ছাত্রীতে ধর্ষণ-গর্ভপাত, মাদরাসা পরিচালক গ্রেফতার - মাদরাসা - দৈনিকশিক্ষা

ছাত্রীতে ধর্ষণ-গর্ভপাত, মাদরাসা পরিচালক গ্রেফতার

গাজীপুর প্রতিনিধি |

গাজীপুরে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন এক মাদরাসা ছাত্রীকে (১৩) ধর্ষণ ও অবৈধ গর্ভপাতের অভিযোগে এক মাদরাসার পরিচালককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে জেলার শ্রীপুর উপ-জেলার ছাতির বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত মাদরাসা পরিচালকের নাম এমদাদুল হক (২৮)। তিনি ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট থানার মোজাখালী গ্রামের আ. ছিদ্দিকের ছেলে। সে জেলার শ্রীপুর উপজেলার ছাতিরবাজার এলাকার দারুল কোরআন মাদরাসার পরিচালক।

ছাত্রীর স্বজন, পুলিশ ও থানায় দায়ের করা লিখিত অভিযোগ থেকে জানা গেছে, শ্রীপুরে ভাড়া থেকে ওই ছাত্রীর মা স্থানীয় এক পোশাক কারখানায় এবং বাবা এলাকায় ফেরি করে মালামাল বিক্রি করে সংসার চালান। চিকিৎসকের পরামর্শে শিশুদের সঙ্গে মেশার সুযোগ করতে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন ওই ছাত্রীকে গত ঈদুল ফিতরের পর স্থানীয় দারুল উলুম মহিলা মাদরাসায় ভর্তি করেন। সেখানে ভিকটিম অন্য শিশুদের সঙ্গে সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত থাকতো। গত ২১ আগস্ট সন্ধ্যায় মাদরাসার শিক্ষিকা মোবাইলে ফোন করে ওই ছাত্রী অসুস্থ থাকার কথা জানান। ফোন পাওয়ার পরপরই রাত ৮টার দিকে মাদরাসায় গেলে মেয়েকে রক্তাক্ত অবস্থায় দেখতে পান পরিবারের সদস্যরা। পরদিন ২২ আগস্ট তাকে নিয়ে ময়মনসিংহের একটি বেসরকারি ক্লিনিকে চিকিৎসা করা হয়। সেখান অবস্থার অবনতি হলে তাকে ময়মনসিংহের কমিউনিটি বেজড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরীক্ষা নিরীক্ষা করে চিকিৎসকরা জানান, ওই কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা ছিল, কিশোরীকে ওষুধ খাইয়ে তার গর্ভপাত করা হয়েছে। সেখান থেকে তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা করানো হয়। চিকিৎসা শেষে গত ১৭ সেপ্টেম্বর তাকে হাসপাতাল থেকে বাড়িতে নেয়া হয়।

ভিকটিমের বাবা জানান, তার মেয়ে কথা বলতে পারেন না। কি করে তার এমন হলো জানতে চাইলে ভিকটিম ঈশারায় অভিযুক্ত এমদাদকে শনাক্ত করে এবং তাকে ধর্ষণ করেছে বলে দেখান। এ বিষয়ে তিনি ১৮ সেপ্টেম্বর তেলিহাটি ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের সদস্য মো. শফিকুল ইসলামের কাছে বিচার দাবি করেন। ইউপি সদস্য শফিকুল বিষয়টি সমাধানে না গিয়ে ভিকটিমের পরিবাকে তিনি থানায় অভিযোগ করতে বলেন। গত সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) ভিকটিমের বাবা শ্রীপুর থানায় এমদাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন। 

শ্রীপুর থানার ওসি মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানান, ভিকটিমের বাবার অভিযোগের প্রেক্ষিতে মামলা হয়েছে। অভিযুক্তকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

৬৪ হাজার স্কুল পেলো ১৮৬ কোটি টাকা - dainik shiksha ৬৪ হাজার স্কুল পেলো ১৮৬ কোটি টাকা ঢাবিতে ছাত্রদলের ওপর ছাত্রলীগের হামলা - dainik shiksha ঢাবিতে ছাত্রদলের ওপর ছাত্রলীগের হামলা নতুন এমপিওভুক্তরা অনিশ্চয়তায় - dainik shiksha নতুন এমপিওভুক্তরা অনিশ্চয়তায় অবৈধ ফরহাদই শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ - dainik shiksha অবৈধ ফরহাদই শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ মদ খেয়ে স্কুলে মারামারি : সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থী বহিষ্কার - dainik shiksha মদ খেয়ে স্কুলে মারামারি : সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থী বহিষ্কার টিচিং লোড ক্যালকুলেশন নীতিমালা অনুমোদন - dainik shiksha টিচিং লোড ক্যালকুলেশন নীতিমালা অনুমোদন শিক্ষকদের তথ্য চায় কারিগরি শিক্ষা বোর্ড - dainik shiksha শিক্ষকদের তথ্য চায় কারিগরি শিক্ষা বোর্ড এসএসসি ভোকশনাল : আগামী বছর দশম শ্রেণির বোর্ড পরীক্ষা সব বিষয়ে - dainik shiksha এসএসসি ভোকশনাল : আগামী বছর দশম শ্রেণির বোর্ড পরীক্ষা সব বিষয়ে please click here to view dainikshiksha website