কাওয়ালি আসরে হামলার প্রতিবাদে ডাকা ‘ধিক্কার সমাবেশ’ পণ্ড - বিশ্ববিদ্যালয় - দৈনিকশিক্ষা

কাওয়ালি আসরে হামলার প্রতিবাদে ডাকা ‘ধিক্কার সমাবেশ’ পণ্ড

ঢাবি প্রতিনিধি |

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়স্থ টিএসসি’র কাওয়ালি অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগের হামলার প্রতিবাদে রাজধানীর শাহবাগে পিপলস অ্যাক্টিভিটস কোয়ালিশন (প্যাক) নামে একটি সংগঠনের ডাকা ধিক্কার সমাবেশ পুলিশি বাধায় পণ্ড হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিকাল ৪টার পরপরই কিছু সংখ্যক ব্যক্তি অবস্থান নিয়ে সমাবেশ করার চেষ্টা করলে পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এ নিয়ে পুলিশের সঙ্গে তাদের বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে পুলিশ সমাবেশকারীদের ধাওয়া দিলে তারা ছত্রভঙ্গ হয়ে কাঁটাবন সড়ক দিয়ে চলে যান।

জানতে চাইলে সংগঠনটির মুখপাত্র রাতুল সরকার বলেন, পুলিশ আমাদের কোনোভাবেই পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি করতে দেয়নি। আমরা দ্রুত কর্মসূচি শেষ করে চলে যাওয়ার কথা বললে তারা তাতেও রাজি হয়নি। প্রোগ্রাম করতে না দেয়ায় আমরা স্লোগান শুরু করলে পুলিশ আমাদের উপর লাঠিচার্জ করে। এটা আমাদের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হয়।

তবে নিরাপত্তা বাহিনী সূত্রে জানা যায়, করোনার কারণে সভা-সমাবেশ করার ক্ষেত্রে সরকারি বিধিনিষেধ থাকায় তাদের সরিয়ে দেয়া হয়েছে।  

প্রসঙ্গত, বুধবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের কাওয়ালি ব্যান্ড ‘সিলসিলা’ ও সাধারণ ছাত্রদের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হওয়া কাওয়ালি কনসার্টে ছাত্রলীগ হামলা করে বলে অভিযোগ মেলে। ভাঙচুর করা হয় মঞ্চ ও চেয়ার। এ হামলায় আহত হয়েছেন সংবাদিক, সাধারণ শিক্ষার্থীসহ বেশ কয়েকজন।

আয়োজকদের অভিযোগ- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনের অনুসারী ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা এ হামলা ও ভাঙচুর চালিয়েছে। আর অনুষ্ঠানস্থল পরিদর্শন শেষে হামলায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড.একেএম গোলাম রব্বানী।

আর হামলার প্রতিবাদে বুধবারের মতো বৃহস্পতিবার দিনভর প্রতিবাদ ও বিক্ষোভে সরব ছিল বিভিন্ন ছাত্র সংগঠন ও টিএসসিভিত্তিক  সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলো।

সভাপতির শিক্ষাগত যোগ্যতা এসএসসি, প্রস্তাব নাকচ শিক্ষামন্ত্রীর - dainik shiksha সভাপতির শিক্ষাগত যোগ্যতা এসএসসি, প্রস্তাব নাকচ শিক্ষামন্ত্রীর বিলবোর্ড ভেঙে জবি ছাত্রী গুরুতর আহত - dainik shiksha বিলবোর্ড ভেঙে জবি ছাত্রী গুরুতর আহত পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে ৭৮ ভাগ আসনই খালি, নৈরাজ্য চলছে - dainik shiksha পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে ৭৮ ভাগ আসনই খালি, নৈরাজ্য চলছে শিক্ষা প্রকৌশলের দুর্নীতি, প্রশ্নের মুখে প্রধান প্রকৌশলী - dainik shiksha শিক্ষা প্রকৌশলের দুর্নীতি, প্রশ্নের মুখে প্রধান প্রকৌশলী একজন শিক্ষার্থীও হাতে পায়নি ইউনিক আইডি, প্রকল্পের মেয়াদ শেষ - dainik shiksha একজন শিক্ষার্থীও হাতে পায়নি ইউনিক আইডি, প্রকল্পের মেয়াদ শেষ লাইসেন্স ছাড়া ওষুধ উৎপাদন করলে ১০ বছরের জেল - dainik shiksha লাইসেন্স ছাড়া ওষুধ উৎপাদন করলে ১০ বছরের জেল ৩৭ শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তাকে বদলি - dainik shiksha ৩৭ শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তাকে বদলি অনার্স ভর্তিতে রিলিজ স্লিপে আবেদন শুরু ১৬ আগস্ট - dainik shiksha অনার্স ভর্তিতে রিলিজ স্লিপে আবেদন শুরু ১৬ আগস্ট please click here to view dainikshiksha website