ভর্তি পরীক্ষা দিতে যাওয়ার পথে দুর্ঘটনায় আহত বেলায়েত - ভর্তি - দৈনিকশিক্ষা

ভর্তি পরীক্ষা দিতে যাওয়ার পথে দুর্ঘটনায় আহত বেলায়েত

জাবি প্রতিনিধি |

ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেয়ার জন্য জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) যাওয়ার সময়ে সড়ক দুর্ঘটনায় বেলায়েত শেখ (৫৫) আহত হয়েছেন৷ বাসের ধাক্কায় মেরুদণ্ডের নিম্নের হাড়ে প্রচণ্ড ব্যথা পেয়েছেন তিনি। 

জানা গেছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের পর আগামীকাল রোববার (৩১ জুলাই) জাবির সমাজবিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘সি’ ইউনিটে অংশ নেবেন তিনি। এজন্য শনিবার গাজীপুরের শ্রীপুর থেকে বাসে করে সাভারের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন তিনি। সেসময়ে শ্রীপুর থেকে ভবানীপুরগামী একটি বাসের ধাক্কায় আঘাত পান তিনি।

   

এ ব্যাপারে বেলায়েত জানান, ‘বাসটি গতিনিরোধকের ওপর না থামিয়ে আমাকে ধাক্কা দেয়। আহত অবস্থায় অনেক কষ্টে সাভারে পৌঁছে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে এখন সাভারে বন্ধুর বাসায় বিশ্রাম নিচ্ছি৷’ তবে দুর্ঘটনায় আহত হলেও মনোবল হারাননি বলেও ৫৫ বছর বয়সী এই ভর্তিচ্ছু।  

তিনি বলেন, ‘জীবনে অনেক বাধা পেরিয়ে ৫৫ বছর বয়সে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা দিচ্ছি৷ জীবন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলেও অ্যাকাডেমিক পরীক্ষায় বারবার বাধার মুখে পড়তে হচ্ছে। আমি যখন ১৯৮৩ খ্রিষ্টাব্দে এসএসসি পরীক্ষা দিতে প্রস্তুতি নিই, তখনও বাধার মুখে পড়ি৷ ১৯৮৮ খ্রিষ্টাব্দে এইচএসসি পরীক্ষার সময়েও বাধা আসে৷ ১৯৯১ খ্রিষ্টাব্দেও বন্যা হওয়ায় একই অবস্থার সম্মুখীন হতে হয়৷ এটা আমার দুর্ভাগ্য৷’

তিনি জানান, ঢাবির ভর্তি পরীক্ষার সময়ে আমার শ্বশুর মারা যান৷ এরপর ১৭ দিন অসুস্থ থাকার পর রাজশাহীতে পরীক্ষা দিয়েছি৷ কালকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষা দেব, আজকে গাড়িতে ধাক্কা লেগে মেরুদণ্ডের নিচে প্রচণ্ড ব্যথা পেয়েছি৷ আমার পরীক্ষার সময়ে একটা না, একটা ঘটনা ঘটে থাকে। এটা আমার দুর্ভাগ্য৷ কিন্তু মৃত্যুর আগ পর্যন্ত আমি পরীক্ষা দেব।

জন্মতারিখের প্রমাণ ছাড়া জন্মনিবন্ধন করা যাবে না - dainik shiksha জন্মতারিখের প্রমাণ ছাড়া জন্মনিবন্ধন করা যাবে না ১৩ লাখ টাকা ঘুষ দিয়েও চাকরি হয়নি, লাশ নিয়ে সভাপতির বাড়িতে অবস্থান - dainik shiksha ১৩ লাখ টাকা ঘুষ দিয়েও চাকরি হয়নি, লাশ নিয়ে সভাপতির বাড়িতে অবস্থান শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাপ্তাহিক ছুটি দুই দিন করার চিন্তা - dainik shiksha শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাপ্তাহিক ছুটি দুই দিন করার চিন্তা আগের সরকার নিয়মের তোয়াক্কা না করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করেছে : শিক্ষামন্ত্রী - dainik shiksha আগের সরকার নিয়মের তোয়াক্কা না করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করেছে : শিক্ষামন্ত্রী অনুমতি ছাড়াই দুই বছরের বেশি ছুটিতে প্রধান শিক্ষক, সহকারী শিক্ষকও নেই - dainik shiksha অনুমতি ছাড়াই দুই বছরের বেশি ছুটিতে প্রধান শিক্ষক, সহকারী শিক্ষকও নেই মেডিক্যালের প্রশ্নফাঁস চক্রে ছয় চিকিৎসকসহ জড়িত ৪২ - dainik shiksha মেডিক্যালের প্রশ্নফাঁস চক্রে ছয় চিকিৎসকসহ জড়িত ৪২ বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে অবৈধ স্টাডি সেন্টার, ব্যবস্থা নিচ্ছে না মন্ত্রণালয় - dainik shiksha বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে অবৈধ স্টাডি সেন্টার, ব্যবস্থা নিচ্ছে না মন্ত্রণালয় please click here to view dainikshiksha website