পরকীয়ায় অভিযুক্ত সুপারকে অধ্যক্ষ পদে নিয়োগ বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন - মাদরাসা - দৈনিকশিক্ষা

পরকীয়ায় অভিযুক্ত সুপারকে অধ্যক্ষ পদে নিয়োগ বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন

রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি |

কুড়িগ্রামের রাজিবপুর উপজেলার চর রাজিবপুর আলিম মাদরাসায় অধ্যক্ষ পদে মোটা অঙ্কের টাকা ঘুষের বিনিময়ে পরকীয়ায় অভিযুক্ত এক মাদরাসা সুপার সাকোয়াত হোসাইনকে নিয়োগ দেয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ নিয়োগ বন্ধের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীরা। সুপার সাকোয়াত হোসাইনকে চরিত্রহীন আখ্যা দিয়ে তা অধ্যক্ষ পদে নিয়োগ বন্ধের দাবি জানিয়ে মাদরাসা মাঠে শুক্রবার (৪ জুন) সকালে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষার্থীরা ও এলাকাবাসী।

সাকোয়াত হোসাইন। ছবি : রৌমারী প্রতিনিধি

এর আগে উপজেলার বদরপুর দাখিল মাদরাসার সুপার সাকোয়াত হোসাইনের অপকর্মের ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে গত ১৬ মে  তাকে পরকীয়ার অভিযোগ তুলে গ্রামবাসী আটক করে। এসময় তাকে গাছের সাথে বেঁধে মারধর করে মাথার চুল ‘ন্যাড়া’ করে দেয়া হয়। 

ছবি : রৌমারী প্রতিনিধি

লম্পট, চরিত্রহীন ওই মাদরাসা সুপারকে চর রাজিবপুর আলিম মাদরাসায় অধ্যক্ষ পদে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে নিয়োগ দেয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলে এ মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

চর রাজিবপুর মাদরাসার কয়েকজন ছাত্র দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানান, আমরা ইউটিউব ও ফেসবুকে ওই সুপারের কুকির্তি দেখছি। কাজেই চরিত্রহীন সুপারকে আমাদের মাদরাসা প্রধান হিসেবে চাইনা।

অভিভাবক ইমাম হোসেন দৈনিক শিক্ষাডটকমকে জানান, 'চরিত্র গঠনের কারখানা মাদরাসা। চরিত্র গঠনের কারখানায় যদি চরিত্রহীন মানুষ প্রধান হয়, তাহলে মাদরাসা ভবিষ্যৎ অনিশ্চিৎ। কাজেই আমাদের মাদরাসার অধ্যক্ষ পদে একজন চরিত্রবান এবং সব দিক দিয়েই ভাল মনের মানুষ নিয়োগ দেয়ার জোর দাবি জানাচ্ছি।'

এ বিষয়ে চর রাজিবপুর আলিম মাদরাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি আব্দুল হাই সরকারের কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি দৈনিক শিক্ষাডটকমকে বলেন, 'মানববন্ধন হয়েছে কিনা আমি জানি না। অধ্যক্ষ পদের নিয়োগ কয়েকদিন আগে স্থগিত করা হয়েছে। তবে, নিয়োগে টাকা লেনদেনর বিষয়টি সঠিক নয়।'

৪৩ লাখ শিক্ষার্থীর টিউশন ফি-উপবৃত্তির হাজার কোটি টাকা বিতরণ শুরু - dainik shiksha ৪৩ লাখ শিক্ষার্থীর টিউশন ফি-উপবৃত্তির হাজার কোটি টাকা বিতরণ শুরু এসএসসি-এইসএসসি পরীক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত শিগগির : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha এসএসসি-এইসএসসি পরীক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত শিগগির : শিক্ষামন্ত্রী দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে ‘শিক্ষক-অভিভাবক’ সমাবেশ ২৬ জুন - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে ‘শিক্ষক-অভিভাবক’ সমাবেশ ২৬ জুন এনজিওর হাতে যাচ্ছে সরকারি হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা! - dainik shiksha এনজিওর হাতে যাচ্ছে সরকারি হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা! বিলের মধ্যে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্র: এক চিঠিতেই আটকে গেল ভূমি অধিগ্রহণ - dainik shiksha বিলের মধ্যে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্র: এক চিঠিতেই আটকে গেল ভূমি অধিগ্রহণ ঢাকার রাস্তায় প্রাইভেট ক্যামেরা, ফুটেজের ব্যবসা! - dainik shiksha ঢাকার রাস্তায় প্রাইভেট ক্যামেরা, ফুটেজের ব্যবসা! নির্মাণাধীন ম্যাটসে মেঝে ভরাটে বালুর পরির্বতে মাটি - dainik shiksha নির্মাণাধীন ম্যাটসে মেঝে ভরাটে বালুর পরির্বতে মাটি উচ্চশিক্ষার ক্ষতি পোষাতে শিক্ষাবর্ষের সময় কমানো ও ছুটি বাতিলের পরামর্শ - dainik shiksha উচ্চশিক্ষার ক্ষতি পোষাতে শিক্ষাবর্ষের সময় কমানো ও ছুটি বাতিলের পরামর্শ please click here to view dainikshiksha website