ঢাবির বঙ্গবন্ধু হলে ভয়াবহ চুরি, তদন্ত কমিটি গঠন - বিশ্ববিদ্যালয় - দৈনিকশিক্ষা

ঢাবির বঙ্গবন্ধু হলে ভয়াবহ চুরি, তদন্ত কমিটি গঠন

ঢাবি প্রতিনিধি |

দীর্ঘ দেড় বছর যাবৎ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) আবাসিক হলগুলো বন্ধ। কিন্তু বন্ধ হলেও থেমে নেই চুরির ঘটনা। এ নিয়ে বেশ কয়েকবার কয়েকটি হলে রুমের তালা ভেঙে শিক্ষার্থীদের মালামাল চুরির ঘটনা ঘটেছে। এ বিষয়ে নিজেদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদারে আশ্বাস দিয়েছে হল প্রশাসন।

সর্বশেষ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের রুমের তালা ভেঙে শাকিল আহমেদ নামের এক শিক্ষার্থীর কম্পিউটার মনিটর, কি-বোর্ড, মাউস, ওয়াই-ফাই রাউটার, হাত ঘড়ি, রোদ চশমা চুরি করা হয়েছে। চুরির ঘটনাটি অনেক আগে ঘটলেও তিনি সোমবার নিজ কক্ষে গিয়ে ঘটনাটি টের পেয়েছেন। শাকিল আহমেদ বঙ্গবন্ধু হল ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি।

শাকিল বলেন, আমাদের হলের কক্ষগুলোতে চুরির ঘটনা নিয়মিত ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। এবার আমার রুমসহ আরও কয়েকটি রুমে চুরি নিয়ে মোট ৩ দফায় হলে চুরির ঘটনা ঘটলো। আগের ২ দফায় অনেকগুলো রুমে চুরি হয়েছিল। চুরিগুলো দরজার তালা ভেঙে করা হয়েছে।

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে তিনি বলেন, আমার রুমে চুরির পরে হল প্রশাসন থেকে নতুন তালা লাগানো হয়েছে। কিন্তু বিষয়টি আমাদের রুমের কাউকে জানানো হয়নি। এজন্য আমার জানার সুযোগ হয়নি। আমার রুমে কবে এই ঘটনা ঘটেছে এবং সিসিটিভি ফুটেজও বের করা সম্ভব হয়নি।

তিনি বলেন, হলের আবাসিক শিক্ষার্থীদের প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হল প্রশাসনের সাথে কথা বলে কোন সন্তুষ্টিজনক উত্তর পাইনি। চুরির সাথে জড়িতদের সন্দেহের তালিকা থেকে হলের আবাসিক শিক্ষার্থীদের জিনিসপত্রের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা হল প্রশাসনও বাদ যাচ্ছে না। 

আরও পড়ুন : দৈনিক শিক্ষাডটকম পরিবারের প্রিন্ট পত্রিকা ‘দৈনিক আমাদের বার্তা’

ক্ষতিপূরণ দাবি করে শাকিল আরও বলেন, হলে দফায় দফায় চুরির ঘটনায় দায়িত্বে অবহেলার জন্য ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের সামনে হল প্রশাসনের জবাবদিহিতা করতে হবে। একইসঙ্গে ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা করতে হবে।

হল প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. মো. মফিজুর রহমান বলেন, এটা খুবই অনাঙ্ক্ষিত ঘটনা। ইতোমধ্যে আমরা একটা তদন্ত কমিটি গঠন করেছি। আবাসিক শিক্ষকদের নির্দেশ দিয়েছি বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য। আমাদের চারপাশে পর্যাপ্ত সিকিউরিটি ব্যবস্থা আছে। তারপরেও এরকম ঘটনা কেন ঘটবে? আমরা বিষয়টি দেখবো।

দৈনিক আমাদের বার্তার ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব ও ফেসবুক পেইজটি ফলো করুন

সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি ৩০ জুন পর্যন্ত - dainik shiksha সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি ৩০ জুন পর্যন্ত ২০ বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত - dainik shiksha ২০ বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত লকডাউন বাড়লে পেছাতে পারে বুয়েটের ভর্তি পরীক্ষা - dainik shiksha লকডাউন বাড়লে পেছাতে পারে বুয়েটের ভর্তি পরীক্ষা দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে ৬ষ্ঠ-৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ষষ্ঠ সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশ - dainik shiksha ৬ষ্ঠ-৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ষষ্ঠ সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশ সেই রায়ের ওপর স্থগিতাদেশ পেলেই অর্ধলক্ষাধিক শিক্ষক পদে নিয়োগ সুপারিশ - dainik shiksha সেই রায়ের ওপর স্থগিতাদেশ পেলেই অর্ধলক্ষাধিক শিক্ষক পদে নিয়োগ সুপারিশ এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে যা ভাবছে শিক্ষা প্রশাসন - dainik shiksha এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে যা ভাবছে শিক্ষা প্রশাসন অনলাইনে পাবলিক পরীক্ষা নেয়া ‘অসম্ভব’ - dainik shiksha অনলাইনে পাবলিক পরীক্ষা নেয়া ‘অসম্ভব’ তিন ম্যাচ নিষিদ্ধ সাকিব, জরিমানা ৫ লাখ টাকা - dainik shiksha তিন ম্যাচ নিষিদ্ধ সাকিব, জরিমানা ৫ লাখ টাকা করোনার চেয়ে নির্বাচন বেশি গুরুত্বপূর্ণ : সিইসি - dainik shiksha করোনার চেয়ে নির্বাচন বেশি গুরুত্বপূর্ণ : সিইসি please click here to view dainikshiksha website