প্রশংসাপত্র বিতরণে এক হাজার টাকা আদায়ের অভিযোগ - মাদরাসা - দৈনিকশিক্ষা

প্রশংসাপত্র বিতরণে এক হাজার টাকা আদায়ের অভিযোগ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি |

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার শ্যামগ্রাম মোহিনী কিশোর উচ্চ বিদ্যালয়ে চলতি বছর এসএসসিতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের প্রশংসাপত্র প্রদানের সময় প্রত্যেকের কাছ থেকে এক হাজার টাকা আদায় করা হচ্ছে। এ নিয়ে ক্ষুব্ধ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

জানা গেছে, শ্যামগ্রাম মোহিনী কিশোর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে চলতি বছর ২২২ জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়। অভিযোগ উঠেছে, ওই সব শিক্ষার্থী বিদ্যালয় থেকে প্রশংসাপত্র আনতে গেলে টাকা দাবি করে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। প্রত্যেক শিক্ষার্থীর কাছ থেকে রশিদের মাধ্যমে এক হাজার টাকা করে আদায় করছে তারা। এ বিষয়ে নবীনগর সদরে অবস্থিত ইচ্ছাময়ী পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কাউছার বেগম বলেন, ‘আমরা প্রশংসাপত্র দেওয়ার সময় শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে সর্বোচ্চ ২০০ টাকা করে নিচ্ছি।’

শ্যামগ্রাম মোহিনী কিশোর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোস্তাক আহমেদ বলেন, ‘পরিচালনা পর্ষদের সিদ্ধান্ত অনুসারেই এই টাকা নেওয়া হচ্ছে।’

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোকাররম হোসেন বলেন, ‘প্রশংসাপত্র দেওয়ার সময় শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা নেওয়ার কোনো সরকারি নির্দেশনা নেই। এটি বিদ্যালয়ের নিজস্ব সিদ্ধান্ত।’
 বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের অন্যতম সদস্য ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাসুম বলেন, ‘গত মাসে বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সভায় সর্বসম্মতভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েই শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ছাড়পত্র বাবদ এক হাজার টাকা করে নেয়া হচ্ছে।’

আপাতত ক্লাস সপ্তাহে ১ দিন : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha আপাতত ক্লাস সপ্তাহে ১ দিন : শিক্ষামন্ত্রী পরীক্ষা ছাড়া এইচএসসির ফল প্রকাশে আইন পাস, দু’দিনেই প্রজ্ঞাপন - dainik shiksha পরীক্ষা ছাড়া এইচএসসির ফল প্রকাশে আইন পাস, দু’দিনেই প্রজ্ঞাপন ৯ম গ্রেডে উন্নীত করার দাবিতে একাট্টা হচ্ছে সব সরকারি কর্মচারী সংগঠন - dainik shiksha ৯ম গ্রেডে উন্নীত করার দাবিতে একাট্টা হচ্ছে সব সরকারি কর্মচারী সংগঠন নো মাস্ক নো স্কুল, ক্লাস হবে শিফটে : দুশ্চিন্তায় বড় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান - dainik shiksha নো মাস্ক নো স্কুল, ক্লাস হবে শিফটে : দুশ্চিন্তায় বড় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সাংবাদিকতার অনন্য উচ্চতায় পৌঁছে গিয়েছিলেন মিজানুর রহমান : স্মরণসভায় জেলা জজ - dainik shiksha সাংবাদিকতার অনন্য উচ্চতায় পৌঁছে গিয়েছিলেন মিজানুর রহমান : স্মরণসভায় জেলা জজ প্রাথমিকে ঝরে পড়ার হার প্রায় শূন্যের কোটায় নেমে এসেছে, দাবি প্রতিমন্ত্রীর - dainik shiksha প্রাথমিকে ঝরে পড়ার হার প্রায় শূন্যের কোটায় নেমে এসেছে, দাবি প্রতিমন্ত্রীর মাদরাসা শিক্ষার সমস্যার সমাধান দ্রুতই : শিক্ষা উপমন্ত্রী - dainik shiksha মাদরাসা শিক্ষার সমস্যার সমাধান দ্রুতই : শিক্ষা উপমন্ত্রী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার গাইড লাইন প্রকাশ, তিন ফুট দূরত্বে ক্লাসরুমের বেঞ্চ - dainik shiksha শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার গাইড লাইন প্রকাশ, তিন ফুট দূরত্বে ক্লাসরুমের বেঞ্চ ক্লাসরুমে সর্বোচ্চ ১৫ শিক্ষার্থী, প্রতি বেঞ্চে ১ জন - dainik shiksha ক্লাসরুমে সর্বোচ্চ ১৫ শিক্ষার্থী, প্রতি বেঞ্চে ১ জন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলতে প্রস্তুতি ৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে - dainik shiksha শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলতে প্রস্তুতি ৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে please click here to view dainikshiksha website