পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্তটি ভালো তবে সর্বশ্রেষ্ঠ নয়: এন আই খান - কলেজ - দৈনিকশিক্ষা

পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্তটি ভালো তবে সর্বশ্রেষ্ঠ নয়: এন আই খান

নিজস্ব প্রতিবেদক |

এইচএসসি পরীক্ষা বাতিল করে জেএসসি ও এসএসসির ফলের ভিত্তিতে এবারের পরীক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করার সরকারের সিদ্ধান্তটি ‘ভালো তবে, সর্বশ্রেষ্ঠ নয়’ বলে মন্তব্য করেছেন সাবেক শিক্ষাসচিব ও দৈনিক শিক্ষার প্রধান উপদেষ্টা মো. নজরুল ইসলাম খান। জেএসসি ও এসএসসি এবং সমমানের পরীক্ষার ফল অনুযায়ী এবারের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ সম্পর্কে তিনি আরো বলেন, ‘যেকোনো সরকার রিগ্রেশন অনলাইন দিয়ে চলতে চায়, এখানেও সেরকম সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে এই সিদ্ধান্তটি আরো আগে হলে ভালো হতো। আরো দেরী না করে এখন হয়েছে সেটাও ভালো। সিদ্ধান্ত তা যত ভালই হোক তার পক্ষে বিপক্ষে যুক্তি থাকবেই, এখানেও আছে।’ 

তিনি বলেন, জেএসসি এবং এসএসসির রেজাল্ট থেকে ক্যালকুলেশন করে এইচএসসি রেজাল্ট দেওয়াটাও সহজ হবে না। কর্তৃপক্ষকে এ বিষয়ে যথেষ্ট পরিশ্রম করতে হবে। ডেমো করে দেখতে হবে। ভুল করার সম্ভাবনা রয়েছে বলেও মন্তব্য করের তিনি। এসএসসি রেজাল্টের চেয়ে ভাল করার জন্য যারা বেশি পরিশ্রম করেছে তাদের জন্য হয়তো সুবিচার হবে না।

সাবেক শিক্ষাসচিব বলেন,  যারা নানা কারণে এসএসসির পর ভালো প্রস্তুতি নেন নি তারা লাভবান হবেন। যারা এসএসসিতে মানবিক থেকে সায়েন্সে এসেছে তাদের চেয়ে যারা সায়েন্স থেকে মানবিকে এসেছে তারা সুবিধা পাবেন। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিতে কোন পদ্ধতি অবলম্বন করা হয় সেটা এখন দেখার বিষয়। যদি পরীক্ষা নেওয়া হয় তবে কোন যুক্তিতে? 

যারা দেশের বাইরে পড়তে যাবেন তাদের কোনো অসুবিধা হবে কি-না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘তাদের কোনো অসুবিধা হবে বলে মনে করি না।’

এবারের উচ্চ মাধ্যমিকের ব্যাচকে কোভিড ব্যাচ হিসাবে আখ্যায়িত করে আগের এবং পরের ব্যাচগুলো সুবিধা নেওয়ার চেষ্টা করবে এবং আদালতে গড়ালে বর্তমান ব্যাচ ক্ষতিগ্রস্থ হবে। স্বাধীনতা-পরবর্তীকালে বিসিএস এবং এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা থেকে এই অভিজ্ঞতা উঠে আসে।

তিনি বলেন, পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব ছিল তবে একগ্রুপ সমালোচনা করতো যেমন এখন আমরা করছি।

  

৭ অক্টোবর এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি জানান, জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষার ফল মূল্যায়ন করেই এবারের এইচএসসির ফলাফল নির্ধারণ করা হবে। ডিসেম্বরের মধ্যে ফলাফল প্রকাশ করা হবে।

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে সয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

একাদশের শিক্ষার্থীদের গ্রুপ-ভার্সন পরিবর্তন ও টিসি কার্যক্রম ১৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত - dainik shiksha একাদশের শিক্ষার্থীদের গ্রুপ-ভার্সন পরিবর্তন ও টিসি কার্যক্রম ১৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাংলাদেশের উন্নয়নশীল দেশে উত্তোরণে জাতিসংঘের প্রস্তাব মহান অর্জন: প্রধানমন্ত্রী - dainik shiksha বাংলাদেশের উন্নয়নশীল দেশে উত্তোরণে জাতিসংঘের প্রস্তাব মহান অর্জন: প্রধানমন্ত্রী মাদরাসা গেইটের সামনের দোকান না রাখার নির্দেশ - dainik shiksha মাদরাসা গেইটের সামনের দোকান না রাখার নির্দেশ স্বপদে বহাল রেখে শিক্ষক ফারহানাকে শাস্তি দিল কর্তৃপক্ষ - dainik shiksha স্বপদে বহাল রেখে শিক্ষক ফারহানাকে শাস্তি দিল কর্তৃপক্ষ ৪৪ সরকারি কলেজে নতুন উপাধ্যক্ষ - dainik shiksha ৪৪ সরকারি কলেজে নতুন উপাধ্যক্ষ সেই শিক্ষককে দীর্ঘদিন চিকিৎসা নিতে হবে - dainik shiksha সেই শিক্ষককে দীর্ঘদিন চিকিৎসা নিতে হবে দৈনিক শিক্ষাডটকম পরিবারের প্রিন্ট পত্রিকা ‘দৈনিক আমাদের বার্তা’ - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষাডটকম পরিবারের প্রিন্ট পত্রিকা ‘দৈনিক আমাদের বার্তা’ please click here to view dainikshiksha website