ছাত্রীর সাথে অনৈতিক কাজ : সেই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া শুরু - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

ছাত্রীর সাথে অনৈতিক কাজ : সেই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া শুরু

নওগাঁ প্রতিনিধি |

নওগাঁর রাণীনগর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক (গ্রন্থাগার বিজ্ঞান) সাদেকুল ইসলাম পিটুর সাথে এক ছাত্রীর অনৈতিক কর্মকাণ্ডের ভিডিও সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। সে ঘটনার খবর দৈনিক শিক্ষা ডটকমসহ দেশের বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশের পর অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার প্রক্রিয়া শুরু করেছে প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ। প্রাথমিকভাবে তাকে শোকজ করা হয়েছে।

প্রতিষ্ঠান সূত্রে জানা যায়, গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১১ টায় প্রতিষ্ঠানের সভাপতিসহ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য ও প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা বিকেল ৫ টা পর্যন্ত মিটিং করে তাকে শোকজ করেছেন। আগামী ৭ দিনের মধ্যে তাকে শোকজের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

আরও পড়ুন : শিক্ষক-ছাত্রীর অনৈতিক কর্মকাণ্ডের ভিডিও ভাইরাল, সমালোচনার ঝড়

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের বিভিন্ন আইডি ও পেজে ভিডিওটি ভাইরাল হয়। এ নিয়ে এলাকায় সমালোচনার ঝড় বইছে। দ্রুত ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছিলেন স্থানীয়রা ও ছাত্রীদের অবিভাবকরা। 

জানা গেছে, অভিযুক্ত শিক্ষক উপজেলার বেলোবাড়ি গ্রামের মৃত আসরত আলী মিনার ছেলে সাদেকুল ইসলাম পিটু। সে প্রায় ১০ বছর আগে রাণীনগর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে সহকারী গ্রন্থাগারিক হিসেবে যোগদান করেন। এরপর থেকেই পিটু ওই বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের প্রাইভেট পড়াতেন। প্রাইভেট পড়ানোর সুবাদে ওই স্কুলের ৮ম শ্রেণির এক ছাত্রীর সাথে অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে তোলেন। তাদের অনৈতিক কর্মকাণ্ডের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত  শিক্ষক সাদেকুল ইসলাম পিটুর মুঠোফোনে দৈনিক শিক্ষা ডটকমের পক্ষ থেকে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তার মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

রাণীনগর উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ দৈনিক শিক্ষা ডটকমকে বলেন, এ বিষয়ে দৈনিক শিক্ষা ডটকমসহ বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় খবর প্রকাশের পর গতকাল ম্যানেজিং কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তাকে শোকজ করা হয়েছে।

রাণীনগর উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি গোলাম হোসেন গোল্লা দৈনিক শিক্ষা ডটকমকে বলেন, বিষয়টি আমার জানা ছিল না। বিষয়টি জানার পর জরুরিভিত্তিতে মিটিং ডাকার জন্য প্রতিষ্ঠান প্রধানকে বলি। সে ভিত্তিতে মঙ্গলবার মিটিং ডাকেন প্রধান শিক্ষক। মিটিংয়ে আমরা ওই ঘটনার জন্য অভিযুক্ত শিক্ষককে শোকজ করার সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রধান শিক্ষককে শোকজ করতে বলেছি। তার জবাবের পর পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা ও স্টাডি সেন্টার বিদ্যমান আইনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক - dainik shiksha বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা ও স্টাডি সেন্টার বিদ্যমান আইনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক করোনার প্রভাবে শিক্ষক এখন কচু ব্যবসায়ী - dainik shiksha করোনার প্রভাবে শিক্ষক এখন কচু ব্যবসায়ী অনলাইন পরীক্ষা সুফল বয়ে আনবে না : উপাচার্য - dainik shiksha অনলাইন পরীক্ষা সুফল বয়ে আনবে না : উপাচার্য মিতু হত্যা : সাবেক এসপি বাবুল আক্তারকে প্রধান আসামি করে মামলা - dainik shiksha মিতু হত্যা : সাবেক এসপি বাবুল আক্তারকে প্রধান আসামি করে মামলা ঈদের আগে জামা-জুতার টাকা পেল না শিক্ষার্থীরা, উপবৃত্তি ৫০০ টাকায় উন্নীত করার সুপারিশ - dainik shiksha ঈদের আগে জামা-জুতার টাকা পেল না শিক্ষার্থীরা, উপবৃত্তি ৫০০ টাকায় উন্নীত করার সুপারিশ এমপিও কমিটির ভার্চুয়াল সভা ১৭ মে - dainik shiksha এমপিও কমিটির ভার্চুয়াল সভা ১৭ মে শিক্ষক পাবেন পাঁচ হাজার, কর্মচারী আড়াই হাজার টাকা করে - dainik shiksha শিক্ষক পাবেন পাঁচ হাজার, কর্মচারী আড়াই হাজার টাকা করে ২৫ শতাংশ পর্যন্ত শিক্ষার্থীর পড়াশোনা বন্ধ হয়ে গেছে - dainik shiksha ২৫ শতাংশ পর্যন্ত শিক্ষার্থীর পড়াশোনা বন্ধ হয়ে গেছে সেহরি ও ইফতারের সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সূচি দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে ‘কওমি মাদরাসায় জাতীয় চেতনা ও সংস্কৃতিবোধ উপেক্ষিত’ - dainik shiksha ‘কওমি মাদরাসায় জাতীয় চেতনা ও সংস্কৃতিবোধ উপেক্ষিত’ please click here to view dainikshiksha website