ভর্তির দাবিতে গোপালগঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়ে অপেক্ষমাণদের অনশন - ভর্তি - দৈনিকশিক্ষা

ভর্তির দাবিতে গোপালগঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়ে অপেক্ষমাণদের অনশন

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি |

গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি) ফাঁকা আসনে ভর্তির দাবিতে অনশন করছে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের অপেক্ষমাণ তালিকায় থাকা ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে আমরণ অনশনে বসে ভর্তি ইচ্ছুক এসব শিক্ষার্থী। অনিশ্চয়তায় ভুগছে দাবি করে গত ১৪ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য বরাবর চিঠি দেয় বেশ কিছু শিক্ষার্থী।

তারা দাবি করে, সাবেক ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য এবং প্রশাসন আসন সংখ্যা অপূর্ণ রেখে অপেক্ষমাণ শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ অনিশ্চয়তায় ফেলে দিয়েছেন। বিভিন্ন শিক্ষক এবং প্রশাসনের ব্যক্তিবর্গ এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেবেন বলে আশ্বাস দিলেও বিগত ৯ মাসে পদক্ষেপ নেয়নি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

অনশনরত শিক্ষার্থীদের মধ্যে ‘বি’ ইউনিটে ১১৩১তম স্থান অধিকারী আকিবুল হাসান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখিত পরীক্ষা এবং ফলাফল ঘোষণার নির্ধারিত সময়সূচি পরিবর্তনসহ পরীক্ষার সেন্টার পরিবর্তনে অসংখ্য শিক্ষার্থীকে ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছিল। পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণায়ও বিলম্ব করে পূর্ববর্তী প্রশাসন। এছাড়াও প্রশ্নফাঁস ঠেকাতে ব্যর্থ হয়েছে প্রশাসন।

অপেক্ষমাণ শিক্ষার্থী ‘ই’ ইউনিটের ১৩৪৫তম স্থান অধিকারী আল মামুন বলেন, আমরা ২০১৯-২০ সেশনের ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েও কেন আমাদের ভর্তি নেবে না। কেন আমাদের জীবন শঙ্কায় ফেলে দিল? আমাদের ভবিষ্যৎ নিয়ে কেন খেলা করল। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে আমাদের দাবি অপেক্ষমাণ তালিকায় ভর্তি করে ফাঁকা আসন পূর্ণ করা হোক।

এ বিষয়ে বশেমুরবিপ্রবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. একিউএম মাহবুব বলেন, বন্ধ ক্যাম্পাসে সিদ্ধান্ত দেয়া সম্ভব নয়। তবে ক্যাম্পাস খুললে শিগগিরই একটি সিদ্ধান্তে পৌঁছান যাবে।

উল্লেখ্য, বশেমুরবিপ্রবিতে ৮টি অনুষদ ও একটি ইনস্টিটিউটে ৪৪৪টি আসন এখনও ফাঁকা রয়েছে।

এমসি কলেজে গণধর্ষণ : ৮ ছাত্রলীগ কর্মীকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট - dainik shiksha এমসি কলেজে গণধর্ষণ : ৮ ছাত্রলীগ কর্মীকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট সুখবর আসছে ১১ থেকে ১৬ গ্রেডের কর্মচারীদের জন্য - dainik shiksha সুখবর আসছে ১১ থেকে ১৬ গ্রেডের কর্মচারীদের জন্য একজনের সাটিফিকেট তুলে নেয় আরেকজন, শিক্ষাবোর্ডে জালিয়াত চক্র বেপরোয়া - dainik shiksha একজনের সাটিফিকেট তুলে নেয় আরেকজন, শিক্ষাবোর্ডে জালিয়াত চক্র বেপরোয়া প্রাথমিক শিক্ষকদের বদলিতে অনিয়ম: দুদকের অনুসন্ধান শুরু - dainik shiksha প্রাথমিক শিক্ষকদের বদলিতে অনিয়ম: দুদকের অনুসন্ধান শুরু চার ধরনের ভাতা চান দশম গ্রেডের কর্মকর্তারা - dainik shiksha চার ধরনের ভাতা চান দশম গ্রেডের কর্মকর্তারা স্কুল-কলেজ শিক্ষকদের নভেম্বর মাসের এমপিওর চেক ছাড় - dainik shiksha স্কুল-কলেজ শিক্ষকদের নভেম্বর মাসের এমপিওর চেক ছাড় প্রশাসন ক্যাডারে আত্তীকৃত হতে চায় তিন ক্যাডার - dainik shiksha প্রশাসন ক্যাডারে আত্তীকৃত হতে চায় তিন ক্যাডার সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালনের নির্দেশ - dainik shiksha সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালনের নির্দেশ মার্চে মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার পরিকল্পনা - dainik shiksha মার্চে মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার পরিকল্পনা please click here to view dainikshiksha website