এমপিওভুক্তিতে ভুল : দুই শিক্ষামন্ত্রীর আমলের তুলনামূলক চিত্র - এমপিও - দৈনিকশিক্ষা

এমপিওভুক্তিতে ভুল : দুই শিক্ষামন্ত্রীর আমলের তুলনামূলক চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদক |

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি ও সদ্য সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের গুরুত্বপূর্ণ সাংগঠনিক পদেও আছেন। ২০০৯ থেকে ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত দুই মেয়াদে টানা দশ বছর শিক্ষামন্ত্রী ছিলেন নাহিদ। ২০০৯ খ্রিষ্টাব্দের ৬ জানুয়ারি তাঁকে শিক্ষা ও প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেয়া হয়। একই বছরের সেপ্টেম্বর মাসে তার কাছ থেকে গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় নিয়ে নেয়া হয়। ছয় বছর বিরতির পর ২০১০ খ্রিষ্টাব্দে এক হাজারের বেশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা হয়। তালিকা প্রকাশের পর নানা সমালোচনা ও হইচই হয়। তালিকা তৈরি করেন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা কিন্তু সমালোচনা শুনতে হয় শুধু শিক্ষামন্ত্রী নাহিদকে। তালিকায় ভুলের দায়ে সহকর্মীদের তীব্র সমালোচনা, এমপিওবঞ্চিতদের সড়ক অবরোধ, পুলিশের লাঠিচার্জ, সংবাদপত্র  ও শিক্ষাবিদদের কড়া সমালোচনা সহ্য করা ছাড়াও নানা তিক্ত অভিজ্ঞতা হয়েছে নাহিদের। তাঁর মন্ত্রীত্বকালে আর এমপিওভুক্ত হয়নি। তবে, ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দে এমপিওভুক্তির নীতিমালা তৈরি করে যান। ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দে শিক্ষামন্ত্রীর দায়িত্ব পান দীপু মনি। নাহিদের করা এমপিও নীতিমালার ভিত্তিতে দুই হাজার সাতশ ত্রিশটি প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা হয়। নয় বছরের ব্যবধানে গত ২৩ অক্টোবর তালিকা প্রকাশের পর বেশ কিছু ভুল ও অসঙ্গতি ধরা পড়ে। এবারও কর্মকর্তারা তালিকা তৈরি করেন কিন্তু সমালোচনা শুনতে হচ্ছে শুধু মন্ত্রীকে। 

দুই আমলের দুই তালিকাকে কেন্দ্র করে সংগঠিত নানা ঘটনা নিয়ে একটি তুলনামূলক চিত্র পাঠকের সামনে তুলে ধরছে শিক্ষা বিষয়ক দেশের একমাত্র পত্রিকা দৈনিক শিক্ষাডটকম। দৈনিক শিক্ষার নিজস্ব আর্কাইভে সংরক্ষিত বিভিন্ন পত্র-পত্রিকা ও অন্যান্য সূত্রের ভিত্তিতে তৈরি করা হয়েছে তুলনামূলক চিত্রটি।

প্রথম আলো মে ২০১০ খ্রিষ্টাব্দ 
ইত্তেফাক মে ২০১০  খ্রিষ্টাব্দ 

 

সমকাল মে ২০১০  খ্রিষ্টাব্দ 

 

সমকাল মে ২০১০  খ্রিষ্টাব্দ 
সমকাল মে ২০১০ খ্রিষ্টাব্দ
সমকাল মে ২০১০  খ্রিষ্টাব্দ 
প্রথম আলো মে ২০১০ খ্রিষ্টাব্দ

ইনকিলাব মে ২০১০ খ্রি.
দৈনিক যুগান্তর মে ২০১০  খ্রি. 
ভোরের কাগজ অক্টোবর ২০১৯ খ্রি.
দৈনিক সংবাদ অক্টোবর ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ

 

টিউশন ফি নিতে পারবে মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান - dainik shiksha টিউশন ফি নিতে পারবে মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের বিষয়-গ্রুপ পরিবর্তন ও ভর্তি বাতিলের সুযোগ ১০ এপ্রিল পর্যন্ত - dainik shiksha একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের বিষয়-গ্রুপ পরিবর্তন ও ভর্তি বাতিলের সুযোগ ১০ এপ্রিল পর্যন্ত ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত সব মাদরাসা বন্ধের আদেশ জারি - dainik shiksha ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত সব মাদরাসা বন্ধের আদেশ জারি নগদের পোর্টালে শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির তথ্য এন্ট্রির সুযোগ ২৫ জানুয়ারি পর্যন্ত - dainik shiksha নগদের পোর্টালে শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির তথ্য এন্ট্রির সুযোগ ২৫ জানুয়ারি পর্যন্ত জেএসসির সনদ পেতে অনলাইনে ফরম পূরণ করতে হবে - dainik shiksha জেএসসির সনদ পেতে অনলাইনে ফরম পূরণ করতে হবে জেএসসির সার্টিফিকেট পেতে ফরম পূরণ যেভাবে - dainik shiksha জেএসসির সার্টিফিকেট পেতে ফরম পূরণ যেভাবে শিক্ষক নিয়োগে এনটিআরসিএর ওপর নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়লো - dainik shiksha শিক্ষক নিয়োগে এনটিআরসিএর ওপর নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়লো প্রসঙ্গ এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের অবসরকালীন সুবিধা - dainik shiksha প্রসঙ্গ এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের অবসরকালীন সুবিধা ডিগ্রি পাস কোর্স ২য় বর্ষের পরীক্ষা শুরু ১৩ ফেব্রুয়ারি - dainik shiksha ডিগ্রি পাস কোর্স ২য় বর্ষের পরীক্ষা শুরু ১৩ ফেব্রুয়ারি please click here to view dainikshiksha website