ঢাবির সাবেক অধ্যাপক সেকুল ইসলাম আর নেই - বিশ্ববিদ্যালয় - দৈনিকশিক্ষা

ঢাবির সাবেক অধ্যাপক সেকুল ইসলাম আর নেই

ঢাবি প্রতিনিধি |

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক ড. মো. সেকুল ইসলাম মারা গেছেন। (ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্নইলাহি রাজিউন)। বুধবার (২১ জুলাই) দুপুরে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তার মৃত্যু হয়।

এদিন সেকুল ইসলামের ভয়াবহ শ্বাসকষ্ট শুরু হলে তাকে রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডের বাসা থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে নেয়া হয়। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সেকুল ইসলামের সঙ্গে থাকা সেমিকন্ডাক্টর টেকনোলজি রিচার্স সেন্টারের ইন্সট্রুমেন্ট ইঞ্জিনিয়ার সাজিদুল হোসেন সরকার গণামাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। সেকুল ইসলামের মরদেহ ঈদের দিন সন্ধ্যার দিকে ঢাকা থেকে নিজ বাড়ি চাঁদপুরের উদ্দেশে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সেখানেই তার দাফন সম্পন্ন হবে।

সাজিদুল সরকার বলেন, স্যারের অ্যাজমার সমস্যা ছিল। তবে কোভিড নেগেটিভ। বুধবার সকালে স্যারের শ্বাসকষ্ট শুরু হলে স্যার আমাকে ফোন দিয়ে ডেকে আনেন। আমি এবং স্যারের মেয়ে ওনাকে হাসপাতালে নেয়ার উদ্দেশে গাড়িতে তুলি। সেসময় স্যারের শ্বাস নিতে এতোই কষ্ট হচ্ছিলো যে, তিনি শ্বাস নেয়ার জন্য উচু হয়ে যাচ্ছিলেন।

ড. সেকুল ইসলামের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মো. আখতারুজ্জামান। শোক বার্তায় উপাচার্য বলেন, সেকুল ইসলাম একজন নিষ্ঠাবান শিক্ষক ও গবেষক। তিনি অত্যন্ত সৎ, বিনয়ী, নম্র ও শান্ত প্রকৃতির মানুষ। ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি অনুষদের ডিন হিসেবেও তিনি অত্যন্ত সততা ও দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন।

প্রাইমারি স্কুল-কিন্ডারগার্টেনের ছুটিও ৩১ আগস্ট পর্যন্ত - dainik shiksha প্রাইমারি স্কুল-কিন্ডারগার্টেনের ছুটিও ৩১ আগস্ট পর্যন্ত ১৪ আগস্টের মধ্যে এক কোটি টিকা দেয়া হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী - dainik shiksha ১৪ আগস্টের মধ্যে এক কোটি টিকা দেয়া হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী এসএসসি পরীক্ষার্থীদের যেসব অ্যাসাইনমেন্ট সংশোধন - dainik shiksha এসএসসি পরীক্ষার্থীদের যেসব অ্যাসাইনমেন্ট সংশোধন সব স্কুল-কলেজ একদিন পর পর পরিষ্কার করার নির্দেশ - dainik shiksha সব স্কুল-কলেজ একদিন পর পর পরিষ্কার করার নির্দেশ এমপির বিরুদ্ধে অধ্যাপকের জিডি - dainik shiksha এমপির বিরুদ্ধে অধ্যাপকের জিডি চাচার ঋণে স্কুলছাত্রীর বৃত্তির টাকা আটকে দিলো ব্যাংক - dainik shiksha চাচার ঋণে স্কুলছাত্রীর বৃত্তির টাকা আটকে দিলো ব্যাংক টিকা নিতে জনগণকে উদ্বুদ্ধ করতে হবে শিক্ষকদের - dainik shiksha টিকা নিতে জনগণকে উদ্বুদ্ধ করতে হবে শিক্ষকদের সরকারি কলেজের ৬৬ শিক্ষককে বদলি - dainik shiksha সরকারি কলেজের ৬৬ শিক্ষককে বদলি দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনে ৩০ শতাংশ ছাড় - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনে ৩০ শতাংশ ছাড় please click here to view dainikshiksha website