রি করতে পারেনি বেশিরভাগ স্কুল - dainik shiksha উপবৃত্তি : নগদের পোর্টালে শিক্ষার্থীদের তথ্য এন্ট্রি করতে পারেনি বেশিরভাগ স্কুল এমপিও কমিটির সভা রোববার - dainik shiksha এমপিও কমিটির সভা রোববার অসম্ভব দুর্নীতি সম্ভব করা সেই অধ্যক্ষকে বদলি, শাস্তি নিশ্চিত করার দাবি শিক্ষকদের - dainik shiksha অসম্ভব দুর্নীতি সম্ভব করা সেই অধ্যক্ষকে বদলি, শাস্তি নিশ্চিত করার দাবি শিক্ষকদের এসএসসিতে বৃত্তি পাওয়া শিক্ষার্থীদের তথ্য সফটওয়্যারে অন্তর্ভুক্তি সোমবারের মধ্যে - dainik shiksha এসএসসিতে বৃত্তি পাওয়া শিক্ষার্থীদের তথ্য সফটওয়্যারে অন্তর্ভুক্তি সোমবারের মধ্যে ২০ জানুয়ারির মধ্যে সরকারি স্কুলে লটারিতে চান্স পাওয়া শিক্ষার্থীদের ভর্তি - dainik shiksha ২০ জানুয়ারির মধ্যে সরকারি স্কুলে লটারিতে চান্স পাওয়া শিক্ষার্থীদের ভর্তি ২১ ফেব্রুয়ারির মধ্যে অ্যাডহক নিয়োগের দাবিতে সরকারিকৃত শিক্ষকদের স্মারকলিপি - dainik shiksha ২১ ফেব্রুয়ারির মধ্যে অ্যাডহক নিয়োগের দাবিতে সরকারিকৃত শিক্ষকদের স্মারকলিপি যেসব শিক্ষকের এমপিও জটিলতা কাটলো - dainik shiksha যেসব শিক্ষকের এমপিও জটিলতা কাটলো please click here to view dainikshiksha website