এসএসসি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্টের নম্বর এন্ট্রি ১৬ সেপ্টেম্বর থেকে - স্কুল - দৈনিকশিক্ষা

এসএসসি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্টের নম্বর এন্ট্রি ১৬ সেপ্টেম্বর থেকে

নিজস্ব প্রতিবেদক |

২০২১ খ্রিষ্টাব্দের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট প্রাপ্ত নম্বর পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে ঢাকা বোর্ড। আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর থেকে ২০২১ খ্রিষ্টাব্দের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্টর নম্বর এন্ট্রি শুরু হবে। আগামী ২১ অক্টোবর পর্যন্ত তথ্য অন্তর্ভুক্ত করতে পারবেন প্রতিষ্ঠান প্রধানরা। বোর্ডের ওয়েবসাইটে নির্ধারিত প্যানেলে লগইন করে প্রতিষ্ঠান প্রধান ও শিক্ষকদের তথ্য এন্ট্রি করতে হবে। ঢাকা বোর্ড থেকে বিষয়টি জানিয়ে নম্বর এন্ট্রি বিষয়ে নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। 

জানা গেছে, আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর থেকে ২৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ১ম, ২য় ও ৩য় সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্টর নম্বর এন্ট্রি করতে হবে। ৭ অক্টোবর থেকে ১৩ অক্টোবর পর্যন্ত ৪র্থ ও ৫ম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্টর নম্বর এন্ট্রি করতে হবে। আর ১৪ অক্টোবর থেকে ২১ অক্টোবর পর্যন্ত চলতি বছরের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের ৬ষ্ঠ, ৭ম, ৮ম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্টের নম্বর এন্ট্রি করতে হবে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন ঢাকা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক এস এম আমিরুল ইসলাম দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানান, চলতি বছরের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্টের নম্বর এন্ট্রি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। শিক্ষকরা ও প্রতিষ্ঠান প্রধানরা বোর্ডের দেওয়া নির্দেশনা অনুসারে তথ্য অন্তর্ভুক্ত করতে পারবেন। 

যেভাবে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের নম্বর এন্ট্রি : 

যেভাবে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের নম্বর এন্ট্রি করতে হবে তার বিস্তারিত পদ্ধতি নির্দেশনায় তুলে ধরেছে ঢাকা বোর্ড। বোর্ড থেকে দেওয়া নির্দেশনা বলা হয়েছে:

১. প্রতিটি প্রতিষ্ঠানকেই বোর্ডের ওয়েবসাইটে (www.dhakaeducationboard.gov.bd) ওইএমএস (OEMS) প্যানেলের মাধ্যমে লগইন করে অ্যাসাইনমেন্ট এন্ট্রি প্যানেলে (Assignment Entry Panel) প্রবেশ করতে হবে। 

২. সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে অ্যাসাইনমেন্টর বিষয়ভিত্তিক ফাঁকা নম্বরফর্দ প্রিন্ট করে দায়িত্বপ্রাপ্ত নির্ধারিত শিক্ষককে তার অংশ সরবরাহ করতে হবে।

৩. ফাঁকা নম্বরফর্দে শিক্ষার্থীর নাম, রেজিস্ট্রেশন নম্বর থাকবে। দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষককে ইতোমধ্যে শিক্ষার্থী যে অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিয়েছে সেই অ্যাসাইনমেন্টে শিক্ষার্থীর নাম, রেজিস্ট্রেশন নম্বর নিশ্চিত হয়ে অ্যাসাইনমেন্টের টপ শিটে এসএসসির রোল নম্বর লেখার জন্য নির্ধারিত ফাঁকা ঘরে মোটা কালির কলম দিয়ে (লাল কালির সাইনপেন ব্যবহার করলে ভালো হবে) এসএসসির রোল নম্বর লিখতে হবে।

৪. বিষয়ভিত্তিক প্রতিটি অ্যাসাইনমেন্টর জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত সংশ্লিষ্ট শিক্ষককে বরাদ্দকৃত অ্যাসাইনমেন্টে একই নিয়মে রোল নম্বর তুলতে হবে। একইভাবে ১ থেকে ৮ টি পর্যন্ত প্রতিটি অ্যাসাইনমেন্টের টপশিটে রোল নম্বর তুলতে হবে। 

৫. প্রতিটি অ্যাসাইনমেন্টে উপরোক্ত কাজগুলো করতে হবে। একটি অ্যাসাইনমেন্টের মূল্যায়ন ও রোল নম্বর বসানো শেষ হলে অ্যাসাইনমেন্টেগুলো রোল নম্বর অনুযায়ী ক্রমানুসারে সাজিয়ে রাখতে হবে।

৬. দায়িত্বপ্রাপ্ত সংশ্লিষ্ট শিক্ষক অ্যাসাইনমেন্টের বিষয়ভিত্তিক ফাঁকা নম্বর ফর্দে রোল নম্বর, রেজিস্ট্রেশন নম্বর, নাম ইত্যাদি সতর্কতার সাথে মিলিয়ে লাল কালির বল পয়েন্ট কলম ব্যবহার করে সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীর অ্যাসাইনমেন্টর ১ থেকে ৮ পর্যন্ত প্রতিটি অ্যাসাইনমেন্টের নম্বর আলাদা আলাদাভাবে তুলতে হবে। 

