নতুন সুপারিশ পাওয়া ৯৫ শিক্ষককে ১৫ দিনের মধ্যে যোগদানের নির্দেশ - এমপিও - দৈনিকশিক্ষা

নতুন সুপারিশ পাওয়া ৯৫ শিক্ষককে ১৫ দিনের মধ্যে যোগদানের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক |

নতুন করে নিয়োগ সুপারিশ পেয়েও এমপিওভুক্তি নিয়ে জটিলতায় পড়া ৯৫ জন শিক্ষকের সমস্যা সমাধান করেছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। তাদের নতুন করে নিয়োগ সুপারিশ করা হয়েছে৷ মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) রাত থেকে বুধবার (২৪ মার্চ) সকাল পর্যন্ত প্রার্থীরা নতুন সুপারিশের এসএমএস পেয়েছেন। এসব শিক্ষককে আগামী ১৫ কর্মদিবসের মধ্যে সুপারিশকৃত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যোগদান করার নির্দেশ দিয়েছে এনটিআরসিএ। এনটিআরসিএ থেকে জারি করা এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

জানা গেছে, এনটিআরসিএর দ্বিতীয় নিয়োগ চক্রে সুপারিশ পেয়েও এমপিওভুক্ত হতে পারছিলেন না ১ হাজার ২৮৪ জন প্রার্থী। প্যাটার্ন জটিলতার কারণে তারা এমপিওভুক্ত হতে পারেননি। এমপিও পদে সুপারিশ পাওয়া এসব শিক্ষকের জটিলতা নিরসনে তাদের নতুন পদে সুপারিশ করা হয়। তবে, শূন্যপদে ভুল তথ্যের কারণে নতুন সুপারিশ পেয়েও কিছু প্রার্থীর এমপিওভুক্তি নিয়ে অনিশ্চিয়তা সৃষ্টি হয়েছিল। গত ১৫ মার্চ পর্যন্ত ভুক্তভোগী প্রার্থীদের কাছ থেকে আবেদন নিয়েছে এনটিআরসিএ। 

এনটিআরসিএর জারি করা বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ১৫ মার্চ পর্যন্ত ১৫৭ জন প্রার্থী নতুন সুপারিশ পেয়েও সমস্য সমাধানের আবেদন করেছিলেন। তাদের মধ্য থেকে ৯০ জন প্রার্থীকে প্রতিস্থাপন যোগ্য বলে বিবেচনা করে এনটিআরসিএ। এ ৯০ জনের মধ্যে ৮৭ জনকে নতুন করে সুপারিশ করা হয়েছে। পদ না থাকায় বাকি ৩ জন প্রার্থীকে সুপারিশ করা হয়নি।  আর আগে পুনঃসুপারিশের আবেদন করা ১০ জন প্রার্থীর মধ্যে ৯ জনের সমস্যা সমাধান করা যায় বিবেচনা করে ৮ জনের সমস্যা সমাধান করা হয়েছে। পদ না থাকায় বাকি ১ জন প্রার্থীকে সুপারিশ করা যায়নি।  

সুপারিশপ্রাপ্ত প্রার্থীদেরে এসএসএম করে জানিয়ে দেয়া হচ্ছে।  এনটিআরসিএর নির্ধারিত ওয়েবসাইট (http://ngi.teletalk.com.bd/) থেকে সুপারিশপ্রাপ্ত প্রার্থীদের সুপারিশপত্র ডাউনলোড করে নিজ নিজ পদে ১৫ কর্মদিবসের মধ্যে যোগদান করতে বলেছে এনটিআরসিএ।

আর প্রতিষ্ঠান প্রধানদের নিয়োগ পাওয়া প্রার্থীদের নিয়োগপত্র দিতে বলা হয়েছে। প্রার্থীদের যোগদানে বাধা দিলে প্রতিষ্ঠান প্রধানদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও হুঁশিয়ার করেছে এনটিআরসিএ।

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল  SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

হেফাজত নেতা মামুনুল গ্রেফতার - dainik shiksha হেফাজত নেতা মামুনুল গ্রেফতার লকডাউন আরো এক সপ্তাহ বাড়তে পারে - dainik shiksha লকডাউন আরো এক সপ্তাহ বাড়তে পারে পিঠে অক্সিজেন সিলিন্ডার বেঁধে মোটরসাইকেলে শিক্ষিকা মাকে নিয়ে হাসপাতালে - dainik shiksha পিঠে অক্সিজেন সিলিন্ডার বেঁধে মোটরসাইকেলে শিক্ষিকা মাকে নিয়ে হাসপাতালে উপবৃত্তির টাকা হাতিয়ে নেয়া প্রতারক চক্রের বিরুদ্ধে অ্যাকশন শুরু - dainik shiksha উপবৃত্তির টাকা হাতিয়ে নেয়া প্রতারক চক্রের বিরুদ্ধে অ্যাকশন শুরু পাস কম তাই মাদরাসার এমপিও বন্ধ - dainik shiksha পাস কম তাই মাদরাসার এমপিও বন্ধ মিনা পাল থেকে যেভাবে ঢাকাই চলচ্চিত্রের 'মিষ্টি মেয়ে' - dainik shiksha মিনা পাল থেকে যেভাবে ঢাকাই চলচ্চিত্রের 'মিষ্টি মেয়ে' ইবতেদায়ি শিক্ষকদের তিন মাসের অনুদানের চেক ব্যাংকে - dainik shiksha ইবতেদায়ি শিক্ষকদের তিন মাসের অনুদানের চেক ব্যাংকে সেহরি ও ইফতারের সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সূচি দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে please click here to view dainikshiksha website