বয়স ছাড়ের দাবিতে ১৭তম নিবন্ধনে উত্তীর্ণদের মানববন্ধন - দৈনিকশিক্ষা

বয়স ছাড়ের দাবিতে ১৭তম নিবন্ধনে উত্তীর্ণদের মানববন্ধন

দৈনিক শিক্ষাডটকম প্রতিবেদক |

দৈনিক শিক্ষাডটকম প্রতিবেদক: ৫ম গণবিজ্ঞপ্তিতে আবেদনের সুযোগ দেয়ার দাবিতে মানববন্ধন করেছেন ১৭তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ৩৫ ঊর্ধ্বরা।

বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) সকালে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষের (এনটিআরসিএ) কার্যালয়ের সামনে ১৭তম শিক্ষক নিবন্ধন ফোরামের ব্যানারে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়।

১৭তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ জমির উদ্দিন বলেন, এনটিআরসিএ’র অবহেলায় ১৭তম নিবন্ধনের কার্যক্রম শেষ করতে প্রায় চার বছর লেগেছে। করোনার অজুহাত দিয়ে দীর্ঘদিন পরীক্ষা আয়োজন থেকে বিরত থেকেছে এনটিআরসিএ। তাদের কারণে আমাদের চাকরির বয়স শেষ হয়ে গেছে। আমরা আবেদনের সুযোগ চাই। আবেদনের সুযোগ না দিলে আমরা কঠোর কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবো।

১৭তম নিবন্ধন ফোরামের সাধারণ সম্পাদক উত্তম সরকার জানান, ১৭তম নিবন্ধনে উত্তীর্ণ হয়েও বয়সের গ্যাড়াকলে আমাদের জীবন আটকা পড়েছে। এর দায় এনটিআরসিএ’র। আমরা আবেদনের সুযোগ চাই। সারা দেশের ১৭তম ৩৫ ঊর্ধ্ব নিবন্ধনধারীদের আমাদের কর্মসূচিতে যোগ দেয়ার আহবান জানাচ্ছি।

জানা যায়, করোনার কারণে সারা বিশ্বের মতো দেশের সব দাপ্তরিক কার্যক্রম থমকে যায়। যার ফলে নিবন্ধন পরীক্ষার প্রক্রিয়া শেষ করতে সময় লেগেছে প্রায় চার বছর। পরে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলে সরকার সব দপ্তরেই ক্ষতিপূরণ হিসেবে কিছু সুযোগ- সুবিধা ঘোষণা করে। এরই অংশ হিসেবে সরকারি ও স্বায়ত্ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানে নিয়োগে ৩৯ মাস বয়স ছাড় দেয়া হয়। 

কিন্তু এই সুযোগ- সুবিধার আওতার বাইরে থেকে যেতে পারেন বলে আশঙ্কা করছেন ১৭তম শিক্ষক নিবন্ধনে উর্ত্তীণ প্রায় ৩ থেকে ৪ হাজার চাকরিপ্রার্থী। তাই তারা এখন নিয়োগের ক্ষেত্রেও করোনাকালীন সরকার ঘোষিত বয়সের ছাড় চাচ্ছেন।

তাদের দাবি, এখন বয়স ৩৫ বছর অতিক্রম করাদের ক্ষেত্রে বয়সের ছাড় দিয়ে পঞ্চম গণবিজ্ঞপ্তিতে তাদের আবেদনের সুযোগ দেয়া হোক।   

লিখিত বক্তব্যে তারা আরো বলেন, ১৭তম শিক্ষক নিবন্ধনের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয় ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের ২৩ জানুয়ারি। বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ থেকে শুরু করে মৌখিক পরীক্ষার ফল প্রকাশ করতে প্রায় চার বছর সময় লেগে যায়। ১৭তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষায় আবেদনের সময় আমাদের অনেকের বয়স ৩১, ৩২, ৩৩ এবং ৩৪ বছর থাকলেও চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ হওয়ার পর অনেকের বয়স ৩৫ বছর পার হয়ে গেছে।

এর আগে গত ১২ ফেব্রুয়ারি একই দাবিতে এনটিআরসিএ’র কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন করেছেন ১৭তম নিবন্ধনের ৩৫ ঊর্ধ্বরা। এছাড়া আবেদনের সুযোগ চেয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়, শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং এনটিআরসিএ’র চেয়ারম্যান বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছেন তারা। 

 

 

জড়িত মনে হলে চেয়ারম্যানও গ্রেফতার: ডিবির হারুন - dainik shiksha জড়িত মনে হলে চেয়ারম্যানও গ্রেফতার: ডিবির হারুন পছন্দের স্কুলে বদলির জন্য ‘ভুয়া’ বিবাহবিচ্ছেদ - dainik shiksha পছন্দের স্কুলে বদলির জন্য ‘ভুয়া’ বিবাহবিচ্ছেদ হিট স্ট্রোকের ঝুঁকি কমাতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা - dainik shiksha হিট স্ট্রোকের ঝুঁকি কমাতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা সনদ বাণিজ্য : কারিগরি শিক্ষা বোর্ড চেয়ারম্যানের স্ত্রী কারাগারে - dainik shiksha সনদ বাণিজ্য : কারিগরি শিক্ষা বোর্ড চেয়ারম্যানের স্ত্রী কারাগারে কওমি মাদরাসা : একটি অসমাপ্ত প্রকাশনা গ্রন্থটি এখন বাজারে - dainik shiksha কওমি মাদরাসা : একটি অসমাপ্ত প্রকাশনা গ্রন্থটি এখন বাজারে উপবৃত্তির জন্য সব অ্যাকাউন্ট নগদে রূপান্তরের নির্দেশ - dainik shiksha উপবৃত্তির জন্য সব অ্যাকাউন্ট নগদে রূপান্তরের নির্দেশ সপ্তম শ্রেণিতে শরীফার গল্প থাকছে, বিতর্কের কিছু পায়নি বিশেষজ্ঞরা - dainik shiksha সপ্তম শ্রেণিতে শরীফার গল্প থাকছে, বিতর্কের কিছু পায়নি বিশেষজ্ঞরা জাতীয়করণ আন্দোলনের শিক্ষক নেতা শেখ কাওছার আলীর বরখাস্ত অনুমোদন - dainik shiksha জাতীয়করণ আন্দোলনের শিক্ষক নেতা শেখ কাওছার আলীর বরখাস্ত অনুমোদন ১৭তম ৩৫-প্লাস শিক্ষক নিবন্ধিতদের বিষয়ে চেম্বার আদালত যা করলো - dainik shiksha ১৭তম ৩৫-প্লাস শিক্ষক নিবন্ধিতদের বিষয়ে চেম্বার আদালত যা করলো দৈনিক শিক্ষার নামে একাধিক ভুয়া পেজ-গ্রুপ ফেসবুকে - dainik shiksha দৈনিক শিক্ষার নামে একাধিক ভুয়া পেজ-গ্রুপ ফেসবুকে তিন স্তরে সনদ বিক্রি করতেন শামসুজ্জামান, দুদকের দুই কর্মকর্তার সম্পৃক্ততা - dainik shiksha তিন স্তরে সনদ বিক্রি করতেন শামসুজ্জামান, দুদকের দুই কর্মকর্তার সম্পৃক্ততা please click here to view dainikshiksha website Execution time: 0.0083091259002686