ডলারের দাম বেশি বাড়ার আশঙ্কা নেই : অর্থমন্ত্রী - বিবিধ - দৈনিকশিক্ষা

ডলারের দাম বেশি বাড়ার আশঙ্কা নেই : অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক |

রপ্তানি বাড়ছে, আমদানিও বাড়ছে। আমদানির জন্য অর্থায়ন প্রয়োজন। ডলারের বাজার তাই ওঠা–নামা করবেই। তবে অনেক বেশি ওঠা-নামা হবে না। টাকার তুলনায় ডলারের মান বেশি বাড়ার আশঙ্কা নেই।

আজ বুধবার অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অর্থনৈতিক বিষয় ও সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ভার্চুয়াল বৈঠক শেষে প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মুস্তফা কামালের কাছে প্রশ্ন ছিল, আগে প্রতি ডলারের আনুষ্ঠানিক মান ৮৫ টাকা থাকলেও এখন ৮৬ টাকা। টাকার মান কি আরও কমবে? অনানুষ্ঠানিক চ্যানেল বা কার্ব মার্কেটে ডলারের দাম আরও বেশি, অর্থাৎ ৯০ টাকা। এ বিষয়ে সরকারের ব্যবস্থাপনা কী?  

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আনুষ্ঠানিক ও অনানুষ্ঠানিক বাজারের মধ্যে কিছু পার্থক্য আছে, আমরা তা স্বীকার করি।’

এদিকে অর্থনৈতিক বিষয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটিতে রপ্তানি নীতির (২০২১-২৪) একটি প্রস্তাব নীতিগত অনুমোদন পেয়েছে বলে জানান অর্থমন্ত্রী। তিনি বলেন, বিদ্যমান রপ্তানি বাণিজ্যের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ছয় হাজার কোটি মার্কিন ডলার, প্রস্তাবিত নীতিতে তা বাড়িয়ে আট হাজার কোটি ডলারে উন্নীত করা হয়েছে।

রপ্তানি নীতির বিষয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘প্রস্তাবিত নীতিতে আগে অধ্যায় ছিল আটটি, এখন নয়টি করা হয়েছে। অগ্রাধিকার খাতে সম্ভাবনাময় নতুন কিছু পণ্য ও সেবা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। চতুর্থ শিল্পবিপ্লবে রপ্তানি বাণিজ্য সম্প্রসারণ কীভাবে সম্ভব, তারও রূপরেখা আছে। এলডিসি উত্তরণ–পরবর্তী চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় কর্মকৌশল প্রণয়নের বিস্তারিত রূপরেখা আছে এই নীতিতে।’

ভবিষ্যতে তথ্যপ্রযুক্তি (আইসিটি) ও ফ্রিল্যান্সিং খাতসহ সেবা খাতে সুবিধা দেওয়া হবে বলে জানান অর্থমন্ত্রী। মন্ত্রী বলেন, ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ ধারণা জোরদার করার লক্ষ্যে এই নীতি অনুমোদন করা হয়েছে।

ফাজিল পরীক্ষা স্থগিত - dainik shiksha ফাজিল পরীক্ষা স্থগিত মাস্ক ছাড়া বের হলেই জরিমানা করা হবে : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী - dainik shiksha মাস্ক ছাড়া বের হলেই জরিমানা করা হবে : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের - dainik shiksha উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের মাদরাসায়ও অনলাইন ক্লাস, খোলা থাকবে অফিস - dainik shiksha মাদরাসায়ও অনলাইন ক্লাস, খোলা থাকবে অফিস কওমি মাদরাসাকে বোর্ডের অধীনে নিয়ে আসা প্রয়োজন : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha কওমি মাদরাসাকে বোর্ডের অধীনে নিয়ে আসা প্রয়োজন : শিক্ষামন্ত্রী ভিসির পদত্যাগের দাবি অযৌক্তিক, চাইলেই সরানো যায় না : শিক্ষা উপমন্ত্রী - dainik shiksha ভিসির পদত্যাগের দাবি অযৌক্তিক, চাইলেই সরানো যায় না : শিক্ষা উপমন্ত্রী উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের - dainik shiksha উপবৃত্তির টাকা পাঠানো শুরু, দ্রুত তুলতে হবে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের please click here to view dainikshiksha website