নিয়োগের দাবিতে এনটিআরসিএর সামনে রাস্তা অবরোধ - দৈনিকশিক্ষা

নিয়োগবঞ্চিত শিক্ষক নিবন্ধনাধারীদেরনিয়োগের দাবিতে এনটিআরসিএর সামনে রাস্তা অবরোধ

সাবিহা সুমি ও তানভীর হাসান |

সরাসরি নিয়োগের দাবিতে মানববন্ধনের পর সড়ক অবরোধ করেছেন নিয়োগবঞ্চিত শিক্ষক নিবন্ধনধারীরা। রাজধানীর ইস্কাটনে এনটিআরসিএর অফিসের সামনে রাস্তা অবরোধ করে রেখেছেন বেলা ১১ টা থেকে। বিকেল তিনটায় এ প্রতিবেদন লেখা অব্দি অবস্থান কর্মসূচি চলছে। 

 নিয়োগ বঞ্চিত নিবন্ধন সনদধারীদের শর্তহীনভাবে সরাসরি নিয়োগের দাবিতে তারা বিভিন্ন স্লোগান দিচ্ছেন।  এতে  ১ থেকে ১২ তম ব্যাচের  সব নিয়োগ বঞ্চিত নিবন্ধন সনদধারীদের শর্তহীনভাবে সরাসরি নিয়োগের দাবিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপও কামনা করা হয়। সংগঠনের সভাপতি নীলিমা চক্রবর্তী সকাল থেকে বক্তৃতা দিচ্ছেন। 

তিনি বলেন, দাবি পূরণ না হওয়া অব্দি তারা রাজপথ ছাড়বেন না।  এনটিআরসি’র গঠন প্রণালীতে ছিল দক্ষ ও যোগ্য শিক্ষক খুঁজে বের করার লক্ষ্যে পরীক্ষার মাধ্যমে উত্তীর্ণ প্রার্থীদের সনদ প্রদান করা। সেই হিসেবে আমরা নিবন্ধিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে সনদ লাভ করেছি। তাহলে আজকে কেন আমাদেরকে অদক্ষ এবং অযোগ্য বলা হচ্ছে ?

 পরীক্ষার মাধ্যমে কখনো ১৮%, ২২%, ১৭%, ২০% পাস করিয়ে সনদ দেয়া হয়েছে। এই পার্সেন্টেজ থেকে ভবিষ্যতে কাউকে বঞ্চিত করা হবে এরকম কোন কথা তখন বলা হয়নি। পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ ছিল বয়সের কোন সীমাবদ্ধতা নেই এবং ৪০ নম্বর অর্জন করলে নিয়োগযোগ্য বলে বিবেচনা করা হবে। তবে আজকে কেন আমাদেরকে মেধাহীন বলা হচ্ছে ?

 তিনি বলেন, আমাদের প্রত্যাশা ছিল যখন আমরা সনদ লাভ করেছি, জাতীয় মেধা তালিকায় স্থান করে নিয়েছি, যেকোন সময়ে নিয়োগ আমাদের অবশ্যই হবে। কিন্তু আজকে নির্মম পরিহাস এই যে, আমাদের প্রত্যাশা, আশা-আকাঙ্খার কোন মূল্যই এনটিআরসি’র কাছে নাই। ১ থেকে ১২ তম ব্যাচের সকল নিয়োগ বঞ্চিত নিবন্ধন সনদধারীদের শর্তহীনভাবে সরাসরি নিয়োগ পাবার অধিকার রাখে। আমরা পরিবার-পরিজন নিয়ে অসহায় এবং মানবেতর অবস্থায় জীবনযাপন করছি। এর ফলশ্রুতিতে আমরা নিয়োগ বঞ্চিতরা জাতির পিতা, বঙ্গবন্ধু কন্যা, মানবতার মা, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

৪ বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা-ইন-ইঞ্জিয়ারিং ভর্তি বিজ্ঞপ্তি - dainik shiksha ৪ বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা-ইন-ইঞ্জিয়ারিং ভর্তি বিজ্ঞপ্তি জটিলতা কাটাতে লিঙ্গই বাদ, আবেদনের সময় বাড়বে দুদিন - dainik shiksha জটিলতা কাটাতে লিঙ্গই বাদ, আবেদনের সময় বাড়বে দুদিন র‌্যাঙ্কিংয়ে এগিয়ে থাকা কলেজগুলোর নাম এক নজরে - dainik shiksha র‌্যাঙ্কিংয়ে এগিয়ে থাকা কলেজগুলোর নাম এক নজরে এইচএসসির প্রশ্ন নিয়ে অবহেলা, শিক্ষার দুই ক্যাডার শাস্তির খাঁড়ায় - dainik shiksha এইচএসসির প্রশ্ন নিয়ে অবহেলা, শিক্ষার দুই ক্যাডার শাস্তির খাঁড়ায় আমার স্কুল, আমার বাগান - dainik shiksha আমার স্কুল, আমার বাগান কওমি মাদরাসা: একটি অসমাপ্ত প্রকাশনা গ্রন্থটি এখন বাজারে - dainik shiksha কওমি মাদরাসা: একটি অসমাপ্ত প্রকাশনা গ্রন্থটি এখন বাজারে দৈনিক শিক্ষার নামে একাধিক ভুয়া পেজ-গ্রুপ ফেসবুকে - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষার নামে একাধিক ভুয়া পেজ-গ্রুপ ফেসবুকে please click here to view dainikshiksha website Execution time: 0.003713846206665