৭. নম্বর ফর্দে অ্যাসাইনমেন্টের নম্বর তোলা শেষ হওয়ার পর প্রতিটি পৃষ্ঠায় নিধারিত স্থানে সংশ্লিষ্ট শিক্ষককে স্বাক্ষর দিয়ে প্রতিষ্ঠান প্রধানের কাছে জমা দিতে হবে। উল্লেখ্য, সংশোধনের প্রয়োজন হলে ঘষামাজা বা ফ্লুয়িড ব্যবহার না করে, এক টান দিয়ে কেটে সংশোধন করতে করে স্বাক্ষর দিতে হবে।

৮. প্রতিষ্ঠিান প্রধান সংশ্লিষ্ট শিক্ষক কর্তৃক সরবরাহকৃত নম্বর ফর্দে প্রতি পৃষ্ঠায় স্বাক্ষর করবেন এবং তার প্রতিনিধির মাধ্যমে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইটে অ্যাসাইনমেন্ট মার্কস্ এন্ট্রি প্যানেলে এন্ট্রি করবেন। এক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট শিক্ষকও উপস্থিত থেকে প্রয়োজনে এন্ট্রির কাজে সহযোগিতা করতে হবে। 

৯. প্রতিটি অ্যাসাইনমেন্টের নম্বর এন্ট্রি শেষ হলে প্রাথমিক তালিকা (Temporary List) প্রিন্ট করতে হবে এবং সংশ্লিষ্ট শিক্ষক পুনরায় যাচাই করে কোন সংশোধন থাকলে লাল কালির কলম ব্যবহার করে তা সংশোধন করবেন এবং স্বাক্ষর করবেন। কোন সংশোধন থাকলে সংশ্লিষ্ট শিক্ষককে নিজ দায়িত্বে পুনরায় প্যানেলের মাধ্যমে সংশোধন করতে হবে।

১০. সংশোধন শেষে ফাইনাল সাবমিট (Final Submit) বাটনে ক্লিক করে করে একটি অ্যাসাইনমেন্টের নম্বর এন্ট্রি কার্যক্রম শেষ করতে হবে। উল্লেখ্য, ফাইনাল সাবমিট দেওয়ার পর আর সংশোধনের সুযোগ থাকবে না। একটি অ্যাসাইনমেন্টের নম্বর এন্ট্রি শেষ হলে সংশ্লিষ্ট শিক্ষককে নম্বর ফর্ম ফেরত দিতে হবে। 

১১. এ নিয়মে সবগুলো অ্যাসাইনমেন্টের নম্বর এন্ট্রি শেষ হলে ফাইনাল সাবমিট করে চূড়ান্ত প্রিন্ট আউট (Final Print) নিয়ে প্রতি পৃষ্ঠায় স্বাক্ষর করে এক কপি প্রতিষ্ঠান প্রধান সংরক্ষণ করবেন এবং মূল কপি সংশ্লিষ্ট শিক্ষক সংরক্ষণ করবেন।

১২.বোর্ড থেকে যেকোনো অ্যাসাইনমেন্ট পুনঃনিরীক্ষণ বা পুনঃমূল্যায়নের জন্য চাইলে সংশ্লিষ্ট শিক্ষকের কাছে সংরক্ষিত অ্যাসাইনমেন্ট এবং নম্বর ফর্দের সংশ্লিষ্ট পৃষ্ঠার স্বাক্ষরিত কপি বোর্ডে নির্ধারিত সময়ে জমা দিবেন। উল্লেখ্য সংরক্ষিত অ্যাসাইনমেন্ট এবং নম্বর ফর্দ বোর্ডে জমা দেওয়ার সময় চাহিত অ্যাসাইনমেন্ট কোন অবস্থায় পুনঃমূল্যায়ন করা যাবে না।

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল   SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

শিক্ষার্থীদের নিয়ে উদযাপন করা হবে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী : মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী - dainik shiksha শিক্ষার্থীদের নিয়ে উদযাপন করা হবে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী : মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তাদের ওপর ফের চড়াও রাজশাহী বোর্ড কর্মচারীরা - dainik shiksha শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তাদের ওপর ফের চড়াও রাজশাহী বোর্ড কর্মচারীরা ঢাবির হল খুলছে ৫ অক্টোবর - dainik shiksha ঢাবির হল খুলছে ৫ অক্টোবর এসএসসি পরীক্ষা শুরু নভেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে - dainik shiksha এসএসসি পরীক্ষা শুরু নভেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে আন্দোলনের ভয়ে বিশ্ববিদ্যালয় খুলছে না এ বক্তব্য হাস্যকর : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha আন্দোলনের ভয়ে বিশ্ববিদ্যালয় খুলছে না এ বক্তব্য হাস্যকর : শিক্ষামন্ত্রী ১২ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের টিকার আওতায় আনা হবে : প্রধানমন্ত্রী - dainik shiksha ১২ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের টিকার আওতায় আনা হবে : প্রধানমন্ত্রী উপসচিবের বিরুদ্ধে শিক্ষিকার ধর্ষণ মামলা - dainik shiksha উপসচিবের বিরুদ্ধে শিক্ষিকার ধর্ষণ মামলা অবৈধ সম্পদ অর্জন : সাবেক শিক্ষা প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা - dainik shiksha অবৈধ সম্পদ অর্জন : সাবেক শিক্ষা প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা please click here to view dainikshiksha website