পরীক্ষায় বেআইনি কাজ করলেই শিক্ষক বরখাস্ত-এমপিও স্থগিত - এমপিও - দৈনিকশিক্ষা

পরীক্ষায় বেআইনি কাজ করলেই শিক্ষক বরখাস্ত-এমপিও স্থগিত

নিজস্ব প্রতিবেদক |

পাবলিক পরীক্ষায় বেআইনি কোন কাজ করলে প্রতিষ্ঠান প্রধান ও শিক্ষক-কর্মচারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে হুঁশিয়ার করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি জানিয়েছেন, পরীক্ষায় বেআইনি কোনো কাজ করলে সরকারি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের সাময়িক বরখাস্ত করে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। আর বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক কর্মচারীদের এমপিও স্থগিত করে রশিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটিকে বলা হবে। কমিটি ব্যবস্থা না নিলে কমিটি বাতিল করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে জানাতে হবে।

রোববার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে জাতীয় মনিটরিং ও আইন-শৃঙ্খলা সংক্রান্ত কমিটির সভা শেষে এ কথা জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, কেন্দ্রসচিব ছাড়া কেউ এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্রে কোন মোবাইল ফোন বা ইলেকট্রনিক ডিভাইস ব্যবহার করতে পারবে না। কেন্দ্রসচিব ছবি তোলা যায় না এমন ফিচার ফোন ব্যবহার করতে পারবেন। স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা হবে। পরীক্ষা কেন্দ্রে কেউ অনুমোদিত ফোন বা ইলেকট্রনিক ডিভাইস নিয়ে প্রবেশ করলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, পরীক্ষা কেন্দ্রে ২০০ গজের মধ্যে পরীক্ষার্থী, শিক্ষক-কর্মচারীদের স্মার্টফোন বা ঘড়ি বা ইলেকট্রনিক ডিভাইস ব্যবহার নিষিদ্ধ থাকবে। নির্দেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্ত্রী বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে এসএসসি পরীক্ষা নেয়া হবে। আমাদের দেশে সংক্রমণ কিছুটা বাড়ছে।  আশপাশের দেশে কোথাও কোথাও সংক্রমণ দেখা দিচ্ছে। কাজেই আমাদেরকে অত্যন্ত সতর্ক হতে হবে।

মন্ত্রী জানান, এসএসসি শুরুর ৩০ মিনিট আগে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে পরীক্ষার্থীদের। অনিবার্য কারণে কোন পরীক্ষার্থীকে দেরিতে প্রবেশ করতে দিলে তার সব তথ্যসহ প্রতিবেদন ওইদিনই সংশ্লিষ্ট শিক্ষা বোর্ডকে পাঠাতে হবে। 

তিনি আরও বলেন, পরীক্ষা শেষ হওয়ার ৬০ দিনের মধ্যে ফল প্রকাশ করা হবে, ইনশাআল্লাহ।

তিনি বলেন, পরীক্ষায় জালিয়াতি রোধ ও নিরাপত্তার স্বার্থে আগামী ১৫ জুন থেকে ৭ জুলাই পর্যন্ত দেশের সব কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকবে।

দীপু মনি বলেন, ১৯ জুন থেকে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হবে। সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষা সম্পন্ন করতে প্রস্তুতি চূড়ান্ত করা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে এবার এসএসসি পরীক্ষা তিন ঘণ্টার পরিবর্তে দুই ঘণ্টায় অনুষ্ঠিত হবে। 

দীপু মনি বলেন, এ বছর এসএসসি-সমমান পরীক্ষায় বসবে ২০ লাখ ২১ হাজার ৮৬৮ জন শিক্ষার্থী। আগামী ১৯ জুন এ পরীক্ষা শুরু হয়ে চলবে ৬ জুলাই পর্যন্ত। সারাদেশে ৩ হাজার ৭৯০টি কেন্দ্রে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

তিনি জানান, এ বছর সাধারণ নয়টি বোর্ডের অধীনে ১৫ লাখ ৯৯ হাজার ৭১১ জন পরীক্ষার্থী রয়েছে। এর বাইরে দাখিলে ২ লাখ ৬৮ হাজার ৪৯৫ জন আর কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে এসএসসি ও দাখিল ভোকেশনালে ১ লাখ ৬৩ হাজার ৬৬২ পরীক্ষার্থী অংশ নেবে।

মন্ত্রী আরও জানান, পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উদযাপনে ২৫ জুনের এসএসসি পরীক্ষা ২৪ তারিখ শুক্রবার অনুষ্ঠিত হবে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বহুল কাঙ্ক্ষিত পদ্মা সেতু উদ্বোধনের দিন গোটা জাতি উৎসবে মাতবে। এজন্য ওই দিনের পরীক্ষা এক দিন এগিয়ে আনার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

২৫ জুন এসএসসির ইংরেজি দ্বিতীয় পত্র ও দাখিলের বাংলা দ্বিতীয় পত্র পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল, যা ২৪ জুন অনুষ্ঠিত হবে।
প্রতিবছর ফেব্রুয়ারিতে এসএসসি পরীক্ষা নেয়া হলেও করোনা মহামারির কারণে এ বছর পিছিয়ে দেয়া হয়। ২০২২ খ্রিষ্টাব্দে এসএসসি, দাখিল ও এসএসসি-দাখিল ভোকেশনাল পরীক্ষা শুরু হবে আগামী ১৯ জুন। এসএসসির তত্ত্বীয় বিষয়ের পরীক্ষা শেষ হবে ৬ জুলাই। আর এসএসসির ব্যবহারিক পরীক্ষা ১৩ থেকে ১৯ জুলাইয়ের মধ্যে শেষ করতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। অপর দিকে ৭ জুলাই থেকে ১৭ জুলাই পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে দাখিলের ব্যবহারিক পরীক্ষা। পরীক্ষা শেষ হওয়ার ৬০ দিনের মধ্যেই ফল পাবেন পরীক্ষার্থীরা।

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে সয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল   SUBSCRIBE   করতে ক্লিক করুন।

ঈদের পরে এসএসসি পরীক্ষা, তারিখ নির্ধারণ হয়নি - dainik shiksha ঈদের পরে এসএসসি পরীক্ষা, তারিখ নির্ধারণ হয়নি মিলিটারি ডিকটেটররা ছাত্রদের হাতে অস্ত্র-মাদক তুলে দিয়েছিল: প্রধানমন্ত্রী - dainik shiksha মিলিটারি ডিকটেটররা ছাত্রদের হাতে অস্ত্র-মাদক তুলে দিয়েছিল: প্রধানমন্ত্রী পদ্মাসেতু: বড় পরিবর্তনের সুযোগ শিক্ষায় - dainik shiksha পদ্মাসেতু: বড় পরিবর্তনের সুযোগ শিক্ষায় প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ : ফল পুনর্মূল্যায়ন চেয়ে ৫ পরীক্ষার্থীর রিট - dainik shiksha প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ : ফল পুনর্মূল্যায়ন চেয়ে ৫ পরীক্ষার্থীর রিট বন্যা চলে গেলেই পরীক্ষা নেয়া হবে : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha বন্যা চলে গেলেই পরীক্ষা নেয়া হবে : শিক্ষামন্ত্রী বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিতে ডোপ টেস্ট বাধ্যতামূলক হচ্ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী - dainik shiksha বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিতে ডোপ টেস্ট বাধ্যতামূলক হচ্ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ৩ জুলাই থেকে বন্ধ মাধ্যমিক বিদ্যালয় - dainik shiksha ৩ জুলাই থেকে বন্ধ মাধ্যমিক বিদ্যালয় please click here to view dainikshiksha website