এমপিওভুক্তির দাবিতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকদের অবস্থান - দৈনিকশিক্ষা

এমপিওভুক্তির দাবিতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকদের অবস্থান

দৈনিকশিক্ষা প্রতিবেদক |

এমপিওভুক্তির দাবিতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে মূল ফটকে অবস্থান নিয়েছেন বেসরকারি কলেজের অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকরা। তারা বিভিন্ন কলেজের অনার্স-মাস্টার্সের সাড়ে পাঁচ হাজার শিক্ষককে এমপিওভুক্ত করার দাবি জানাচ্ছেন। 

এ দাবি আদায়ে সোমবার শিক্ষকরা দ্বিতীয় দিনের মতো অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন। তারা দাবি করেছেন, দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি চলবে। ‘বেসরকারি কলেজ অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষক ফেডারেশন’ নামের একটি সংগঠনের ব্যানারে এ কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে।

সোমবার রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করে সংগঠনের সভাপতি হারুন-অর-রশিদ দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, সাড়ে পাঁচ হাজার অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষককে এমপিওভুক্ত করার দাবিতে আমরা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকে অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেছি। রোববার থেকে এ কর্মসূচি শুরু হয়েছে। আমরা শিক্ষকরা রাত দিন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে মূলফটকে অবস্থান নিয়েছি। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত অবস্থান কর্মসূচি চলবে। 

এক প্রশ্নে জবাবে তিনি আরো বলেন, গতকাল রোববার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য স্যার আমাদের সঙ্গে বসেছিলেন। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে তিনি দায় এড়ানোর চেষ্টা করেছেন। আমরা বলেছি, সরকারি হওয়া কলেজের অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকরা অ্যাডহক নিয়োগ পাচ্ছেন, আমরা অযোগ্য নই। কিন্তু তিনি আমাদের দাবির বিষয়ে আশানরূপ কিছু বলেননি।   

অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকরা বলছেন, এমপিও নীতিমালায় তাদের এমপিওভুক্তির কোনো নির্দেশনা নেই। অপর দিকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ও এ বিষয়ে কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না। সারাদেশের সাড়ে ৫ হাজার শিক্ষক তাই বিনাবেতনে বা স্বল্প বেতনে কর্মরত আছেন। এমপিওভুক্ত হতে না পারায় শিক্ষকরা মানবেতর জীবনযাপন করছেন। এ শিক্ষকরা সবাই এনটিআরসিএর দেয়া শিক্ষক নিবন্ধন সনদধারী। এ সাড়ে ৫ হাজার শিক্ষককে এমপিওভুক্ত করতে ১৪৪ কোটি টাকা প্রয়োজন হবে বলেও জানিয়েছেন তারা। অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকরা তাদের এমপিওভুক্ত করতে সরকার ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

ঘুষ নেয়া সাংবাদিকদের নাম জানালেন শিক্ষাবোর্ডের সিস্টেম এনালিস্ট - dainik shiksha ঘুষ নেয়া সাংবাদিকদের নাম জানালেন শিক্ষাবোর্ডের সিস্টেম এনালিস্ট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি আরো বাড়তে পারে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি আরো বাড়তে পারে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের তৃতীয় ধাপের ফল প্রকাশ - dainik shiksha প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের তৃতীয় ধাপের ফল প্রকাশ আড়াই কোটি টাকা হাতানো, শিক্ষার ডিজিকে উকিল নোটিস - dainik shiksha আড়াই কোটি টাকা হাতানো, শিক্ষার ডিজিকে উকিল নোটিস তীব্র তাপপ্রবাহে ঢাবির সব ক্লাস অনলাইনে, পরীক্ষা সশরীরে - dainik shiksha তীব্র তাপপ্রবাহে ঢাবির সব ক্লাস অনলাইনে, পরীক্ষা সশরীরে ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল বন্ধ রাখার নির্দেশ - dainik shiksha ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল বন্ধ রাখার নির্দেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানের স্ত্রী গ্রেফতার - dainik shiksha কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানের স্ত্রী গ্রেফতার এইচএসসির ফরম পূরণের সময় বৃদ্ধি - dainik shiksha এইচএসসির ফরম পূরণের সময় বৃদ্ধি এমপিও শিক্ষকরাও সর্বজনীন পেনশনে - dainik shiksha এমপিও শিক্ষকরাও সর্বজনীন পেনশনে কওমি মাদরাসা : একটি অসমাপ্ত প্রকাশনা গ্রন্থটি এখন বাজারে - dainik shiksha কওমি মাদরাসা : একটি অসমাপ্ত প্রকাশনা গ্রন্থটি এখন বাজারে দৈনিক শিক্ষার নামে একাধিক ভুয়া পেজ-গ্রুপ ফেসবুকে - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষার নামে একাধিক ভুয়া পেজ-গ্রুপ ফেসবুকে please click here to view dainikshiksha website Execution time: 0.0093371868133545