বিকাশে খরচ ছাড়াই সেন্ড মানি ‘প্রিয়’ নম্বরে - কর্পোরেট সংবাদ - দৈনিকশিক্ষা

বিকাশে খরচ ছাড়াই সেন্ড মানি ‘প্রিয়’ নম্বরে

নিজস্ব প্রতিবেদক |

সারাদেশের সব শ্রেণির মানুষের প্রয়োজনীয় বিকাশ সেবা সেন্ড মানি করা যাচ্ছে খরচ ছাড়াই। *২৪৭# হোক বা বিকাশ অ্যাপ এখন গ্রাহক তার প্রিয় ৫টি নম্বরে মাসে ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত সেন্ড মানি করার সুযোগ পাচ্ছেন কোন খরচ ছাড়াই। ফলে ৯০ শতাংশ গ্রাহকেরই সেন্ড মানিতে কোন খরচ থাকছে না। কারণ, এমএফএস লেনদেনের তথ্য-বিশ্লেষণে দেখা যায় প্রায় ৯০ শতাংশ গ্রাহকই প্রতিমাসে গড়ে তিন থেকে চারটি অ্যাকাউন্টে ১৫ থেকে ২০ হাজার করে টাকা পাঠিয়ে থাকেন।

 মোবাইলে মুহুর্তেই প্রিয়জনকে সেন্ড মানি বা টাকা পাঠানোর এই সেবা এতটাই মানুষের আস্থা অর্জন করেছে যে টাকা পাঠানোর সর্মাথক শব্দে পরিণত হয়েছে ‘বিকাশ করা’। সেই সাথে কোন খরচ ছাড়াই টাকা পাঠানোর এই সুযোগ গ্রাহকদের আর্থিক লেনদেনকে আরো বেশি আনন্দময় করে তুলছে। 

এক স্থান থেকে অন্য স্থানে মুহুর্তেই টাকা পাঠানো সহজ ও ঝামেলামুক্ত করার উপায় খুঁজতে গিয়েই শুরু হয় এমএফএস এর যাত্রা। আর এর সমাধান দিয়েই অল্প সময়ের ব্যবধানে সেন্ড মানি সেবা এতটাই আস্থা অর্জন করে যে টাকা পাঠানোর প্রতিশব্দ হয়ে যায় ‘বিকাশ করা’। 

ব্যাংকিং চ্যানেলের বাইরে থাকা বিশাল সংখ্যক জনগোষ্ঠিকে আর্থিক অন্তর্ভুক্তিতে আনার ক্ষেত্রেও সেন্ড মানি সেবা উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে চলেছে। প্রতিটা সেন্ড মানির সাথে জড়িয়ে থাকে পরিবার ও প্রিয়জনের ভালোবাসার গল্প। 

পরিবার প্রিয়জনকে গ্রামে রেখে শহর–উপশহরগুলোতে যারা জীবিকার তাগিদে ছুটে বেড়ান, দিনশেষে আয়ের টাকা পরিবারকে পাঠাতে সেন্ড মানি সেবাটি তাদের কাছে আশীর্বাদের মত। এছাড়া যখনই প্রয়োজন তখনই যেকোন স্থান থেকে টাকা পাঠাতে বিকাশের চেয়ে সহজ উপায় আর হয় না। পাঠানো টাকা সহজেই প্রয়োজনমত খরচও করতে পারেন প্রাপক।  যে কোন ডিজিটাল উদ্ভাবনী সেবার পিছনে মূল অনুঘটক হিসেবে কাজ করে তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ। তথ্যই উদ্ভাবনকে বাস্তবিক রূপ দিতে সবচেয়ে বেশি সহায়তা করে। বিকাশের নেয়া উদ্যোগের পেছনেও রয়েছে তথ্য ভিত্তিক যৌক্তিকতা এবং একই সাথে গ্রাহকদের জন্য ভালো কিছু করার প্রত্যয়। 

বিকাশে প্রিয় নম্বর যুক্ত করা খুবই সহজ। *২৪৭# বা বিকাশ অ্যাপ ব্যবহার করে গ্রাহক সহজেই তার বিকাশ অ্যাকাউন্টে প্রিয় নম্বরগুলো যুক্ত করে নিতে পারছেন। প্রয়োজনে পরবর্তী মাসে প্রিয় নম্বর পরিবর্তনও করার সুযোগ আছে। 

