করোনায় মারা গেলেন আদ্-দ্বীন মেডিকেল কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ডা. আশরাফ - কলেজ - দৈনিকশিক্ষা

করোনায় মারা গেলেন আদ্-দ্বীন মেডিকেল কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ডা. আশরাফ

নিজস্ব প্রতিবেদক |

বিশিষ্ট চিকিৎসা শিক্ষাবিদ ও সার্জারি বিশেষজ্ঞ ও আদ্-দ্বীন উইমেন্স মেডিকেল কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. আবু আহমেদ আশরাফ আলী ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। গতকাল শনিবার (১৭ এপ্রিল) রাত ১০ টা ৪০ মিনেটে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। করোনা আক্রান্ত হয়ে সেখানে চিকিৎসাধীন ছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭০ বছর।

তাঁর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন আদ্-দ্বীন ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা ও আদ্-দ্বীন ওয়েলফেয়ার সেন্টারের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মুহাম্মদ আব্দুস সবুর ও আদ্-দ্বীন ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক ডা. শেখ মহিউদ্দিন।

বরেণ্য এ চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর ২ এপ্রিল আদ্-দ্বীন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে ৩ এপ্রিল তাকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি করা হয়। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি সেখানেই চিকিৎসাধীন ছিলেন। 

রোববার (১৮ এপ্রিল) বনানী কবরস্থানে বাদ জোহর জানাজা শেষে বিশিষ্ট এ চিকিৎসা শিক্ষাবিদকে সমাহিত করা হয়। অধ্যাপক ডা: আশরাফ আলীর মৃত্যুতে তার শেষ কর্মস্থল আদ্-দ্বীন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

ডা. আশরাফ আলী ১৯৫১ খ্রিষ্টাব্দে নওগাঁ জেলার পত্নীতলা থানার মোধাইল গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবার নাম ইউসুফ আলী এবং মায়ের নাম আয়েশা বেগম। গ্রামের স্কুলে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত লেখাপড়া শেষে তিনি নওগাঁ কে ডি হাইস্কুল থেকে বিজ্ঞান শাখা থেকে এসএসসি পাস করেন। পরে ১৯৬৭ খ্রিষ্টাব্দে নওগাঁর বিএমসি কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন। একই বছর ভর্তি হন রাজশাহী মেডিকেল কলেজে। চিকিৎসা বিজ্ঞানের একজন মেধাবী ছাত্র হিসেবে ১৯৭২ খ্রিষ্টাব্দে এমবিবিএস পরীক্ষায় মেধা তালিকায় প্রথম স্থান অধিকার করেন। মেডিকেল কলেজের ডিগ্রি অর্জনের পর তিনি রাজশাহীর ভোলাহাট থানায় স্বাস্থ্য প্রশাসক হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। পরবর্তীতে তিনি ১৯৮০ খ্রিষ্টাব্দে এফসিপিএস পাস করেন। পরে তিনি মাগুরা, ফরিদপুর, যশোর জেনারেল হাসপাতালে সিনিয়র সার্জন হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া তিনি পূর্বের পিজি হাসপাতাল, বরিশাল মেডিকেল কলেজ হাপাতাল এবং রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতেলে দায়িত্ব পালন করেন এবং ১৯৯৩ খ্রিষ্টাব্দে অধ্যাপক হিসেবে পদোন্নতি লাভ করেন।

অধ্যাপক ডা. আশরাফ আলী ১৯৯৭ খ্রিষ্টাব্দে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজে প্রকল্প পরিচাল ও অধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগ পান। ১৯৯৮ খ্রিষ্টাব্দে স্যার সলিমুল্লা মেডিকেল কলেজে সার্জারি বিভাগে অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান হিসেবে যোগদান করেন। পরে তিনি ২০০২ খ্রিষ্টাব্দে ঢাকা মেডিকেল কলেজে বদলি হন এবং সার্জারি বিভাগের প্রধানের দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৮ খ্রিষ্টাব্দে তিনি সরকারি চাকরি থেকে অবসরে যান।

সরকারি চাকরি থেকে অবসরে যাওয়ার পর ২০০৮ খ্রিষ্টাব্দে আদ্-দ্বীন উইমেন্স মেডিকেল কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ ও সার্জারি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান হিসেবে যোগদান করেন।

মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি আদ্-দ্বীন ফাউন্ডেশন পরিচালিত আদ্-দ্বীন মেডিকেল কলেজ অধ্যক্ষদের উপদেষ্টা এবং আদ্-দ্বীন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের বিশেষজ্ঞ সার্জন হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

ঈদের ছুটিতে কর্মস্থলেই থাকতে হবে সব চাকরিজীবীদের - dainik shiksha ঈদের ছুটিতে কর্মস্থলেই থাকতে হবে সব চাকরিজীবীদের পরিস্থিতির উন্নতি না হলে ১ জুলাই থেকে অনলাইনে ঢাবির চূড়ান্ত পরীক্ষা - dainik shiksha পরিস্থিতির উন্নতি না হলে ১ জুলাই থেকে অনলাইনে ঢাবির চূড়ান্ত পরীক্ষা সরকারি চাকরিতে আবেদনে বয়সে ছাড় আসছে - dainik shiksha সরকারি চাকরিতে আবেদনে বয়সে ছাড় আসছে কওমি মাদরাসাকে মূলধারায় নিয়ে আসা প্রয়োজন : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha কওমি মাদরাসাকে মূলধারায় নিয়ে আসা প্রয়োজন : শিক্ষামন্ত্রী শিক্ষামন্ত্রীকে ভুল বুঝিয়ে সাড়ে ৫ লাখ টাকা করে ২০০ ক্যামেরা কিনে ফাঁসলেন পিডি - dainik shiksha শিক্ষামন্ত্রীকে ভুল বুঝিয়ে সাড়ে ৫ লাখ টাকা করে ২০০ ক্যামেরা কিনে ফাঁসলেন পিডি চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়াকে বিদেশে নিতে চায় পরিবার - dainik shiksha চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়াকে বিদেশে নিতে চায় পরিবার সেহরি ও ইফতারের সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সূচি দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে please click here to view dainikshiksha website