এসএসসির শেষ দিনে অনুপস্থিত সাড়ে ২৩ হাজার - পরীক্ষা - দৈনিকশিক্ষা

এসএসসির শেষ দিনে অনুপস্থিত সাড়ে ২৩ হাজার

নিজস্ব প্রতিবেদক |

এসএসসির তত্ত্বীয় পরীক্ষা শেষ হয়েছে। এসএসসির শেষ দিনে মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) সকালে পৌরনীতি ও নাগরিকতা এবং অর্থনীতি বিষয়ের এবং দুপুরে ব্যবসায় উদ্যোগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। শেষ দিনে মোট ২৩ হাজার ৬১৭ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিলেন। এদিন দুইজন পরীক্ষার্থী বহিষ্কৃত হয়েছেন। 

মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) সকালে সারাদেশের ২ হাজার ২০০টি কেন্দ্রে এসএসসির পৌরনীতি ও নাগরিকতা ও অর্থনীতি বিষয়ের পরীক্ষা ও দুপুরে ব্যবসায় উদ্যোগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। সন্ধ্যায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কন্ট্রোলরুম থেকে বিষয়টি দৈনিক শিক্ষাডটকমকে নিশ্চিত করা হয়।

জানা গেছে, পৌরনীতি ও নাগরিকতা ও অর্থনীতি পরীক্ষায় মোট ৭ লাখ ৯৬ হাজার ৪৬৬ জন পরীক্ষার্থীর অংশ নেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এ পরীক্ষায় অংশ নেন ৭ লাখ ৮০ হাজার ৬২৯ জন পরীক্ষার্থী। অনুপস্থিত ছিলেন  ১৫ হাজার ৮৩৭ জন পরীক্ষার্থী। এ পরীক্ষায় ঢাকা বোর্ডে ৩ হাজার ৯৯০ জন, চট্টগ্রাম বোর্ডের ১ হাজার ৪৫৯ জন, রাজশাহী বোর্ডে ১ হাজার ৫৭৯ জন, বরিশাল বোর্ডের ১ হাজার ২৪৪ জন, সিলেট বোর্ডের ১ হাজার ৩৯২ জন, দিনাজপুর বোর্ডের ১ হাজার ২৫০ জন, কুমিল্লা বোর্ডের ২ হাজার ৭১ জন, ময়মনসিংহ বোর্ডের ১ হাজার ৮০ জন এবং যশোর বোর্ডের ১ হাজার ৭৭২ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিলেন। এ পরীক্ষায় ঢাকা বোর্ডের দুইজন পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে।
 
এদিকে ব্যবসায় উদ্যোগ পরীক্ষায় মোট ৫ লাখ ২২ হাজার ৮২৬ জন পরীক্ষার্থীর অংশ নেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এ পরীক্ষায় অংশ নেন ৫ লাখ ১৫ হাজার ৪৬ জন পরীক্ষার্থী। অনুপস্থিত ছিলেন ৭ হাজার ৭৮০ জন পরীক্ষার্থী। এ পরীক্ষায় ঢাকা বোর্ডে ১ হাজার ৯০৪ জন, চট্টগ্রাম বোর্ডের ৮৬৫ জন, রাজশাহী বোর্ডে ১ হাজার ৬৫৯ জন, বরিশাল বোর্ডের ২৬২ জন, সিলেট বোর্ডের ১০৬ জন, দিনাজপুর বোর্ডের ১ হাজার ২৮১ জন, কুমিল্লা বোর্ডের ১ হাজার ৩২৮ জন, ময়মনসিংহ বোর্ডের ১৩১ জন এবং যশোর বোর্ডের ২৪৪ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিলেন। এ পরীক্ষায় কোনো শিক্ষার্থী বহিষ্কৃত হয়নি। 

১৪ নভেম্বর থেকে এসএসসির লিখিত পরীক্ষা শুরু হয়ে ২৩ নভেম্বর তা শেষ হলো। আর ২৮ নভেম্বরের মধ্যে এসএসসির ব্যবহারিক পরীক্ষা শেষ করতে বলা হয়েছে।  চলতি বছর এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ২২ লাখ ২৭ হাজার ১১৩ জন পরীক্ষার্থীর অংশ  নিয়েছে।

একাদশের শিক্ষার্থীদের গ্রুপ-ভার্সন পরিবর্তন ও টিসি কার্যক্রম ১৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত - dainik shiksha একাদশের শিক্ষার্থীদের গ্রুপ-ভার্সন পরিবর্তন ও টিসি কার্যক্রম ১৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাংলাদেশের উন্নয়নশীল দেশে উত্তোরণে জাতিসংঘের প্রস্তাব মহান অর্জন: প্রধানমন্ত্রী - dainik shiksha বাংলাদেশের উন্নয়নশীল দেশে উত্তোরণে জাতিসংঘের প্রস্তাব মহান অর্জন: প্রধানমন্ত্রী মাদরাসা গেইটের সামনের দোকান না রাখার নির্দেশ - dainik shiksha মাদরাসা গেইটের সামনের দোকান না রাখার নির্দেশ স্বপদে বহাল রেখে শিক্ষক ফারহানাকে শাস্তি দিল কর্তৃপক্ষ - dainik shiksha স্বপদে বহাল রেখে শিক্ষক ফারহানাকে শাস্তি দিল কর্তৃপক্ষ ৪৪ সরকারি কলেজে নতুন উপাধ্যক্ষ - dainik shiksha ৪৪ সরকারি কলেজে নতুন উপাধ্যক্ষ সেই শিক্ষককে দীর্ঘদিন চিকিৎসা নিতে হবে - dainik shiksha সেই শিক্ষককে দীর্ঘদিন চিকিৎসা নিতে হবে দৈনিক শিক্ষাডটকম পরিবারের প্রিন্ট পত্রিকা ‘দৈনিক আমাদের বার্তা’ - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষাডটকম পরিবারের প্রিন্ট পত্রিকা ‘দৈনিক আমাদের বার্তা’ please click here to view dainikshiksha website