প্রাথমিক উপবৃত্তির টাকা পেতে শিক্ষার্থীদের তথ্য অন্তর্ভুক্তি শুরু - স্কুল - দৈনিকশিক্ষা

প্রাথমিক উপবৃত্তির টাকা পেতে শিক্ষার্থীদের তথ্য অন্তর্ভুক্তি শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক |

উপবৃত্তির টাকা পেতে প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের তথ্য অন্তর্ভুক্তি শুরু হয়েছে।  ২০২১-২২ অর্থবছরের জন্য উপবৃত্তি পাওয়া শিক্ষার্থীদের মা বা অভিভাবকের মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাকাউন্টে বিতরণে একটি পিইএসপি এমআইএস পোর্টাল প্রস্তুত করা হয়েছে। এ পোর্টালে আগামী ৫ জুন পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের তথ্য অন্তর্ভুক্তি চলবে।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে চিঠি পাঠিয়ে বিষয়টি ইতোমধ্যে সব উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে। শিক্ষকরাও এ তথ্য জেনেছেন বলে দৈনিক শিক্ষাডটকমকে নিশ্চিত করেছেন।  

জানা গেছে, ১৬ মে থেকে ঢাকা, ময়মনসিংহ, বরিশাল বিভাগের উপজেলাগুলো শিক্ষার্থীদের তথ্য এন্ট্রি শুরু হবে। চলবে ২২ মে পর্যন্ত। ২৩ মে থেকে রাজশাহী, খুলনা ও রংপুর বিভাগের শিক্ষার্থীদের তথ্য অন্তুর্ভুক্তি শুরু হয়ে ২৯ মে পর্যন্ত চলবে। আর ৩০ মে থেকে ৫ জুন পর্যন্ত সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগের উপজেলাগুলোর শিক্ষার্থীদের তথ্য অন্তর্ভুক্ত করা হবে। 

অধিদপ্তর জানিয়েছে, সংশ্লিষ্ট উপজেলা বা থানার সব স্কুলের উপবৃত্তি পাওয়া শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের তথ্য পিইএসপি-এমআইএস পোর্টালে ( http://pesp.finance.gov.bd/pesp/login ) লগইন করে এন্ট্রি করতে হবে। প্রাথমিক শিক্ষা উপবৃত্তি কার্যক্রম বাস্তবায়ন নির্দেশিকা-২০২১ এবং প্রাথমিক শিক্ষা উপবৃত্তি কার্যক্রম বাস্তবায়ন আপারেশন ম্যানুয়াল-২০২১ এর খসড়া অনুযায়ী তথ্য অন্তর্ভুক্ত করা হবে। 

প্রাথমিক শিক্ষা উপবৃত্তি কার্যক্রম বাস্তাবায়নের নির্দেশিকা অনুসারে, নতুন পদ্ধতিতে শিক্ষার্থীরা উপবৃত্তি পাবেন। বিকাশসহ যেকোনো মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাকাউন্টেই শিক্ষার্থীরা উপবৃত্তির টাকা তুলতে পারবেন। উপবৃত্তি কর্মপরিকল্পনা ও বাজেট প্রাক্কলন অনুসারে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বাজেট ও অডিট অনুবিভাগ অধিদপ্তরের রাজস্ব বাজেটের নির্ধারিত কোডে টাকা বরাদ্দ করবে। অধিদপ্তর ত্রৈমাসিক চাহিদা মতো কিস্তিভিত্তিক টাকা অবমুক্ত করবে। অর্থ বিভাগ থেকে সময় সময়ে জারি করা জিটুপি পেমেন্ট পদ্ধতি অনুসারে উপবৃত্তির টাকা বিতরণ করা হবে। জিটুপি পেমেন্ট পদ্ধতির সঙ্গে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের সমন্বিত ডিজিটাল পদ্ধতির সমন্বয় সাধন করা হবে।

উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের কাছে পাঠানো চিঠিতে অধিদপ্তর জানিয়েছে, শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির টাকা তাদের মা বা অভিভাবকের মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাকাউন্টে পাঠাতে অর্থ বিভাগের বিএসিএস এবং আইবিএস প্লাস প্লাস স্কিম একটি পিইএসপি এমআইএস পোর্টাল প্রস্তুত করা হয়েছে। ওই পোর্টালে ইতোমধ্যে ১১টি উপজেলার পাইলটিং কার্যক্রমের তথ্য এন্ট্রি প্রায় শেষ হয়েছে। অবশিষ্ট ৫০২ উপজেলার উপবৃত্তির টাকা বিতরণের জন্য পিইএসপি এমআইএস পোর্টাল ১৬ মে থেকে উন্মুক্ত করা হবে। উপজেলা ও থানার সব বিদ্যালয়ের সুবিধাভোগী শিক্ষার্থী ও অভিভাবদের ডাটা পিইএসপি এমআইএস পোর্টালে এন্ট্রির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে শিক্ষা কর্মকর্তাদের। 

প্রাথমিক শিক্ষা উপবৃত্তি কার্যক্রম বাস্তাবায়নের নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, প্রাক-প্রাথমিকে শিক্ষার্থীর বয়স চার বছর এবং প্রতিমাসে ৮৫ শতাংশ উপস্থিতি থাকলে উপবৃত্তির জন্য যোগ্য হবেন। প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থীদেরও ৮৫ শতাংশ উপস্থিতি নিশ্চিত করতে হবে উপবৃত্তি পেতে। আর তৃতীয় থেকে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ৮৫ শতাংশ উপস্থিতি এবং বার্ষিক পরীক্ষায় ৪০ শতাংশ নম্বর থাকতে হবে। প্রাক-প্রাথমিকের প্রতি শিক্ষার্থী মাসিক ৭৫ টাকা হারে উপবৃত্তি পাবেন। আর প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ুয়া কোনো পরিবারের একজন শিক্ষার্থী উপবৃত্তি প্রাপ্য হলে মাসিক ১৫০ টাকা ও দুইজন শিক্ষার্থী উপবৃত্তি প্রাপ্য হলে মাসিক ৩০০ টাকা হারে পাবে। শিক্ষার্থীর মা অভিভাবক হিসেবে বিবেচিত হবেন। মায়ের অবর্তমানে বাবা বা মা-বাবার অবর্তমানে বৈধ অভিভাবকের কাছে উপবৃত্তির টাকা দেয়া হবে।

শিক্ষার সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক শিক্ষার ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে সয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

দৈনিক শিক্ষাডটকমের ইউটিউব চ্যানেল  SUBSCRIBE  করতে ক্লিক করুন।

মাদরাসা শিক্ষকদের উৎসব ভাতার চেক ছাড় - dainik shiksha মাদরাসা শিক্ষকদের উৎসব ভাতার চেক ছাড় পালিয়ে বেড়াচ্ছেন জুতার মালা পরিয়ে লাঞ্ছিত করা অধ্যক্ষ - dainik shiksha পালিয়ে বেড়াচ্ছেন জুতার মালা পরিয়ে লাঞ্ছিত করা অধ্যক্ষ শিক্ষক হত্যা: এখনও গ্রেফতার হয়নি অভিযুক্ত ছাত্র - dainik shiksha শিক্ষক হত্যা: এখনও গ্রেফতার হয়নি অভিযুক্ত ছাত্র এমপিওভুক্তির ঘোষণা হচ্ছে না এ অর্থবছরেও - dainik shiksha এমপিওভুক্তির ঘোষণা হচ্ছে না এ অর্থবছরেও শিক্ষকের গলায় জুতার মালার ঘটনায় নড়াইলের ডিসি-এসপির বিচার দাবি - dainik shiksha শিক্ষকের গলায় জুতার মালার ঘটনায় নড়াইলের ডিসি-এসপির বিচার দাবি সাত শিক্ষার্থীর জন্য ১৮ শিক্ষক-কর্মচারী এমপিওভুক্ত! - dainik shiksha সাত শিক্ষার্থীর জন্য ১৮ শিক্ষক-কর্মচারী এমপিওভুক্ত! পদ্মা সেতুতে সিসিটিভি বসানোর পর মোটরসাইকেলের বিষয়ে সিদ্ধান্ত - dainik shiksha পদ্মা সেতুতে সিসিটিভি বসানোর পর মোটরসাইকেলের বিষয়ে সিদ্ধান্ত পদ্মা সেতুকে চুম্বন করে ভাইরাল এমপি অপু - dainik shiksha পদ্মা সেতুকে চুম্বন করে ভাইরাল এমপি অপু please click here to view dainikshiksha website