সূত্রানুসারে চালু হওয়ার পর অল্প সময়ের মধ্যেই বিশাল সংখ্যক গ্রাহক তাদের বিকাশ প্রিয় নম্বর সংযুক্ত করে নিয়েছেন এবং *২৪৭# ও বিকাশ অ্যাপ থেকে কোন খরচ ছাড়াই সেন্ড মানি সেবা নিচ্ছেন। যে অল্প সংখ্যক গ্রাহক ২৫ হাজার টাকার বেশি টাকা পাঠান তারা ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত আগের চার্জেই টাকা পাঠাতে পারছেন।

মূল বিষয়টি হচ্ছে, প্রিয় পাঁচটি নম্বরে সেন্ড মানি ফ্রি সেবাটি নিলে ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত গ্রাহকের টাকা পাঠানোর কোনই খরচ থাকবে না। দেশের প্রায় ৯ কোটির বেশি মানুষের হাতে মোবাইল ফোন থাকলেও ৬৯ শতাংশ ব্যবহার করেন ফিচার ফোন। ফিচার ফোন ব্যবহারকারীরা ইউএসএসডি চ্যানেলই ব্যবহার করে থাকেন। যারা *২৪৭# ব্যবহার করছেন বা যারা বিকাশ অ্যাপ ব্যবহার করছেন উভয় শ্রেণীর গ্রাহকের জন্যই নতুন এই উদ্যোগে সেন্ড মানি ফ্রি হয়ে গেল। ফলে সব শ্রেণীর গ্রাহকই সেন্ড মানি করতে এজেন্ট বা অন্য কারো উপর নির্ভরশীল হওয়ার চেয়ে নিজের অ্যাকাউন্ট থেকে সেন্ড মানি করার সেবা ব্যবহারে বেশি উৎসাহিত হবেন।

তাছাড়া যেকোন নম্বরে ১০০টাকা পর্যন্ত সেন্ড মানিতে কোন খরচ থাকছে না। বিকাশ অ্যাপ ও *২৪৭# উভয় মাধ্যমেই এই খরচ ছাড়া সেন্ড মানির সুযোগ নিতে পারছেন সকল গ্রাহক। 

সাধারণ মানুষের আর্থিক লেনদেন কম খরচে, ঝামেলামুক্ত ও সহজ করার প্রত্যয় নিয়ে বিকাশ নিত্যনতুন যে পদক্ষেপ নিচ্ছে সেন্ড মানির জন্য নেয়া এই উদ্যোগ তারই একটি অংশ।

হেফাজত নেতা মামুনুল গ্রেফতার - dainik shiksha হেফাজত নেতা মামুনুল গ্রেফতার লকডাউন আরো এক সপ্তাহ বাড়তে পারে - dainik shiksha লকডাউন আরো এক সপ্তাহ বাড়তে পারে পিঠে অক্সিজেন সিলিন্ডার বেঁধে মোটরসাইকেলে শিক্ষিকা মাকে নিয়ে হাসপাতালে - dainik shiksha পিঠে অক্সিজেন সিলিন্ডার বেঁধে মোটরসাইকেলে শিক্ষিকা মাকে নিয়ে হাসপাতালে উপবৃত্তির টাকা হাতিয়ে নেয়া প্রতারক চক্রের বিরুদ্ধে অ্যাকশন শুরু - dainik shiksha উপবৃত্তির টাকা হাতিয়ে নেয়া প্রতারক চক্রের বিরুদ্ধে অ্যাকশন শুরু পাস কম তাই মাদরাসার এমপিও বন্ধ - dainik shiksha পাস কম তাই মাদরাসার এমপিও বন্ধ মিনা পাল থেকে যেভাবে ঢাকাই চলচ্চিত্রের 'মিষ্টি মেয়ে' - dainik shiksha মিনা পাল থেকে যেভাবে ঢাকাই চলচ্চিত্রের 'মিষ্টি মেয়ে' ইবতেদায়ি শিক্ষকদের তিন মাসের অনুদানের চেক ব্যাংকে - dainik shiksha ইবতেদায়ি শিক্ষকদের তিন মাসের অনুদানের চেক ব্যাংকে সেহরি ও ইফতারের সূচি - dainik shiksha সেহরি ও ইফতারের সূচি দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে - dainik shiksha দৈনিক আমাদের বার্তায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ৩০ শতাংশ ছাড়ে please click here to view dainikshiksha website