জমি নিয়ে বিরোধের জেরে শিক্ষককে কুপিয়ে জখম - মাদরাসা - দৈনিকশিক্ষা

জমি নিয়ে বিরোধের জেরে শিক্ষককে কুপিয়ে জখম

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি |

জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে গাজীপুর বন্দর সিনিয়র মাদরাসার আররি প্রভাষক মো. ফোরকান মুসুল্লীকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে দুবৃত্তরা। অভিযোগ ওই শিক্ষকের প্রতিবেশী মোতালেব মৃধা ও তার লোকজন তাকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে। আহত শিক্ষক ফোরকানকে স্বজনরা উদ্ধার করে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠিয়েছেন।

আরও পড়ুন : দৈনিক শিক্ষাডটকম পরিবারের প্রিন্ট পত্রিকা ‘দৈনিক আমাদের বার্তা’

শুক্রবার (১১ জুন) দুপুরে উপজেলার গাজীপুর বন্দরে এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনার মামলার প্রস্তুতি চলছে। ঘটনার পরপর মোতালেব মৃধা ও তার লোকজন পালিয়েছে।

জানা গেছে, গাজীপুর বন্দরের শিক্ষক ফোরকান মুসুল্লীর ১০ শতাংশ জমি রয়েছে। ওই জমির ৫ শতাংশ প্রতিবেশী মোতালেক মৃধা জোরপূর্বক দখল করে নেয়। এ নিয়ে গত ৫ বছর ধরে তাদের মাঝে বিরোধ চলে আসছে। গত একমাস আগে মোতালেব মৃধা ফোরকান মুসুল্লীর বাসার সামনে ইট স্তুপ করে রাখেন। শুক্রবার দুপুরে শিক্ষক ফোরকান ওই ইট মোতালেব মৃধাকে সরিয়ে নিতে বলেন। এ নিয়ে ফোরকান ও মোতালেব মৃধার মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। 

স্থানীয় কাওসার হাওলাদার, হাজী রুহুল আমিন, সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ নজরুল ইসলাম ও জুয়েল গাজী সালিস বৈঠকের মাধ্যমে আগামী সোমবার বিষয়টি মীমাংসার সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু মোতাবেল মৃধা ও তার লোকজন এতে শান্ত হয়নি। 

স্থানীয়দের অভিযোগ, মোতালেব মৃধার ছেলে মিঠু মৃধা, নাতি সাকিল ও ভাইয়ের ছেলে শাহীন মৃধাসহ ৮-১০ জন দেশীয় ধারালো অন্ত্র দিয়ে প্রভাষক ফোরকানকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। তাদের ভয়ে ফোরকানকে রক্ষায় কেউ এগিয়ে আসেনি।

দৈনিক আমাদের বার্তার ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব ও ফেসবুক পেইজটি ফলো করুন

শিক্ষককে কুপিয়ে অভিযুক্তরা বীর দর্পে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেছেন বলেও দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীারা। 

জানা গেছে, ধারালো অস্ত্রের আঘাতে প্রভাষক ফোরকান মুসুল্লীর বাম হাত, বুক ও পিঠসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে গুরুতর জখম হয়। স্বজনরা দ্রুত তাকে উদ্ধার করে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। ওই হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠিয়েছেন। 

জানা গেছে, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনার মামলার প্রস্তুতি চলছে।  ঘটনার পরপর মোতালেব মৃধা ও তার লোকজন পালিয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, মোতালেব মৃধার ছেলে মিঠু মৃধা, নাতি সাকিব ও ভাইয়ের ছেলে শাহীন মৃধাসহ ৮-১০ জনে ধারালো অস্ত্র নিয়ে ফোরকানকে কুপিয়ে বীর দর্পে এলাকা ত্যাগ করে। তাদের অস্ত্রের ভয়ে  স্থানীয়রা ফোরকানকে রক্ষায় এগিয়ে আসতে সাহস পায়নি। তারা এ ঘটনায় দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দাবি করেন।

প্রভাষক ফোরকান মুসুল্লীর ভাতিজা নাশির মুসুল্লী দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, মোতালেব মৃধা জোরপূর্বক আমার চাচার জমি ভোগদখল করে আসছে। ওই জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে আমার চাচাকে মোতালেব মৃধা, তার ছেলে মিঠু মৃধা, নাতি সাকিল ও ভাইয়ের ছেলে শাহীন মৃধাসহ ৮-১০ জনে নির্মমভাবে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে। এ ঘটনার বিচার চাই।

অভিযুক্ত মোতালেব মৃধার মুঠোফোনে এ বিষয়ে কথা বলতে দৈনিক শিক্ষাডটকমের পক্ষ থেকে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

গাজীপুর পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ এসআই মো. মোশাররফ হোসেন দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। 

আমতলী থানার ওসি মো. শাহ আলম হাওলাদার দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

৪৩ লাখ শিক্ষার্থীর টিউশন ফি-উপবৃত্তির হাজার কোটি টাকা বিতরণ শুরু - dainik shiksha ৪৩ লাখ শিক্ষার্থীর টিউশন ফি-উপবৃত্তির হাজার কোটি টাকা বিতরণ শুরু এসএসসি-এইসএসসি পরীক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত শিগগির : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha এসএসসি-এইসএসসি পরীক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত শিগগির : শিক্ষামন্ত্রী দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে ‘শিক্ষক-অভিভাবক’ সমাবেশ ২৬ জুন - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে ‘শিক্ষক-অভিভাবক’ সমাবেশ ২৬ জুন এনজিওর হাতে যাচ্ছে সরকারি হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা! - dainik shiksha এনজিওর হাতে যাচ্ছে সরকারি হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা! বিলের মধ্যে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্র: এক চিঠিতেই আটকে গেল ভূমি অধিগ্রহণ - dainik shiksha বিলের মধ্যে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্র: এক চিঠিতেই আটকে গেল ভূমি অধিগ্রহণ ঢাকার রাস্তায় প্রাইভেট ক্যামেরা, ফুটেজের ব্যবসা! - dainik shiksha ঢাকার রাস্তায় প্রাইভেট ক্যামেরা, ফুটেজের ব্যবসা! নির্মাণাধীন ম্যাটসে মেঝে ভরাটে বালুর পরির্বতে মাটি - dainik shiksha নির্মাণাধীন ম্যাটসে মেঝে ভরাটে বালুর পরির্বতে মাটি উচ্চশিক্ষার ক্ষতি পোষাতে শিক্ষাবর্ষের সময় কমানো ও ছুটি বাতিলের পরামর্শ - dainik shiksha উচ্চশিক্ষার ক্ষতি পোষাতে শিক্ষাবর্ষের সময় কমানো ও ছুটি বাতিলের পরামর্শ please click here to view dainikshiksha website