চবিতে অধ্যাপক মোহাম্মদ আবু তাহেরকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা - বিশ্ববিদ্যালয় - দৈনিকশিক্ষা

চবিতে অধ্যাপক মোহাম্মদ আবু তাহেরকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক |

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধ্যাপক ও বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সদস্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আবু তাহেরকে ক্যাম্পাসে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছে শিক্ষার্থীরা।  

বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদ প্রাঙ্গণে ‘সাধারণ শিক্ষার্থীবৃন্দ’ ব্যানারে আয়োজিত মানববন্ধনে এ ঘোষণা দেন তারা।

এতে বক্তব্য দেন চবি শিক্ষার্থী মনির হোসেন। তিনি বলেন, আমাদের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে অত্যন্ত সুনামের সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছেন। করোনার মধ্যে অনেক শিক্ষার্থীকে সহযোগিতা করেছেন এবং করে যাচ্ছেন। এর মধ্যে অধ্যাপক আবু তাহেরের মতো কিছু দুর্নীতিবাজ শিক্ষক উপাচার্যের বিরুদ্ধে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন মন্তব্য করেছেন। আমরা তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

দর্শন বিভাগের কফিল উদ্দীন বলেন, ঝুঁকিপূর্ণ ও পাহাড়ধসের আশঙ্কা থাকায় উপাচার্য বাংলোতে থাকেন না। ২০০৭ সাল থেকে কোনো উপাচার্য বাংলোতে নিয়মিত থাকেন না। এটি গণপূর্ত বিভাগে মতামত জানার জন্য পাঠানো হয়েছে। ইতিমধ্যে বিষয়টি ইউজিসিতে জানানো হয়েছে বলে আমরা জানি। তারপরও ইউজিসি সদস্য আবু তাহের উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে ড. শিরীণ আক্তারের ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য বিভিন্ন বক্তব্য দিচ্ছেন।  

ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের শাহাব উদ্দীন বলেন, লোকমুখে শুনেছি প্রফেসর আবু তাহের প্রতিজ্ঞা করেছেন- প্রফেসর ড. শিরীণ আক্তারকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিতাড়িত করে নিজেই ভিসি হবেন। তাই এমন মিথ্যা ও ভিত্তিহীন মন্তব্য করেছেন। আপনারা হয়তো জানেন প্রফেসর আবু তাহেরের আগের কর্মস্থল বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়। সেখানে কর্মরত থাকাকালে তার বিরুদ্ধে নানা দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে, যা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়কে তদন্ত করার জন্য বলা হয়েছে।

আরও পড়ুন : দৈনিক শিক্ষাডটকম পরিবারের প্রিন্ট পত্রিকা ‘দৈনিক আমাদের বার্তা’

শিক্ষার্থীরা বলেন, বুধবার (১৪ জুলাই) চবি অধ্যাপক আবু তাহের গণমাধ্যমে দেওয়া এক বক্তব্যে চবি উপাচার্য ড. শিরীণ আখতারের বাড়ি ভাড়া নেওয়াকে অনিয়ম বলে আখ্যা দিয়েছেন। আমরা এ বক্তব্যের তীব্র নিন্দা জানাই।

দৈনিক আমাদের বার্তার ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব ও ফেসবুক পেইজটি ফলো করুন

অ্যাসাইনমেন্টের সঙ্গে স্কুলের বেতনের সম্পর্ক নেই : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha অ্যাসাইনমেন্টের সঙ্গে স্কুলের বেতনের সম্পর্ক নেই : শিক্ষামন্ত্রী শিক্ষকদের একটা বড় অংশ ঘটনাচক্রে শিক্ষক : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha শিক্ষকদের একটা বড় অংশ ঘটনাচক্রে শিক্ষক : শিক্ষামন্ত্রী শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হয় তদবিরে : সেতুমন্ত্রী - dainik shiksha শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হয় তদবিরে : সেতুমন্ত্রী ছাত্রীর চুল কেটে দেওয়ায় শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা - dainik shiksha ছাত্রীর চুল কেটে দেওয়ায় শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা এ সপ্তাহে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সারপ্রাইজ ভিজিট শুরু - dainik shiksha এ সপ্তাহে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সারপ্রাইজ ভিজিট শুরু অষ্টম-নবম শ্রেণির ক্লাস দুই দিন : নতুন রুটিন প্রকাশ - dainik shiksha অষ্টম-নবম শ্রেণির ক্লাস দুই দিন : নতুন রুটিন প্রকাশ করোনার বন্ধে এক স্কুলেই অর্ধশতাধিক বাল্যবিবাহ - dainik shiksha করোনার বন্ধে এক স্কুলেই অর্ধশতাধিক বাল্যবিবাহ please click here to view dainikshiksha website