গভীর রাতে ঢাবি ক্লাবে রিজভী, শিক্ষককে কারণ দর্শানোর নোটিশ - বিশ্ববিদ্যালয় - দৈনিকশিক্ষা

গভীর রাতে ঢাবি ক্লাবে রিজভী, শিক্ষককে কারণ দর্শানোর নোটিশ

ঢাবি প্রতিনিধি |

রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাবে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী অবস্থান করেছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ও ক্লাবের সভাপতি ওবায়দুল ইসলামের আমন্ত্রণে। এ নিয়ে ওবায়দুল ইসলামকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এ ঘটনা অনুসন্ধানে কমিটিও গঠন করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত সাদা দলের শিক্ষক ওবায়দুল ইসলাম। জানা গেছে, রোববার রাতে রিজভী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাবে যান। সেখানে তিনি অবস্থান করেন রাত ১টা পর্যন্ত। সঙ্গে তার স্ত্রী ও বন্ধুরাও ছিলেন।

এ বিষয়ে ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও আওয়ামী লীগপন্থী নীল দলের সিনেট সদস্য আব্দুর রহিম বলেন, ‘এ খবর জানতে পেরে সোমবার ক্লাবের কার্যনির্বাহী পরিষদের মিটিং করি। সেখানে ক্লাবের সভাপতির কাছে ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে। সাত কার্যদিবসের মধ্যে জবাব দিতে কারণ দর্শানোর নোটিশ ও একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।'

তিনি বলেন, রিজভী দাওয়াতে এসেছিলেন, নাকি বৈঠক করেছেন নিশ্চিত নয়। সিসিটিভির ফুটেজ দেখে অনুসন্ধান করা হচ্ছে।

এ বি এম ওবায়দুল ইসলাম বলেন, ‘রাতে ক্লাবে শিক্ষকদের অতিথিরা আসেন, খাওয়া-দাওয়া করেন। খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার। আমি শিক্ষক এবং ক্লাবের সভাপতি। আমার আমন্ত্রণেও কিছু অতিথি এসেছিলেন। কোনো বৈঠক হয়নি, আড্ডা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘কেউ কি গোপন বৈঠক করতে ক্লাবে আসবে? সিসিটিভি ফুটেজ আছে, অতিথিরা স্ত্রীদের নিয়ে এসেছিলেন। কেউ গোপন বৈঠকের পরিকল্পনা নিয়ে আসলে কি স্ত্রীদের নিয়ে আসবেন? আড্ডার সময় অন্য রুমে আওয়ামীপন্থী শিক্ষকরাও ছিলেন। এ রকম অতিথি সব শিক্ষকের আসে। আমরা তো এ নিয়ে প্রশ্ন তুলিনি? এটা স্বাভাবিক ব্যাপার। মূলত হয়রানি করার উদ্দেশ্যে ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

ঈদের পরে এসএসসি পরীক্ষা, তারিখ নির্ধারণ হয়নি - dainik shiksha ঈদের পরে এসএসসি পরীক্ষা, তারিখ নির্ধারণ হয়নি মিলিটারি ডিকটেটররা ছাত্রদের হাতে অস্ত্র-মাদক তুলে দিয়েছিল: প্রধানমন্ত্রী - dainik shiksha মিলিটারি ডিকটেটররা ছাত্রদের হাতে অস্ত্র-মাদক তুলে দিয়েছিল: প্রধানমন্ত্রী পদ্মাসেতু: বড় পরিবর্তনের সুযোগ শিক্ষায় - dainik shiksha পদ্মাসেতু: বড় পরিবর্তনের সুযোগ শিক্ষায় প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ : ফল পুনর্মূল্যায়ন চেয়ে ৫ পরীক্ষার্থীর রিট - dainik shiksha প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ : ফল পুনর্মূল্যায়ন চেয়ে ৫ পরীক্ষার্থীর রিট বন্যা চলে গেলেই পরীক্ষা নেয়া হবে : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha বন্যা চলে গেলেই পরীক্ষা নেয়া হবে : শিক্ষামন্ত্রী বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিতে ডোপ টেস্ট বাধ্যতামূলক হচ্ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী - dainik shiksha বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিতে ডোপ টেস্ট বাধ্যতামূলক হচ্ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ৩ জুলাই থেকে বন্ধ মাধ্যমিক বিদ্যালয় - dainik shiksha ৩ জুলাই থেকে বন্ধ মাধ্যমিক বিদ্যালয় please click here to view dainikshiksha website