এসএসসির প্রস্তুতিমূলক পরীক্ষা : ‘অল্প কিছু’ ফি নিতে পারবে স্কুলগুলো - এসএসসি/দাখিল - দৈনিকশিক্ষা

এসএসসির প্রস্তুতিমূলক পরীক্ষা : ‘অল্প কিছু’ ফি নিতে পারবে স্কুলগুলো

নিজস্ব প্রতিবেদক |

চলতি বছরের এসএসসি পরীক্ষার আগে পরীক্ষার্থীদের প্রস্তুতিমূলক পরীক্ষায় বসতে হচ্ছে। আগামী ১৯ মে থেকে স্কুলগুলো এসএসসি পরীক্ষার্থীদের প্রস্তুতিমূলক পরীক্ষা নেবে। এ পরীক্ষার জন্য স্কুলগুলো শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ‘অল্প কিছু’ ফি আদায় করতে পারবে বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা বোর্ডের কর্মকর্তারা। তারা বলছেন, প্রস্তুতিমূলক পরীক্ষা আয়োজনে উত্তরপত্র ও প্রশ্ন তৈরির খরচ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে নিতে পারবে। তবে, ঢালাওভাবে অতিরিক্ত ফি আদায় করা হলে প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে বোর্ড।

 

বৃহস্পতিবার দুপুরে দৈনিক শিক্ষাডটকমের পক্ষ থেকে করা এক প্রশ্নের জবাবে এ মন্তব্য করেন ঢাকা বোর্ডের চেয়ারম্যান (রুটিন দায়িত্ব) অধ্যাপক তপন কুমার সরকার। 

জানা গেছে, এসএসসি পরীক্ষা আয়োজনের সব প্রস্তুতি শেষ করেছে শিক্ষা বোর্ডগুলো। আগামী ১৯ জুন থেকে এ পরীক্ষা শুরু হচ্ছে। ইতোমধ্যে পরীক্ষার সূচিও প্রকাশ করা হয়েছে। প্রশ্ন তৈরি হয়ে তা পৌঁছে গেছে জেলায় জেলায়। ফরম পূরণও শেষ হয়েছে। প্রচলিতভাবে এসএসসির ফরম পূরণের আগে শিক্ষার্থীদের নির্বাাচনী বা টেস্ট পরীক্ষায় বসতে হলেও এ বছর তা নেয়া হয়নি। তবে, ফরম পূরণের পর শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতিমূলক পরীক্ষা নেয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। বোর্ডের নির্দেশনা অনুসারে ১৯ মে থেকে এ পরীক্ষা শুরু হবে। 

এ প্রস্তুতিমূলক পরীক্ষা আয়োজনের জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে কোনো ফি নিতে পারবে কী-না জানতে চাইলে অধ্যাপক তপন কুমার সরকার দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, পরীক্ষা আয়োজনের একটা খরচ আছে, যেমন প্রশ্নপত্রের খরচ, উত্তরপত্রের খরচ। এ খরচ মেটাকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ‘অল্প কিছু’ ফি আদায় করতে পারবে। পরীক্ষা আয়োজনের খরচ টুকু। কিন্তু ঢালাওভাবে অতিরিক্ত ফি নিতে পারবে না। 

তিনি আরও বলেন, প্রস্তুতিমূলক পরীক্ষার জন্য সামান্য কিছু ফি নিতে পারবে। তবে যেভাবে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে শতশত টাকা আদায় করা হয়, এটি তেমন হবে না। ফি হবে খরচ বাবদ খুব সামান্য। তবে, কেউ যদি শতশত টাকা দাবি করে শিক্ষার্থীদের জিম্মি করে তাহলে বোর্ডকে জানাতে হবে, বোর্ড ব্যবস্থা নেবে।

 

এসএসসি পরীক্ষার প্রস্তুতি সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি আরও বলেন, এসএসসির প্রস্তুতি শেষ। আমরা পরীক্ষা নিতে প্রস্তুত। বিজি প্রেস থেকে প্রশ্ন তৈরি হয়ে জেলায় জেলায় চলে গেছে। উত্তরপত্রও যাচ্ছে। সূচি ইতোমধ্যে প্রকাশিত হয়েছে। আর শিক্ষার্থীদের সিলেবাসও আশা করি স্কুলগুলো শেষ করে ফেলেছে। আশা করছি সুষ্ঠু ও স্বাভাবিক পরিবেশে চলতি বছরের এসএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। 

আগামী ১৯ জুন এসএসসি পরীক্ষা শুরু হবে। এসএসসির তত্ত্বীয় বিষয়ের পরীক্ষা শেষ হবে ৬ জুলাই। আর ব্যবহারিক পরীক্ষা ১৩ থেকে ১৯ জুলাইয়ের মধ্যে শেষ করতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

এসএসসিতে যেসব বিষয়ে পরীক্ষা হবে সেগুলো হলো, বাংলা, ইংরেজি, গণিত, পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, উচ্চতর গণিত, জীববিজ্ঞান, হিসাববিজ্ঞান, ব্যবসায় উদ্যোগ, ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং, বাংলাদেশের ইতিহাস ও বিশ্ব সভ্যতা, ভূগোল ও পরিবেশ, পৌরনীতি ও নাগরিকতা, অর্থনীতি, গার্হস্থ্য বিজ্ঞান এবং কৃষি শিক্ষা। বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগভেদে এসব বিষয় বিভাজন হয়। এসএসসিতে যে বিষয়গুলোতে সাবজেক্ট ম্যাপিং হবে তা হলো, ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা, তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি, বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় এবং বিজ্ঞান। বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় এবং বিজ্ঞান বিভাগভেদে বিভাজন হয়। এসএসসি পরীক্ষার সময় হবে দুই ঘণ্টা। শুধু ইংরেজি প্রথম ও ইংরেজি দ্বিতীয় পত্র পরীক্ষা হবে ৫০ নম্বরে। বাকি ব্যবহারিক সম্বলিত বিষয়গুলোতে ৪৫ নম্বর ও ব্যবহারিক ছাড়া বিষয়গুলেতে ৫৫ নম্বরে পরীক্ষা হবে। 

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে সয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল  SUBSCRIBE  করতে ক্লিক করুন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়-ইউজিসির ১২ কর্মকর্তার বিদেশ সফর বাতিল - dainik shiksha শিক্ষা মন্ত্রণালয়-ইউজিসির ১২ কর্মকর্তার বিদেশ সফর বাতিল প্রশ্নফাঁসে শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তারাই জড়িত, দুজনকে খুঁজছে পুলিশ - dainik shiksha প্রশ্নফাঁসে শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তারাই জড়িত, দুজনকে খুঁজছে পুলিশ পাঠ্যবইয়ে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে সিনথেটিক ড্রাগসের ভয়াবহতা - dainik shiksha পাঠ্যবইয়ে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে সিনথেটিক ড্রাগসের ভয়াবহতা প্রভাষকদের পদোন্নতি কমিটির সভাপতি হবেন ডিসিরা - dainik shiksha প্রভাষকদের পদোন্নতি কমিটির সভাপতি হবেন ডিসিরা টানা বর্ষণে সিলেটে বন্যা, বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ - dainik shiksha টানা বর্ষণে সিলেটে বন্যা, বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ড্রাইভারকে দেয়া হচ্ছে উপসচিবের সমান বেতন - dainik shiksha ড্রাইভারকে দেয়া হচ্ছে উপসচিবের সমান বেতন ঢাকা ও চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে নতুন চেয়ারম্যান - dainik shiksha ঢাকা ও চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে নতুন চেয়ারম্যান please click here to view dainikshiksha website