এরশাদের মৃত্যুবার্ষিকীর দিন উপনির্বাচন, জাপার আপত্তি - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

এরশাদের মৃত্যুবার্ষিকীর দিন উপনির্বাচন, জাপার আপত্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক |

জাতীয় পার্টির (জাপা) প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদের মৃত্যুবার্ষিকীর দিনে তিনটি সংসদীয় আসনে উপনির্বাচনে ভোট গ্রহণের তারিখ নির্ধারণে আপত্তি জানিয়েছে দলটি। ভোটের তারিখ পরিবর্তনের দাবি জানিয়ে আজ মঙ্গলবার দলটি প্রধান নির্বাচন কমিশনারকে (সিইসি) স্মারকলিপি দিয়েছে।

জাতীয় পার্টির মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল মঙ্গলবার আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে সিইসি কে এম নূরুল হুদার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে স্মারকলিপি দেয়।

ইসির ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, ঢাকা-১৪, কুমিল্লা-৫ ও সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচনের ভোট গ্রহণ করা হবে ১৪ জুলাই। ২০১৯ সালের এই দিনে এরশাদের মৃত্যু হয়।

সিইসির সঙ্গে বৈঠক শেষে জিয়াউদ্দিন আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, আগামী ১৪ জুলাই জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী। সেদিন তিনটি জাতীয় সংসদের উপনির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। এদিন দলের নেতা–কর্মীরা নির্বাচন করার জন্য মানসিকভাবে প্রস্তুত থাকবেন না। বিষয়টি তাঁরা সিইসিকে জানিয়েছেন। সিইসি তাঁদের জানিয়েছেন, কমিশন বসে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে।

জিয়াউদ্দিন আহমেদের সই করা স্মারকলিপিতে বলা হয়, গত বছর এইচ এম এরশাদের মৃত্যুবার্ষিকীর দিন ১৪ জুলাই বগুড়া-১ ও যশোর-৬ আসনে উপনির্বাচন দেওয়া হয়ছিল। তখন তারা প্রতিবাদ জানালে কমিশন থেকে বলা হয়েছিল, বিষয়টি জানা ছিল না। দুঃখের বিষয় এবারও একই দিনে ঢাকা-১৪, কুমিল্লা-৫ ও সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে। এইচ এম এরশাদ দেশের সাবেক রাষ্ট্রপতি, সাবেক সেনাপ্রধান ও সংসদে বিরোধী দলীয় নেতা ছিলেন। তাঁর প্রতিষ্ঠিত জাতীয় পার্টি এ দেশে দীর্ঘ সময় রাষ্ট্রক্ষমতায় ছিল। জাতীয় পার্টি এখন সংসদে প্রধান বিরোধী দলের ভূমিকা পালন করছে। এ অবস্থায় ১৪ জুলাই উপনির্বাচন করা খুবই দুঃখজনক ও বেদনাদায়ক।

৪৩ লাখ শিক্ষার্থীর টিউশন ফি-উপবৃত্তির হাজার কোটি টাকা বিতরণ শুরু - dainik shiksha ৪৩ লাখ শিক্ষার্থীর টিউশন ফি-উপবৃত্তির হাজার কোটি টাকা বিতরণ শুরু এসএসসি-এইসএসসি পরীক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত শিগগির : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha এসএসসি-এইসএসসি পরীক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত শিগগির : শিক্ষামন্ত্রী দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে ‘শিক্ষক-অভিভাবক’ সমাবেশ ২৬ জুন - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে ‘শিক্ষক-অভিভাবক’ সমাবেশ ২৬ জুন এনজিওর হাতে যাচ্ছে সরকারি হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা! - dainik shiksha এনজিওর হাতে যাচ্ছে সরকারি হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা! বিলের মধ্যে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্র: এক চিঠিতেই আটকে গেল ভূমি অধিগ্রহণ - dainik shiksha বিলের মধ্যে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্র: এক চিঠিতেই আটকে গেল ভূমি অধিগ্রহণ ঢাকার রাস্তায় প্রাইভেট ক্যামেরা, ফুটেজের ব্যবসা! - dainik shiksha ঢাকার রাস্তায় প্রাইভেট ক্যামেরা, ফুটেজের ব্যবসা! নির্মাণাধীন ম্যাটসে মেঝে ভরাটে বালুর পরির্বতে মাটি - dainik shiksha নির্মাণাধীন ম্যাটসে মেঝে ভরাটে বালুর পরির্বতে মাটি উচ্চশিক্ষার ক্ষতি পোষাতে শিক্ষাবর্ষের সময় কমানো ও ছুটি বাতিলের পরামর্শ - dainik shiksha উচ্চশিক্ষার ক্ষতি পোষাতে শিক্ষাবর্ষের সময় কমানো ও ছুটি বাতিলের পরামর্শ please click here to view dainikshiksha website